চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ১১ মে, ২০২১

সর্বশেষ:

১১ এপ্রিল, ২০২১ | ২:০০ অপরাহ্ণ

অনলাইন ডেস্ক

লকডাউন জরিপ: লকডাউন যেন নামেই না হয়

কঠোর বিধিনিষেধসহ আগামী বুধবার থেকে সাতদিনের জন্য সারাদেশে সার্বাত্মক লকডাউন দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ ও প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে এই মুহূর্তে আর কোনও উপায় না দেখে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হচ্ছে। এ সময় সরকারের দেওয়া বিধিনিষেধ কঠোরভাবে মানতে হবে। তবে কাঙ্ক্ষিত ফল পাওয়া না গেলে লকডাউনের সময়সীমা বাড়ানো হতে পারে। এমন ইঙ্গিত পাওয়া গেছে সরকারের ওপরমহল থেকে। অন্যদিকে, মানুষের জীবন বাঁচাতে কঠোর পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলে এর আগে বলেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

কঠোর লকডাউনের সিদ্ধান্ত কিভাবে দেখছেন জনগণ? দৈনিক পূর্বকোণের ফেসবুক পেজে এ সংক্রান্ত জনমতে অধিকাংশ মানুষ লকডাউনের পক্ষেই মতামত দিয়েছেন। তবে তারা শ্রমজীবী ও দুস্থ মানুষের জন্য আহারের ব্যবস্থা নিশ্চিত করে তারপর লকডাউন দেয়ার পক্ষে মত দিয়েছেন। পাঠকের কিছু মতামত নিচে তুলে ধরা হলো।

আল ওমায়ের নামের এক তরুণ লিখেছেন, কঠোর লকডাউন শুধু নামে নয় কাজে হতে হবে। দরকার হলে সেনা মোতায়েন করা হোক। তারপরেও কঠোর থাকতে হবে। গতবারের মত তামাশা হলে কোনো কাজ হবে না। বরং আবারো সংক্রমণ বাড়বে, লকডাউন আবারো হাসির খোরাক হবে।

যাদিদ হোসাইন নামের একজন পাঠক লিখেছেন, জীবন ও জীবিকার ব্যবস্থা সুনিশ্চিত করতে না পারলে মানুষ শুধু করোনা কেন বন্দুকের গুলির সামনে যেতেও ভয় পাবে না। কারণ ক্ষিদার জ্বালা বড় জ্বালা। যার আছে সেই বুঝে।

মোহাম্মদ সেলিম নামের অন্য এক পাঠক লিখেছেন, সরকার যতদিন কঠোর লকডাউন দেওয়ার কথা মনে মনে ভাবছেন ততোদিনের খাবার নিম্নবিত্তদের ঘরে পৌঁছানো নিশ্চিত করে তারপর লকডাউন দিলে কোনো সমস্যা নাই।

সালেক যাবির নামের একজন মন্তব্য করেছেন, লকডাউনকে পূর্ণ সমর্থন করছি। তবে দেশের শ্রমজীবী মানুষের কথা যথাযথ কর্তৃপক্ষের ভাবা উচিত বলে মনে করি।

পূর্বকোণ/এএ

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 266 People

সম্পর্কিত পোস্ট