চট্টগ্রাম সোমবার, ১৮ অক্টোবর, ২০২১

সর্বশেষ:

২ জুলাই, ২০১৯ | ২:২৬ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

সুলতান কলোনির সরু গলিতেই অস্থায়ী বাজার, দুর্ভোগে বাসিন্দারা

২৩ নং উত্তর পাঠানটুলী ওয়ার্ড

এমনিতে সরু। রিকশা তো থাক দূরের কথা মানুষ চলাচলেও কষ্টের। তারমধ্যে ছোট ছোট টেবিল বসিয়ে তৈরি করা হয়েছে অস্থায়ী বাজার । কিছুদিন পরপর সিটি কর্পোরেশনের ভ্রাম্যমাণ আদালত উচ্ছেদ করলেও ফের দখলে নেয় ব্যবসায়ীরা। এই চিত্র নগরীর ২৩নং উত্তর পাঠানটুলী ওয়ার্ডের সুলতান কলোনির বৌ-বাজার এলাকার। স্থানীয়রা বলছেন, এসব দোকানের কারণে চলাচল থেকে শুরু করে বিভিন্ন সময় দুর্ভোগেও পড়তে হয়।
সরেজমিনে দেখা যায়, সড়কের দুই পাশের অর্ধেক অংশেই ছোট ছোট টেবিল বসিয়ে সবজি থেকে শুরু করে বিভিন্ন মালামাল বিক্রি করছেন ব্যবসায়ীরা। যার কারণে ওই সড়ক দিয়ে রিকশাতো থাক দূরের কথা কোন গাড়িই চলাচল করতে পারছে না । দোকানীদের দাবি, দীর্ঘদিন থেকেই তারা এ ভাবেই ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছেন। তবে স্থায়ী কোন ব্যবস্থা না হওয়ায় তারা টেবিলগুলো বসিয়েছেন। এতে করে পথচারী বা সাধারণ মানুষের সমস্যা হচ্ছে না বলেও দাবি তাদের।
স্থানীয়রা জানান, ওই এলাকার বসবাস করা মানুষগুলোর একমাত্র যাতায়াতের সড়ক হচ্ছে বংশাল পাড়া থেকে সুলতান কলোনির এই সড়কটি। তবে দীর্ঘদিন থেকে সড়ক সরু হওয়ায় চলাচলে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। এসব বিষয়ে সিটি কর্পোরেশনের নজরে আসায়, কয়েকবার ভ্রাম্যমাণ আদালত এসে উচ্ছেদও করেছেন। তবে উচ্ছেদের পর ফের দখলে নিয়ে বসে পড়েন দোকানিরা।
আবুল বাসার নামে এক স্থানীয় বাসিন্দা বলেন, এইসব দোকানের কারণে রাস্তাটি সবসময় বন্ধ থাকে। শুধু তাই নয়, বাজারের বিভিন্ন দোকানের বর্জ্য ও ময়লা আবর্জনা ফেলার কারণে ওই পাশের নালাগুলো বন্ধ হয়ে পড়ে। যার কারণে একটু বৃষ্টি হলেই এখানে হাঁটু পরিমাণ পানি ওঠে যায়। স্থায়ী কোন পদক্ষেপ না নেওয়ার কারণে এমন পরিস্থিতি। স্থানীয় কাউন্সিলর যদি এই বিষয়ে কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করে তাহলে আমাদের জন্য ভাল হয়।
এসব বিষয়ে জানতে ২৩নং উত্তর পাঠানটুলী ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোহাম্মদ জাবেদ’র মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তাঁকে পাওয়া যায়নি।

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 436 People

সম্পর্কিত পোস্ট