চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ৩০ নভেম্বর, ২০২১

সর্বশেষ:

২৫ নভেম্বর, ২০২১ | ৯:৪৬ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

‘পাচারের শিকার ভুক্তভোগীদের সহায়তা দেওয়া একটি সংগঠনের পক্ষে সম্ভব নয়’

বাংলাদেশের মানবপাচার রোধে কাজ করতে গিয় যে বিষয়টি স্পষ্ট হয়েছে- ‌‘শুধুমাত্র একটি সংগঠন বা মন্ত্রণালয়ের পক্ষে পাচারের শিকার ভুক্তভোগীদের প্রয়োজনীয় সহায়তার যোগান দেওয়া সম্ভব নয়। পাচারের শিকার হওয়া ব্যক্তির সার্বিক সহায়তা নিশ্চিতকরণে একাধিক বা বহুপাক্ষিক সমর্থন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এবং এতে ন্যাশনাল রেফারেল মেকানিজম একটি কার্যকরি সমন্বয় গড়ে তুলতে পারে। কারণ একটি কার্যকরি ন্যাশনাল রেফারেল মেকানিজমের অনুপস্থিতির ফলে সরকারি এবং বেসরকারি সংগঠনসমূহ পাচারের শিকার ব্যক্তিদের কাছে প্রয়োজনীয় সহায়তা পৌঁছে দেওয়ার ক্ষেত্রে বিভিন্ন চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হচ্ছে।’

বৃহস্পতিবার (২৫ নভেম্বর) সকালে সাড়ে ১১টায় চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে মানব পাচারের শিকার নারী-পুরুষদের জীবনমান উন্নয়নের লক্ষ্যে সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানসমূহের সমন্বিত সেবা প্রদানের প্রয়াসে ‘জাতীয় রেফারেল কাঠামোর পথকল্প’ শীর্ষক জেলা পর্যায়ে মতবিনিময় সভায় বক্তারা এসব কথা বলেন।

ইনসিডিন বাংলাদেশ, এটসেক বাংলাদেশ ও উইনরক ইন্টারন্যাশনাল কর্তৃক ‘আশ্বাস’ প্রকল্পের আওতায় এই কার্যক্রমটি বাস্তবায়িত হয়। এতে জেলা সহযোগী প্রতিষ্ঠান হিসেবে সহায়তা করে বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব থিয়েটার আর্টস (বিটা)।

ইনসিডিন বাংলাদেশের নির্বাহী পরিচালক মাসুদ আলী খানের সঞ্চালনায় আলোচনায় অংশ নেন চট্টগ্রাম জেলা সিভিল সার্জন ডা. মো. ইলিয়াস চৌধুরী। প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক মমিনুর রহমানের পক্ষে বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার গালিব চৌধুরী।

অনুষ্ঠানের শুরুতে ভার্চুয়ালি যোগ দিয়ে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব (রাজনৈতিক ও আইসিটি) জিএসএম জাফরউল্লাহ।

রেফারেল ম্যাকানিজমের গুরুত্বপূর্ণ প্রয়োজনীয়তার কথা তুলে ধরে উইনরক ইন্টারন্যাশনাল, ‘আশ্বাস’ প্রকল্পের পক্ষে বক্তব্য রাখেন টিম লিডার দিপ্তা রক্ষিত, জেলা সহযোগী সংস্থা বিটার পক্ষে নির্বাহী পরিচালক শিশির দত্ত।

আলোচনায় আরও অংশগ্রহণ নেন চট্টগ্রাম মহিলাবিষয়ক অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মাধবী বড়ুয়া, চট্টগ্রাম যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের উপপরিচালক প্রজেশ কুমার সাহা জেলা কর্মসংস্থান ও জনশক্তি কার্যালয়ের উপপরিচাল জহিরুল আলম মজুমদার, বিভাগীয় কর্মসংস্থান ও জনশক্তি কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মহেন্দ্র চাকমা, চট্টগ্রাম মহিলা কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের অধ্যক্ষ প্রকৌশলী আশরিফা তানজীম, প্রবাসী কল্যান ব্যাংকের রিজিওনাল ম্যানেজারের সুমন দে, চট্টগ্রাম জেলা তথ্য অফিসের উপ-পরিচালক মোহাম্মদ সাঈদ হাসানসহ বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি সংস্থাসমূহের উর্ধ্বতন প্রতিনিধিবৃন্দ।

পূর্বকোণ/রাজিব/মামুন/এএইচ 

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 283 People

সম্পর্কিত পোস্ট