চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ১১ মে, ২০২১

১১ এপ্রিল, ২০২১ | ৯:৩৬ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

‘ব্যাংক কর্মকর্তা আবদুল মোরশেদকে আত্মহত্যায় বাধ্য করা হয়েছে’

পাওনা টাকা আদায়ের নামে ক্রমাগত মানসিক চাপ দিয়ে ব্যাংক কর্মকর্তা আবদুল মোরশেদ চৌধুরীকে আত্মহত্যায় বাধ্য করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন তার স্ত্রী ইশরাত জাহান চৌধুরী। রবিবার (১১ এপ্রিল) দুপুরে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এই অবিযোগ করেন তিনি।

এসময় ইশরাত বলেন, ‘ আমার দৃষ্টিতে এটা একটা মার্ডার। ফোর্স ডেথ। আমি আমার স্বামীর আত্মহননের নেপথ্যে জড়িতদের বিচার চাই।’কারণ পাওনা পরিশোধের পরও বাড়তি টাকার আশায় রাজনৈতিক ও প্রশাসনিক প্রভাবশালীদের মাধ্যমে মোরশেদ ও তার স্ত্রীকে ক্রমাগত নানামুখী চাপ দিয়েছেন ব্যবসায়িক অংশীদাররা। এই চাপ সহ্য করতে না পেরে চিরকূট লিখে পৃথিবী থেকে বিদায় নিয়েছেন মোরশেদ।

গত ৭ এপ্রিল নগরীর পাঁচলাইশ থানার হিলভিউ আবাসিক এলাকায় নিজ বাসায় আত্মহত্যা করেন একটি বেসরকারি ব্যাংকের ব্যবস্থাপক আবদুল মোরশেদ চৌধুরী। এ ঘটনায় ইশরাত বাদি হয়ে পাঁচলাইশ থানায় মামলা দায়ের করেন। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন আবদুল মোরশেদের মা নুরনাহার বেগম, বড় ভাই আবদুল আরশাদ চৌধুরী ও ১২ বছরের মেয়ে মোজাশ্বেরা ।

সংবাদ সম্মেলনে ইশরাত অভিযোগ করেন, ফুফাতো ভাই জাবেদ ইকবাল চৌধুরী, পারভেজ ইকবাল চৌধুরী ও পাঁচলাইশের সৈয়দ সাকিব নাঈম উদ্দীনের কাছে থেকে ২০১১ থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত ব্যবসাসূত্রে ২৫ কোটি টাকা নেন মোরশেদ। ২০১৮ সালের লভ্যাংশসহ তাদের পরিশোধ করা হয় ৩৮ কোটি টাকা। এরপর তারা আরও টাকা দাবি করতে থাকে। আত্মহত্যার আগেরদিন কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতা রাসেল পরিচয়ে একটি নম্বর থেকে হুমকি দেওয়া হয় বলে অভিযোগ করেন ইশরাত।

পূর্বকোণ / আরআর/পারভেজ

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 1202 People

সম্পর্কিত পোস্ট