চট্টগ্রাম বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২১

২ আগস্ট, ২০২১ | ২:৪৭ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

অন্তঃসত্ত্বা বলে বার বার ছাড় পেলেও অবশেষে ধরা

কথায় আছে ‘স্বভাব যায় না মলে, খাছলত যায় না ধুলে’। আগ্রাবাদে চুরি করতে গিয়ে রাবেয়া আক্তার নেহা (২৩) নামের আটমাসের এক অন্তঃসত্ত্বা নারীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।
সোমবার (২ আগস্ট) সকালে আগ্রাবাদ মৌলভীপাড়ার মানিক ম্যানশন থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।
শারিরিক এ অবস্থাতেও তিনি চুরি করা থামান নি। চার মাস আগেও একই অপরাধের জন্য গ্রেপ্তার হন তিনি! অন্তঃসত্ত্বা অবস্থায় পুলিশের হাতে দুইবার গ্রেপ্তার হলেও এলাকাবাসীর হাতে ধরা পড়েন আরও চারবার। কিন্তু প্রতিবারই এই ‘অন্তঃসত্ত্বা’র জন্য সহানুভূতি পান তিনি। তবে সেই সহানুভূতিকে পুঁজি করে তিনি চুরি করেছেন আরও চারবার! এবারও কেউ সন্দেহ না করলেও সিসিটিভি ফুটেজে ধরা পড়ে যায় তার চুরির কর্মকাণ্ড।
ডবলমুরিং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মহসীন বলেন, রাবেয়া চট্টগ্রামের অন্যতম শীর্ষ চোর। তিনি চুরি করেন খুব ভোরে। সে সময় অনেকে নামাজ পড়তে যায়, অনেকে ব্যায়াম করতে যায়। তাই অনেক বাসা অসাবধানতাবশত খোলা থাকে। তখনই তিনি চুরি করে পালিয়ে যান।
রাবেয়া জানান, তিনি এই কায়দায় শতাধিক চুরি করেছেন। অধিকাংশ ক্ষেত্রেই ধরা না পড়ায় তার বিরুদ্ধে মামলা মাত্র ৪ টি।

তিনি আরও জানান, পুরো চট্টগ্রামেই তিনি চুরি করেন। আট মাসের অন্তঃসত্ত্বা এটা তার চুরিতে বাধা হওয়ার কথা থাকলেও তিনি এটাকেই করেছেন পুঁজি! গর্ভবতী হওয়ায় সহজেই কেউ সন্দেহ করে না। আবার ধরা পড়ে গেলেও আলাদা সহানুভূতি কাজ করে। তাই এই অবস্থায়ও তিনি চুরি থামাননি! এর মাঝেও চুরি করেছেন ৮ বার! তারমধ্যে এলাকাবাসীর কাছে ধরা পড়লেও সহানুভূতি পেয়ে ছাড়া পান।
আজ ভোরে মানিক ম্যানশনে একটি বাসা থেকে মোবাইল ও কাপড় চুরি হয়। পরে এলাকাবাসী সিসিটিভি ফুটেজে রাবেয়াকে শনাক্ত করে ৯৯৯ এ ফোন দিলে পুলিশ তাকে আটক করে এবং চুরি যাওয়া মালামাল উদ্ধার করে। রাবেয়ার বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট আইনে আরও একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

 

পূর্বকোণ/পিআর/এসি

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 1856 People

সম্পর্কিত পোস্ট