চট্টগ্রাম সোমবার, ১৮ অক্টোবর, ২০২১

সর্বশেষ:

২৯ জুলাই, ২০২১ | ৫:০৬ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

চট্টগ্রামে রোগীর জন্য ব্ল্যাক ফাঙ্গাসের ওষুধ পাচ্ছেন না স্বজনরা

চট্টগ্রামে প্রথমবারের মতো ‘মিউকরমাইকোসিস’ আক্রান্ত রোগীর সন্ধান পাওয়া গেছে। চিকিৎসকদের ভাষায় ‘মিউকরমাইকোসিস’ এটি ব্ল্যাক ফাঙ্গাসের মতোই। যদিও এখন পর্যন্ত চিকিৎসকরা একে ‘সাসপেক্টেড ব্ল্যাক ফাঙ্গাস’ হিসেবেই চিকিৎসা দিয়ে যাচ্ছেন। যদিও আনুষ্ঠানিকভাবে এখনও নিশ্চিত করা হয়নি। ষাটোর্ধ্ব ওই রোগী চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

তার চিকিৎসার জন্য প্রয়োজনীয় ওষুধ পাওয়া যাচ্ছে না বলে জানিয়েছেন স্বজনেরা। ওই নারী চার দিন আগে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগে ভর্তি হন।

বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) আক্রান্ত নারীর মেয়ে বলেন, গত ২৫ জুন তার জ্বর আসে। ৩ জুলাই পরীক্ষায় করোনাভাইরাস ধরা পড়ে। পরে ১৫ জুলাই পরীক্ষায় তিনি কোভিড নেগেটিভ হন। তবে এরপর তার নানা ধরনের শারীরিক সমস্যা দেখা দেয়। ২৪ জুলাই তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আনা হয়।

রিপোর্ট আসার পর ব্ল্যাক ফাঙ্গাস বলে ধারণা করেন চিকিৎসকেরা। পরে ২৪ জুলাই মাকে চট্টগ্রামে মেডিকেলে ভর্তি করা হয়। ভর্তির পর একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে মায়ের বায়োপসি করতে দেওয়া হয়। গতকাল দুপুরে আসা রিপোর্টে ব্ল্যাক ফাঙ্গাস শনাক্ত হয়েছে। আরও অধিকতর পরীক্ষার জন্য ঢাকায় নমুনা পাঠানো হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, তার মাকে হাসপাতালে ভর্তি করার আগের দিন ২৩ জুলাই তাদের বাবা করোনায় মারা গেছেন। এখন ওষুধের অভাবে মাকে বাঁচানো নিয়ে শঙ্কা তৈরি হয়েছে।

ওষুধের বিষয়ে জানতে চাইলে ওই নারীর মেয়ে বলেন, মেডিকেল থেকে যে ইনজেকশনটি রেফার করেছে সেটি বিকনের। আমরা বিকনের ঢাকা চট্টগ্রাম সব অফিসে যোগাযোগ করেছি। কোথাও পাওয়া যাচ্ছে না। দিনে ৫ ভায়াল করে ১৪ দিন নাকি দিতে হবে এই ওষুধ। ডাক্তাররা সবকিছু পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর বলেছেন, একটি অস্ত্রোপচার লাগবে। মায়ের নাক, মুখ ও চোখে এই অস্ত্রোপচার হবে, যাতে পুনরায় নতুন জায়গায় ফাঙ্গাস না ছড়ায়।’

পূর্বকোণ/পিআর

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 421 People

সম্পর্কিত পোস্ট