চট্টগ্রাম সোমবার, ২৪ জানুয়ারি, ২০২২

২৯ নভেম্বর, ২০২১ | ৮:১৯ অপরাহ্ণ

চকরিয়া-পেকুয়া সংবাদদাতা

চকরিয়ার ইতিহাসে প্রথম নারী ইউপি চেয়ারম্যান মুন্না

কক্সবাজারের চকরিয়ার পূর্ব বড় ভেওলা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে গৃহবধূ থেকে নৌকা প্রতীকে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন ফারহারা আফরিন মুন্না। তিনি বর্তমান চেয়ারম্যান আনোয়ারুল আরিফ দুলাল ও আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী কামরুজ্জামান সোহেলসহ ৫ প্রার্থীকে পরাজিত করে চেয়ারম্যন নির্বাচিত হয়েছেন। চকরিয়ার ইতিহাসে প্রথম নারী চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন মুন্না। রবিবার অনুষ্ঠিত নির্বাচনে তিনি বিজয়ী হন।

ফরাহানা মুন্না নৌকা প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ৬,৬৫১ ভোট, তার প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির আনোয়ারুল আরিফ ৩,৯৯৯ ভোট, আ.লীগের বিদ্রোহী কামরুজ্জামান সোহেল ২,৯৬৫ ভোট, স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. আবদুল্লাহ ২২ ভোট, মো. সালাহ উদ্দিন ৩২ ভোট ও সাইফুল ইসলাম ২১ ভোট পেয়েছেন।

জানা যায়, পূর্ব বড় ভেওলা ইউনিয়নের বাসিন্দা সাবেক ছাত্রলীগ নেতা নাসির উদ্দিন নোবেলকে গত ২৭ আগস্ট ইউপি নির্বাচন ও জমির বিরোধ নিয়ে দুর্বৃত্তরা গুলি করে হত্যা করেন। তিনি এ নির্বাচনেও প্রার্থীতা ঘোষণা করেছিলেন। পরে বিষয়টি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দৃষ্টিগোচর হলে প্রয়াত নোবেলের স্ত্রী ফারহানা আফরিনকে নৌকার মাঝি ঘোষণা করেন।

জেলা, উপজেলা ও স্থানীয় আওয়ামী লীগসহ অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতা কর্মীরা একট্টা হয়ে তার প্রচারণায় সহযোগিতা করেন। ফলে তিনি বিপুল ভোটের ব্যবধানে নৌকা প্রতীক নিয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। এছাড়া স্বামী নোবেলের মৃত্যুর কারণে সাধারণ ভোটারদের সহানুভূতিও পান।

চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার পর প্রতিক্রিয়ায় ফারহানা আফরিন মুন্না বলেন, আমার স্বামী নোবেল হত্যাকাণ্ডের প্রতিদান দিয়েছেন পূর্ব বড় ভেওলার জনগণ। আমি সাধ্যমত চেষ্টা করবো এলাকার উন্নয়ন ও মানুষের মন জয় করে নৌকার মান ধরে রাখতে। আমার বিজয় মানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিজয়। এই বিজয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও পূর্ব বড় ভেওলাবাসীকে উৎসর্গ করলাম।

উল্লেখ্য, পূর্ব বড় ভেওলা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৬ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বীতা করেন। তার মধ্যে নারী প্রার্থী ফারহানা আফরিন ৫ পুরুষ প্রার্থীকে পরাজিত করে বিপুল ভোটে বিজয়ী হয়েছেন।

 

পূর্বকোণ/জাহেদ/মামুন/পারভেজ

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 725 People

সম্পর্কিত পোস্ট