চট্টগ্রাম শুক্রবার, ২২ অক্টোবর, ২০২১

১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১ | ৯:৩১ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

সব মানুষের মাতৃভাষা সংরক্ষিত হোক, চর্চা হোক : ড. শিরীণ আখতার

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. শিরীণ আখতার বলেছেন, আমাদের দেশে মিশ্র সংস্কৃতি। অনেক ভাষাভাষি লোক পাশাপাশি আছি। প্রত্যেক জাতিগোষ্ঠীর নিজস্ব ভাষা আছে। বাংলাদেশের আপামর মানুষের মাতৃভাষা সংরক্ষিত হোক, চর্চা হোক এটাই আমরা চাই। যদি একটি জনগোষ্ঠী নিজের মাতৃভাষা চর্চা করতে না পারে তাহলে তারা এগিয়ে যেতে পারবে না। বাংলাদেশকে এগিয়ে যেতে হলে ক্ষুদ্র মন নিয়ে নয় সবাইকে নিয়ে এগুতে হবে।

শুক্রবার (১৭ সেপ্টেম্বর) বিকেলে চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের এস রহমান হলে পিপল’স ভয়েস’র উদ্যোগে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা জাতীয় পদক প্রাপ্ত মথুরা বিকাশ ত্রিপুরা সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

ড. শিরীণ আখতার বলেন, পাহাড়ের জাতিগোষ্ঠীর ভাষাকে এগিয়ে নিতে অবশ্যই আমাদেরকে কাজ করতে হবে। বাংলা ভাষাও অনেক সংগ্রাম করেছে। কোনো নৃগোষ্ঠী যখন জ্ঞান বিজ্ঞানে এগিয়ে আসে তাদের ভাষা মূলধারায় ঠাঁই করে নেয়। শুরুতে না হলেও গবেষণার মাধ্যমে প্রায়োগিক ভাষা সৃষ্টি হয়। এই চেতনা লালন করতে হবে যে আমরা সবাই এক। সবার সম্মান রক্ষার্থে অন্যদেরও একতাবদ্ধ থাকতে হবে।

আন্তার্জাতিক মাতৃভাষা জাতীয় পদক প্রাপ্ত সংবর্ধিত মথুরা বিকাশ ত্রিপুরা বলেন, মাতৃভাষায় যখন কথা বলতে পারি না তখন মনে হয় যেন নি:শ্বাস বন্ধ হয়ে আসছে। শৈশব থেকে মাতৃভাষায় লেখাপড়ার সুযোগ পাইনি। শিক্ষার প্রয়োজনে অন্য একাধিক ভাষা শিখেছি। ভাষার আকুতি আমার নি:শ্বাসের মত। মাতৃভাষা প্রয়োগ করতে না পারলে ভিতরে ক্ষরণ তৈরি হয়। এদেশের মানুষ ভাষার জন্য আন্দোলন করেছিল উল্লেখ করে তিনি বলেন, সেই চেতনার সিঁড়ি বেয়ে স্বাধীন সার্বভৌম এই দেশ। আমরা গর্ববোধ করি ৫২’র ভাষা আন্দোলনের জন্য। সারাবিশ্বের মানুষ আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে নিজ নিজ ভাষার গৌরব উদযাপন করে। এই স্বীকৃতি আমার জন্যে গর্বের। শুধু আমার মাতৃভাষা নয় সকলের মাতৃভাষা নিয়ে কাজ করার দায়িত্ব তৈরি হয়েছে। সরকার ভূমিকা রাখার ক্ষেত্র তৈরি করে দিতে আমাদের কাজ করতে হবে। 

পিপল’স ভয়েস সভাপতি শরীফ চৌহানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন পিপল’স ভয়েসের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আতিকুর রহমান এবং সংবর্ধিত অতিথির জীবনীপাঠ করেন কাজী মুশফিকুস সালেহীন। বাংলাদেশ সরকার কর্তৃত প্রবর্তিত আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা জাতীয় পদক ২০২১ এ ভূষিত হয়েছেন জাতীয় অধ্যাপক মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম ও মথুরা বিকাশ ত্রিপুরা। বিভিন্ন জাতিগোষ্ঠীর ভাষা সংরক্ষণ, শিক্ষা, পাঠ্যপুস্তক প্রণয়ন, আর্থ-সামাজিক বিষয়, সংস্কৃতি ও মাতৃভাষায় শিক্ষা প্রচলনসহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে গবেষণা করছেন মথুরা বিকাশ ত্রিপুরা।

পূর্বকোণ/আরআর/পারভেজ

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 258 People

সম্পর্কিত পোস্ট