চট্টগ্রাম শনিবার, ২৯ জানুয়ারি, ২০২২

সর্বশেষ:

৩০ নভেম্বর, ২০২১ | ৯:২৩ অপরাহ্ণ

চকরিয়া-পেকুয়া সংবাদদাতা

ভোটের দু’দিন পর কেন্দ্রে পাওয়া গেলো ব্যালট পেপার

পেকুয়ার উজানটিয়া ইউপি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে গত ২৮ নভেম্বর। ভোটের ২দিন পর মঙ্গলবার (৩০ নভেম্বর) ৪ নম্বর ওয়ার্ডের মধ্যম উজানটিয়া ভেলোয়ার পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্রে খালি ব্যালট পেপার পাওয়া গেছে।

এ নিয়ে পুরো ইউনিয়নে বেশ উত্তেজনাকর পরিস্থিতি বিরাজ করছে। নির্বাচনে এ ইউনিয়ন থেকে ৩৬১২ ভোট পেয়ে চশমা মার্কার স্বতন্ত্র প্রার্থী তোফাজ্জল করিম চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের এম. শহীদুল ইসলাম চৌধুরী নৌকা প্রতীক নিয়ে পেয়েছিলেন ২৪১১ ভোট।

ভেলোয়ার পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আহমেদ হোছাইন বলেন, মঙ্গলবার সকালের দিকে বিদ্যালয় অফিসের আলমারী খোলে কিছু ব্যালট পেপার দেখতে পাই। মোট ১৪টি খালি ব্যালট পেপারের মধ্যে চেয়ারম্যান প্রার্থীদের ব্যালট ছিলো ১০টি। সংরক্ষিত মহিলা ইউপি সদস্য ও সাধারণ ইউপি সদস্য প্রার্থীদের ব্যালট ছিলো ২টি করে।

এদিকে এই ঘটনার পর আওয়ামী লীগের প্রার্থী শহীদুল ইসলামের অনুসারীরা নির্বাচনে কারচুপির অভিযোগ করেন। সাজ্জাদ হোসেন নামের স্থানীয় এক বাসিন্দা বলেন, নকল ব্যালট পেপার দিয়ে নৌকার প্রার্থীকে হারিয়ে দেয়া হয়েছে। এ কারচুপিতে মোটা অংকের লেনদেন করেছেন প্রিজাইডিং অফিসার।

নৌকার প্রার্থী শহীদুল ইসলাম বলেন, নকল ব্যালট পাওয়াতেই প্রমাণিত হচ্ছে ষড়যন্ত্র ও জালিয়াতির মাধ্যমে আমাকে হারানো হয়েছে। এ ব্যাপারে আমি নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ করার প্রস্তুতি নিচ্ছি।

উজানটিয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা আনোয়ারুল আমিন বলেন, ওই কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার মো. বেলাল হোছাইন স্বাক্ষরিত ফলাফলের শিট ও অবশিষ্ট ব্যালট পেপার বুঝে নিয়েছি। এখন যদি কেন্দ্রে ব্যালট পেপার পাওয়া যায় এর দায়ভার প্রিজাইডিং অফিসারকেই নিতে হবে।

এ ব্যাপারে জানতে মধ্যম উজানটিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার মো. বেলাল হোছাইনের মুঠোফোনে একাধিকবার চেষ্টা করা হলেও তাঁর মুঠোফোন বন্ধ পাওয়া যায়।

 

পূর্বকোণ/জাহেদ/মামুন/পারভেজ

শেয়ার করুন
  • 182
    Shares
The Post Viewed By: 489 People

সম্পর্কিত পোস্ট