চট্টগ্রাম বুধবার, ০৪ আগস্ট, ২০২১

সর্বশেষ:

২৩ জুন, ২০২১ | ১২:০৬ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

চকবাজার থানার ক’শ গজের মধ্যে নিত্য ছিনতাই

চকবাজার থানার কয়েকশ গজের মধ্যে চকবাজারের কাঁচাবাজার এলাকা ভোর রাতে নিত্য ঘটছে ছিনতাই। জরুরি প্রয়োজনে ঘর থেকে বেরিয়ে তাদের অনেককেই ছিনতাইকারিদের খপ্পরে পড়তে হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন তারা। সপ্তাহ খানেকের মধ্যে এই এলাকায় ৪টা ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ রয়েছে। এ ছিনতাইগুলো মধ্যরাত থেকে ভোর ৫ টার মধ্যে হচ্ছে। পথচারীদের পেলেই ধারালো অস্ত্র ধরে হাতিয়ে নিচ্ছেন নগদ টাকাসহ মোবাইল।

আরিফ হোসেন নামে এক ব্যক্তি বলেন, দু’দিন আগে হঠাৎ করে রাতের প্রায় তিনটার দিকে মা অসুস্থ হয়ে পড়লে মাকে নিয়ে তাৎক্ষণিক চট্টগ্রাম মেডিকেলের উদ্দেশ্যে বেরিয়ে পড়ি। চকবাজার কাঁচাবাজার পার হতেই রিকশার সামনে চারজন যুবক এসে ঘিরে ধরে আর সাথে কি আছে সব দিয়ে দিতে। দিতে না চাইলে তারা আমার গায়ে হাত তুলে। পরে তারা জোর করে টাকা ও মোবাইল নিয়ে যায়। আবার রিকশা ফিরিয়ে ঘর থেকে টাকা নিয়ে মাকে নিয়ে হাসপাতাল যাই। একইভাবে গতকাল মঙ্গলবার ভোর রাতে ছিনতাইয়ে শিকার হয়েছে আব্দুল হক ও রবিউল হোসেন নামের দুই ব্যক্তি।

রবিউল হোসেন বলেন, আমি সবজি ব্যবসায়ী। ভোর ৪ টায় ১০ হাজার টাকা নিয়ে সবজি কিনতে যাচ্ছিলাম। আগে আমাকে ধরে সব টাকা ও মোবাইল নিয়ে আমাকে আটকে রাখে কিছুক্ষণ। এর কিছুক্ষণের মধ্যে আরেকজনকে ধরে টাকা নিয়ে নেয়। এসময় তারা আমার গায়ে হাতও তুলে। ভুক্তভোগী আব্দুল হক বলেন, আমি প্রতিদিন ভোর চারটায় কাজের উদ্দেশ্যে ঘর থেকে বের হই। পশ্চিম বাকলিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে আসতেই তিনজন ছেলে এসে আমাকে ছুরি দিয়ে ঘিরে ধরে। একজন জোর করে আমার পকেট থেকে ৭শ টাকা, মোবাইলসহ গুরুত্বপূর্ণ কাগজপত্র ছিনিয়ে নিয়ে যায়। তারা দাবি করেন এলাকায় পুলিশের টহল বাড়ানোর দরকার। সে সময় রাস্তায় কোন পুলিশ ছিল না। তাই এমন দুর্ঘটনা ঘটেছে।

চকবাজার এলাকার স্থানীয় বাসিন্দা রবিউল হক বলেন, বেশ কিছুদিন ধরে চকবাজার এলাকার বিভিন্ন স্থানে ছিনতাই হওয়ার খবর শুনছি। গতকাল ভোর চারটায়ও তিনটা ছিনতাই হয়েছে শুনলাম। ভোর তিনটা থেকে পাঁচটার মধ্যে সবজি, মাছ ও ফল ব্যবসায়ীসহ বিভিন্ন পেশার মানুষ কাজের উদ্দেশ্যে বের হন। তখনই কিছু ছিনতাইকারি অস্ত্রের মুখে তাদের থেকে সবকিছু ছিনতাই করে নিয়ে যাচ্ছে। এলাকায় পুলিশের টহল বাড়ানো দরকার। আমরা সবাই বিপজ্জনক অবস্থায় আছি।

এ বিষয় চকবাজার থানার ডিউটি অফিসার এ এস আই ইউসুফ বলেন, রাতে টহল পুলিশরা ডিউটিতে রয়েছে। অনেক সময় পুলিশ একদিক থেকে অন্যদিকে টহল দিতে গেলেই সেই সুযোগ বুঝে কিছু ঘটনা ঘটছে। তবে টহল আগের চেয়ে বেড়েছে । আশা করছি বন্ধ হবে।

পূর্বকোণ/পিআর

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 262 People

সম্পর্কিত পোস্ট