চট্টগ্রাম বুধবার, ২০ অক্টোবর, ২০২১

সর্বশেষ:

৩০ জুন, ২০১৯ | ১:৫৪ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

কর্মশালায় সিভিল সার্জন

মানসিক অসুস্থদের টাকার চেয়ে ভালোবাসার দরকার বেশি

পকেটের অর্থ দিয়ে নয়, মনের অর্থ দিয়েই মানসিক অসুস্থ ব্যক্তিদের জন্য কাজ করতে হবে। মানসিক অসুস্থ ব্যক্তিদের অতিমাত্রায় ভালোবাসা ও মানসিক সহযোগিতা দরকার। পাশাপাশি সঠিক সময়ে চিকিৎসার ব্যবস্থা করতে হবে। সিডিডি ও সিবিএম এর সহযোগিতায় যুগান্তর সমাজ উন্নয়ন সংস্থা বাস্তবায়িত প্রমোশন অফ হিউম্যান রাইটস্ অফ পারসন উইথ ডিজএ্যাবিলিটি ইন বাংলাদেশ (পিএইচআরপিবিডি) প্রকল্পের আওতায় মানসিক অসুস্থতা বিষয়ক কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ আজিজুর রহমান সিদ্দিকী এ কথা বলেন।
গতকাল সকাল ১১টায় সিভিল সার্জন কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে মানসিক অসুস্থতা বিষয়ক কর্মশালাটি অনুষ্ঠিত হয়। জেএসইউএস নির্বাহী পরিচালক ইয়াসমীন পারভীনের সভাপতিত্বে ও জেএসইউএস পরিচালক কবি ও প্রাবন্ধিক সাঈদুল আরেফীনের সঞ্চালনায় কর্মশালায় প্রধান অতিথি ছিলেন ডা. মোহাম্মদ আজিজুর রহমান সিদ্দিকী। বিশেষ অতিথি ছিলেন সমাজসেবা কার্যালয়-১ এর সমাজসেবা কর্মকর্তা যোবায়ের আলম, চমেক প্রশাসনিক কর্মকর্তা প্রণব কুমার হাওলাদার ও দৈনিক আজাদীর সহকারী সম্পাদক কাশেম শাহ্।
প্রধান অতিথি বলেন, মানসিক স্বাস্থ্য নিয়ে কাজ করার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ জেএসইউএস কে। মানসিক অসুস্থতা নিয়ে বড় কাজ করার জন্য এটি একটি দ্বার উন্মোচন হল। আগামী জুলাই মাস থেকেই মানসিক স্বাস্থ্য নিয়ে যে কোন কাজে সর্বাত্মক সহযোগিতা করবো। তিনি বলেন, মানসিক অসুস্থতা নিয়ে ডাক্তার কম। কিন্তু তারপরও আমাদের সামনে এগিয়ে যেতে হবে। কর্মশালার শুরুতে মানসিক অসুস্থতার প্রাসঙ্গিক প্রেক্ষাপট ও ধারণাপত্র তুলে ধরেন জেএসইউএস মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক বিশেষজ্ঞ পরামর্শক ডা. সুরজিত রায় চৌধুরী ও সংস্থার প্রোগ্রাম ম্যানেজার (সামাজিক উন্নয়ন কর্মসূচি) মো. আরিফুর রহমান। উপস্থিত মানসিক অসুস্থ ব্যক্তিদের অভিভাবকদের গুরুত্বপূর্ণ মতামত শেষে মুক্ত আলোচনায় মানসিক রোগের হাল অবস্থা সম্পর্কে মতামত তুলে ধরেন আলোর পাতা সম্পাদক এমরান চৌধুরী, সিডিসির নির্বাহী পরিচালক লুৎফুন্নেসা রূপসা, ক্লিনিক্যাল সাইকোলজিস্ট মেহজারীন বিনতে গাফফার, এইউডিসির ফিন্যান্স সেক্রেটারি জাহান আরা বেগম হেনা, সংশপ্তকের প্রোগ্রাম ম্যানেজার জয়নাব বেগম চৌধুরী মিতু, প্রধান শিক্ষক রিংকু ভট্টাচার্য, শিশুসাহিত্যিক রমজান আলী মামুন, এবি সিদ্দিক টিটো, এপেক্স বডি সদস্য ফজলুল আমীন, ডাপার প্রধান উপদেষ্টা কামাল উদ্দিন।
অনুষ্ঠানে সমাজসেবা কর্মকর্তা বলেন, সমাজসেবা কার্যালয় প্রতিবন্ধিতা ইস্যুতে সর্ববৃহৎভাবে কাজ করে আসছে। অনুদান নির্ভর প্রতিষ্ঠানের টেকসই উন্নয়নের জন্য সব সময় তাদের পাশে থেকে সরাসরি কাজ করে যাচ্ছে। সেই সাথে সরকারের এসডিজি অর্জনের লক্ষ্যেও এক সাথে সমাজের সবার সাথে কাজ করছি আমরা। বিশেষজ্ঞ ডা. সুরজিত রায় বলেন, মানসিক রোগ নিয়ে ডাক্তারদের কিছুই করার থাকে না। নীতিনির্ধারকসহ সকলের সহযোগিতা দরকার। সমাজে ৫০-৬০% ই মানসিক রোগী জন্ম হয় বংশগত কারনে। বাকি ৩০% লোকে ১ জন করে মানসিক রোগী। সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন প্রকল্পের সিডিআরপি কল্লোল কান্তি দাশ, সিএম মো. রুবেল, এপেক্সবডির সভাপতি মো মোস্তাকিমুর রহমান ও সেক্রেটারি শিলা দত্ত।

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 319 People

সম্পর্কিত পোস্ট