চট্টগ্রাম সোমবার, ১০ মে, ২০২১

১১ এপ্রিল, ২০২১ | ১২:০২ অপরাহ্ণ

ইফতেখারুল ইসলাম 

লকডাউনের খবরে ক্রেতার ঢল: চাল-ছোলায় তেজীভাব

রমজানের শুরু থেকেই কঠোর লকডাউনের খবরে ক্রেতারা বাজারে হুমড়ি খেয়ে পড়েছেন। আর তাই ক্রেতার  আধিক্যের প্রভাব পড়েছে ভোগ্যপণ্যের বাজারে। বিশেষ করে চাল এবং ছোলার দাম বস্তা প্রতি বেড়ে গেছে ৫০ থেকে ১০০ টাকা।

ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন, প্রথমে লকডাউন ছিল ঢিলেঢালা। এখন শুনছে কড়া লকডাউন হবে। তাই ক্রেতারা বেশি করে কিনে নিয়ে যাচ্ছে। একইসাথে সব ক্রেতা হুমড়ি খেয়ে পড়লে যা হওয়ার তাই হয়েছে। দাম বেড়ে গেছে। তবে এই বৃদ্ধি সাময়িক উল্লেখ করে বলেন, ক্রেতার চাপ কমে গেলেই দাম পড়ে যাবে।

চট্টগ্রাম চাল ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক ওমর আজম বলেন, বাজারে ভোগ্যপণ্যের কোন সংকট নেই। কোন কোন পণ্য প্রয়োজনের চেয়ে বেশি মজুদ আছে। কিন্তু আসন্ন রমজানে কঠোর লকডাউন আসতে পারে এমন খবর চাউর হওয়ার পর ক্রেতারা বাজারে হুমড়ি খেয়ে পড়েছে।

প্রায় সব ধরনের চালের দাম বেড়েছে উল্লেখ করে বলেন, সবচেয়ে বেশি প্রভাব পড়েছে নাজিরশাইল চালের উপর। মাঝারি মানের এই চাল মধ্যবিত্তদের পছন্দের। কারণ দাম খুব বেশিও নয়, আবার কমও নয়। দুই দিন আগেও এই চাল বিক্রি হয়েছে কেজি ৫৩ থেকে ৫৪ টাকায়। গতকাল বিক্রি হয়েছে ৫৬ থেকে ৫৭ টাকায়। চালের প্রায় প্রতিটি আইটেমে কেজি প্রতি দুই থেকে তিন টাকা বেড়ে গেছে। তবে বাজারে দেশি বেতি চাল ২৮ এবং ২৯ আসছে। এই নতুন চাল প্রতি বস্তা (৫০ কেজি) বিক্রি হচ্ছে ২২০০ টাকায়। অর্থাৎ কেজি ৪৪ টাকায়।

পাহাড়তলী বণিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক এস এম নিজাম উদ্দিন পূর্বকোণকে বলেন, লকডাউন আবার খুলে দেয়া এবং রমজানে কঠোর লকডাউন দেয়ার আলোচনা বাজারকে অস্থির করে তুলেছে। সাধারণ মানুষ দেদারছে পণ্য কিনছে। চালের দাম বস্তাপ্রতি ১০০ থেকে ১৫০ টাকা পর্যন্ত বেড়ে গেছে।

খাতুনগঞ্জের ব্যবসায়ী আবদুর রাজ্জাক পূর্বকোণকে জানান, হঠাৎ করে ক্রেতার চাপ বেড়ে যাওয়ায় ছোলার দাম বস্তাপ্রতি ৫০ থেকে ১০০ টাকা বেড়ে গেছে। তবে বাড়তি দাম স্থির থাকবে না। ক্রেতার চাপ কমে গেলে দামও কমে যাবে। কারণ পণ্যের কোন সংকট নেই। গতকাল ২০৫০ টাকার বস্তা (৫০ কেজি) ছোলা বিক্রি হয়েছে ২১০০ থেকে ২১৫০ টাকায়।

পূর্বকোণ/এএ

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 211 People

সম্পর্কিত পোস্ট