চট্টগ্রাম শনিবার, ৩১ জুলাই, ২০২১

সর্বশেষ:

১৪ জুন, ২০২১ | ২:৫৩ অপরাহ্ণ

 নিজস্ব প্রতিবেদক

চট্টগ্রামে রেলওয়ে রানিং কর্মচারীদের সমাবেশ-স্মারকলিপি

বাংলাদেশ রেলওয়ে স্টাফদের মাইলেজ (পার্ট অব পে) পূর্বের ন্যায় বেতন কোড থেকে দেয়ার দাবিতে সমাবেশ করেছে বাংলাদেশ রেলওয়ে রানিং স্টাফ ও শ্রমিক কর্মচারী সমিতি চট্টগ্রামের নেতৃবৃন্দ। একইসঙ্গে তারা রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের বিভাগীয় ব্যবস্থাপক (ডিআরএম) তারেক মোহাম্মদ সামস তুষারের কাছে একটি স্মারকলিপিও দেন।

আজ সোমবার (১৪ জুন) সকাল ১১টায় বিভাগীয় ব্যবস্থাপককে দেওয়া স্মারকলিপিতে বলা হয়, বাংলাদেশ রেলওয়ে রার্নিং স্টাফদের প্রাপ্ত ‘মাইলেজ’ রেলওয়ে কোডে ‘পার্ট অব পে’ হিসেবে স্বীকৃত রেল সৃষ্টির শুরু থেকে রেলওয়ে কোড এবং ম্যানুয়ালের বিধানমতে রানিং স্টাফরা মাসিক নিয়মিত বেতন বিলের সাথে অর্জিত মাইলেজ সংযুক্তভাবে পেয়ে আসছেন এবং এটি বেতন বাজেটের সাথে অন্তর্ভুক্ত ছিল। ২০১৯ সালে আমাদের অগোচরে বেতনের অংশ মাইলেজ বেতন বাজেট থেকে আলাদা করে টিএ খাত হতে প্রদান করা হয়। তাতে নানাবিধ জটিলতা দেখা দেয়। ফলে টিএ খাতের কর্মচারীদের মাঝে ক্ষোভ ও অসন্তোষ সৃষ্টি হয়। এর ভিত্তিতে এডিজির কাছে মাইলেজ অর্থাৎ ‘পার্ট অব পে’ পূর্বের ন্যায় বেতেন বাজেটে বহাল রাখার অনুরোধ জানানো হয়। তিনি বিষয়টি সুবিবেচনার আশ্বাস দেন। কিন্তু পরবর্তিতে দেখা যায় মাইলেজের জন্য ‌‘মাইলেজ ভাতা’ নামে আলাদা কোড খোলা হয়। যাহা ওই কোডে আইবাস সিস্টেমে রানিং কর্মচারীদের অর্জিত মাইলেজ সর্বোচ্চ (৩ হাজার টাক) তিন হাজার মাইল তথা ৩০ দিনের বেশি অন্তর্ভুক্ত করা যাচ্ছে না।

বেলওয়ে রানিং স্টাফদের এই মাইলেজ নিয়ে সময়ে সময়ে প্রশাসনের মধ্যে লুকিয়ে থাকা বর্ণচোরা সরকার বিরোধী চক্র যড়যন্ত্র করেছে। তারা বার বার ব্যর্থ হয়েছে। বর্তমান সরকার প্রধান প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা কর্তৃক এই মাইলেজ ‌‘পাট অব পে’ হিসাবে পূর্বের ন্যায় রেলওয়ে কোড ও বিধি বিধানের আলোকে প্রদানের অনুমোদন আছে।

যুগ যুগ ধরে বহাল থাকা ‘পার্ট অব পে’ মাইলেজ পূর্বের ন্যায় বেতন বাজেটে অন্তর্ভুক্ত রেখে কোড ও ম্যানুয়ালের বিধানমতে প্রদানের জন্য সংশ্লিষ্টদের প্রতি অনুরোধ জানান তারা।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় ভারপ্রাপ্ত সাধাণ সম্পাদক মো. মজিবুর রহমান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. মজিবুর রহমান ভূঁইয়া, খুরশিদ আলম, সাংগঠনিক সম্পাদক এমএম সাহেদ আলী, দপ্তর সম্পাদক আব্দুল বারি, তথ্য ও প্রচার সম্পাদক মীর এবি এম শাফকুল আলম প্রমুখ।

পূর্বকোণ/পিআর/এএইচ

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 303 People

সম্পর্কিত পোস্ট