চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ১২ ডিসেম্বর, ২০১৯

১৭ জুলাই, ২০১৯ | ১:০৮ পূর্বাহ্ন

নিজস্ব সংবাদদাতা ,সাতকানিয়া

সাতকানিয়ায় ভোটার তালিকায় রোহিঙ্গা অন্তর্ভুক্তির অভিযোগ

সাতকানিয়ায় রোহিঙ্গা নাগরিকের ভোটার হওয়া থেমে নেই। সরকারের ঘোষণা অনুযায়ী দক্ষিণ চট্টগ্রাম থেকে টেকনাফ পর্যন্ত ভোটার হওয়ার ক্ষেত্রে কড়াকড়ি আরোপের পরও সাতকানিয়া পৌরসভা এলাকায় পরিচয় গোপন ও মিথ্যা তথ্য দিয়ে মিয়ানমারের এক নাগরিক ভোটার হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। আবু সমা নাম ব্যবহার করে সাতকানিয়া পৌরসভার ৫নং ওয়ার্ডের রোজমর পাড়ার নাগরিক পরিচয় দিয়ে ভোটার তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হয়েছে সে। এ ব্যাপারে সম্প্রতি স্থানীয় সরওয়ার কামাল নামে এক ব্যক্তি চট্টগ্রাম জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও সাতকানিয়া উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তার নিকট একটি অভিযোগ দায়ের করেন। ইতিমধ্যে বিষয়টি জানাজানি হলে এলাকায় ব্যাপক আলোচনার ঝড় উঠে।
অভিযোগ থেকে জানা যায়, আবু সমা একজন মিয়ানমারের নাগরিক। ইতিমধ্যে সে মিথ্যা তথ্য ও পরিচয় গোপন করে ভোটার তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হয়েছেন। ভোটার তালিকায় তার বাবার নাম লেখা হয়েছে সুলতান আহমদ। মায়ের নাম হালিমা খাতুন। পেশা ব্যবসা। জন্ম তারিখ ১ জানুয়ারি ১৯৭০ ইং। হোল্ডিং নং-৮৬। ঠিকানা উল্লেখ করা হয়েছে পৌরসভার ৫নং ওয়ার্ডের রোজমর পাড়া, পশ্চিম ঢেমশা, সাতকানিয়া। কিন্তু ঠিকানায় যে হোল্ডিং নাম্বার ব্যবহার করা হয়েছে তা ভুয়া। প্রকৃতপক্ষে ওই হোল্ডিং নাম্বারধারী বাড়ির মালিকের নাম গিয়াস উদ্দীন। এছাড়া আবু সমার সাতকানিয়ায় কোন স্থায়ী ঠিকানা নাই। বর্তমানে সে রোজমর পাড়ার পার্শ্ববর্তী ছিটুয়া পাড়ায় সিরাজের ভাড়া বাসায় থাকেন।
এ ব্যাপারে প্রকৃত হোল্ডিং নাম্বারধারী গিয়াস উদ্দীন বলেন, আমাদের অজান্তে আবু সমা আমাদের হোল্ডিং নাম্বারটি ব্যবহার করে ভোটার হয়েছেন।
অভিযোগকারী সরওয়ার কামাল বলেন, আবু সমা প্রকৃতপক্ষে মায়ানমারের নাগরিক। তার পূর্ব পুরুষের কোন অস্তিত্ব এলাকায় পাওয়া যায়নি। দীর্ঘদিন ধরে এলাকায় ভাড়াটিয়া হিসেবে বসবাস করার সুযোগে তথ্য গোপন করে ভোটার তালিকায় নাম উঠিয়েছেন। এ ক্ষেত্রে স্থানীয় কেউ কেউ তাকে সহায়তা করেছে। অথচ দক্ষিণ চট্টগ্রামের মিয়ানমারের নাগরিক কিনা তা যাচাইবাছাই করে ভোটার তালিকার নাম উঠানোর ক্ষেত্রে নানা বিধি-নিষেধ মেনে চলার বাধ্যবাধকতা রয়েছে। তাই আমি এ বিষয়ে নির্বাচন কর্মকর্তার অফিসে লিখিত আবেদন করেছি, তদন্তসাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য।
অভিযুক্ত আবু সমা তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন বলেছেন। সে বলেন, কাউন্সিলর ভোটে জিততে না পেরে আমার বিরুদ্ধে এ অপ-প্রচার চালাচ্ছে সরওয়ার।
সাতকানিয়া উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. শেখ ফরিদ পূর্বকোণকে বলেন, পৌরসভা এলাকায় রোহিঙ্গা নাগরিক ভোটার হয়েছে এমন একটা অভিযোগ আমি পেয়েছি। যথাযথ নিয়ম মেনে বিষয়টির তদন্ত করা হবে। তদন্তে ভোটার তালিকায় দেয়া তথ্যাদি যদি আবু সমা প্রমাণ করতে না পারে তাহলে নির্বাচন কমিশনের নিয়ম অনুসরণ করে তাকে বাদ দেয়ার প্রক্রিয়া শুরু করা হবে। পাশাপাশি নেয়া হবে আইনগত ব্যবস্থা।

The Post Viewed By: 151 People

সম্পর্কিত পোস্ট