চট্টগ্রাম সোমবার, ২৯ নভেম্বর, ২০২১

সর্বশেষ:

২২ সেপ্টেম্বর, ২০২১ | ৭:১১ অপরাহ্ণ

আদালত প্রতিবেদক

চট্টগ্রামে ভ্রূণ হত্যার অভিযোগে স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা

চট্টগ্রামে স্বামী, শাশুড়িসহ চারজনের বিরুদ্ধে ভ্রুণ হত্যার অভিযোগ করেছেন এক গৃহবধূ। বুধবার (২২ সেপ্টেম্বর) রাঙ্গুনীয়া উত্তর পদুয়ার সাজু আকতার নগরীর মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মো. শফিউদ্দিনের আদালতে অভিযোগটি দায়ের করেন। অভিযোগ তদন্ত করতে আদালত চান্দগাঁও থানার ওসিকে নির্দেশ দিয়েছেন।
অভিযুক্তরা হলেন, রাঙ্গুনীয়া উপজেলার হোসনাবাদ এলাকার দুবাই প্রবাসী কাজী সফিউল আলম, শাশুড়ি নুর আয়শা বেগম, ননদ তসলিমা বেগম ও পারভীন বেগম।
অভিযোগে বলা হয়, ২০১৬ সালের ৭ ডিসেম্বর সফিউল আলমের সাথে বাদির বিয়ে হয়। এরপর বাদি গর্ভবতী হলে ২০১৭ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি পিল খাইয়ে বাদির ভ্রুণ নষ্ট করে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বাদীর আইনজীবী গোলাম মাওলা মুরাদ বলেন, আদালত বাদীর বক্তব্য শোনার পর বিষয়টি চান্দগাঁও থানা-পুলিশকে তদন্তের নির্দেশ দেন।

মামলার অভিযোগে বলা হয়, জেলার রাঙ্গুনিয়া থানার খিলমোগল খামারিপাড়া হোসনাবাদ এলাকার কাজী সফিউল আলমের সঙ্গে পারিবারিকভাবে বিয়ে হয় উত্তর পদুয়া পশ্চিম খুরুশিয়ার সাজু আক্তারের। বিয়ের পর অন্তঃসত্ত্বা হলে জ্বর, সর্দির ওষুধের কথা বলে সাজুকে গর্ভপাত করানো হয়। শ্বশুরবাড়ির লোকজন আবার সন্তান না নেওয়ার জন্য চাপ দিতে থাকেন। তাঁদের অত্যাচারে গত বছরের জুলাইয়ে সাজু নগরের বহদ্দারহাটে তাঁর বোনের বাসায় চলে আসেন। এ বছরের আগস্টে স্বামী সফিউলও সেই বাসায় এসে ওঠেন। একপর্যায়ে সাজু সন্তানসম্ভবা হলে স্বামী গর্ভপাতের জন্য চাপ দিতে থাকেন। কিন্তু সাজু রাজি না হওয়ায় স্বামী তাঁকে তালাকের হুমকি দিয়ে বাসা থেকে চলে যান।

পূর্বকোণ/এএ

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 921 People

সম্পর্কিত পোস্ট