চট্টগ্রাম বুধবার, ১৪ এপ্রিল, ২০২১

সর্বশেষ:

৮ এপ্রিল, ২০২১ | ১২:০৯ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক 

সড়কে গণপরিবহন বেশি, যাত্রী কম

সড়কে এলোমেলোভাবে দাঁড়িয়ে আছে ৮-১০টি গণপরিবহন। দীর্ঘ সময় অপেক্ষার পরেও যাত্রী না পেয়ে ফাঁকা আসন নিয়েই গন্তব্যে ছুটছেন কোনো কোনো গণপরিবহনের চালক। নগরীর স্টেশন রোড এলাকার বিরল এই দৃশ্য গতকাল বুধবারের। এদিন বিকেল ৪টার দিকে স্টেশন রোড এলাকা ঘুরে গণপরিবহনে যাত্রী খরার বিরল এই দৃশ্য দেখা গেছে।

শুধু স্টেশন রোড বা নিউমার্কেট এলাকা নয়- গতকাল বুধবার সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত গণপরিবহনে যাত্রী খরার দৃশ্য দেখা গেছে টাইগার পাস, লালখান বাজার, জিইসি মোড়, দুই নম্বর গেট, মুরাদপুর, চকবাজারসহ নগরীর বিভিন্ন রুটে। লকডাউনে স্বাভাবিক সময়ের চেয়ে সড়কে যাত্রী কম থাকায় গণপরিবহনে এই যাত্রী সংকট দেখা দেয় বলে পরিবহন সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন।

লকডাউনেও গণপরিবহন চলবে- আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল

কাদেরের এই ঘোষণায় গত মঙ্গলবার সন্ধ্যা থেকে পরিবহন মালিক ও শ্রমিকদের মধ্যে স্বস্তি এলেও যাত্রী খরায় গতকাল সকাল থেকে তাদের কপালে ফের চিন্তার ভাঁজ পড়ে। তবে দুই দিনের তীব্র ভোগান্তি শেষে গতকাল বুধবার ‘সুখকর’ অফিস যাত্রার সুযোগ পেয়ে হাসিমুখই দেখা গেছে যাত্রীদের। বিকেল ৫টার দিকে দুই নম্বর গেট এলাকায় কথা হয় একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা জামাল উদ্দিনের সঙ্গে। তিনি দৈনিক পূর্বকোণকে বলেন, অফিস, কারখানা খোলা রেখে গণপরিবহন বন্ধ রাখা কোনো ভালো সিদ্ধান্ত ছিলো না। শেষ পর্যন্ত গণপরিবহন চলাচলের অনুমতি দেওয়ায় সরকারকে ধন্যবাদ।  আজ (গতকাল বুধবার) ভোগান্তি ছাড়াই অফিসে যাতায়াত করেছি।

এদিকে সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত গণপরিবহনে যাত্রী সংকট দেখা গেলেও সন্ধ্যার আগে ফের গণপরিবহন সংকট দেখা দেয়। অধিকাংশ গণপরিবহন ইপিজেড এলাকার বিভিন্ন কারখানার শ্রমিক পরিবহনে ব্যবহৃত হওয়ায় এই সংকট দেখা দেয়। এতে পতেঙ্গা, বন্দর ও ইপিজেড এলাকা থেকে বিভিন্ন এলাকায় যাতায়াতকারী মানুষেরা ভোগান্তিতে পড়েন।

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ কমাতে গত রবিবার নির্দেশনা জারি করে গণপরিবহন চলাচল বন্ধসহ নানা বিধিনিষেধ দিয়ে সোমবার থেকে ৭ দিনের লকডাউন ঘোষণা করে সরকার। তবে অফিস, কারখানা খোলা রেখে লকডাউনে গণপরিবহন বন্ধ করায় সমালোচনা শুরু হয়। এরমধ্যেই গতকাল বুধবার থেকে শর্ত সাপেক্ষে সিটি করপোরেশন এলাকায় গণপরিবহন চলাচলের অনুমতি দেওয়া হয়।

পূর্বকোণ/এএ

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 217 People

সম্পর্কিত পোস্ট