চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ০৪ মার্চ, ২০২১

২১ জুলাই, ২০১৯ | ৯:৫০ অপরাহ্ণ

বিজ্ঞপ্তি

তামাকমুক্ত শহর গড়তে গণমাধ্যমকে এগিয়ে আসতে হবে

তামাক জনস্বাস্থ্য, পরিবেশ ও অর্থনীতির জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর একটি পণ্য। শুধু প্রাপ্ত বয়স্করাই নয়, তামাকের কারণে মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে দেশের তরুণ প্রজন্মও। দেশে তামাকজনিত রোগে আক্রান্ত হয়ে প্রতি বছরে ১ লাখ ৬১ হাজার
২৬০ জন মানুষ মারা যায়। এ পরিস্থিতিতে তামাকমুক্ত শহর গড়তে তামাক নিয়ন্ত্রণ কার্যক্রমে গণমাধ্যমকে সোচ্চার ভূমিকা পালন করতে হবে।

আজ রবিবার (২১ জুলাই) নগরীর একটি হোটেলে আয়োজিত ‘ধূমপান ও তামাকজাত দ্রব্য ব্যবহার নিয়ন্ত্রণ আইন ২০০৫ বাস্তবায়ন, বাংলাদেশ পরিস্থিতি ও গণমাধ্যমের ভূমিকা শীর্ষক’ মতবিনিময় সভায় বক্তারা এসব কথা বলেন।
ক্যাম্পেইন ফর ট্যোবাকো ফ্রি কিডস’র সহায়তায় এ সভার আয়োজন করে স্থায়িত্বশীল উন্নয়নের জন্য সংগঠন ইপসা।
সভা পরিচালনা করেন ইপসার সামাজিক উন্নয়ন বিভাগের পরিচালক মাহবুবুর রহমান। বিষয়বস্তু উপস্থাপন করেন প্রজ্ঞার প্রকল্প সমন্বয়ক হাসান শাহরিয়ার এবং ইপসার উপ পরিচালক নাছিম বানু শ্যামলী। গণমাধ্যম কিভাবে তামাক নিয়ন্ত্রণ কার্যক্রমে সক্রিয় অংশগ্রহণ করতে পারে এ বিষয়ে বিস্তারিত তুলে ধরেন তারা।
এরপর খোলামেলা আলোচনায় নগরীর বিভিন্ন গণমাধ্যমে কর্মরত সাংবাদিকরা তামাক নিয়ন্ত্রণ কার্যক্রম বিষয়ে তাদের মতামত তুলে ধরেন। সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ক্যাম্পেইন ফর ট্যোবেকো ফ্রি কিডস’র গ্র্যান্টস ম্যানেজার আবদুস সালাম মিয়া, এন্টি ট্যোবেকো মিডিয়া এলায়েন্সের (আত্মার) আহবায়ক আলমগীর সবুজ প্রমুখ।
অন্যদের মধ্যে ছিলেন সিনিয়র সাংবাদিক এম নাছিরুল হক, দৈনিক পূর্বকোণের সিনিয়র সাব এডিটর মোরশেদ আলম, হাসনাত মোর্শেদ, সিনিয়র রিপোর্টার সাইফুল আলম, দীপ্ত টিভির ব্যুরো প্রধান লতিফা আনসারি রুনা, ডেইলি ইনডিপেন্ডেন্ট’র প্রধান শামসুদ্দিন ইলিয়াস প্রমুখ।

 

 

পূর্বকোণ/ এস

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 302 People

সম্পর্কিত পোস্ট