চট্টগ্রাম শুক্রবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী, ২০২১

২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ | ২:০৭ অপরাহ্ণ

অনলাইন ডেস্ক

হালদা নদীর পাড়ে হবে বঙ্গবন্ধু ম্যুরাল  

বাংলাদেশের একমাত্র প্রাকৃতিক মৎস্য প্রজনন কেন্দ্র হালদার পাড়ে রাউজান সীমান্ত অংশে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল তৈরির নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। আর এ ম্যুরাল উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এর আগে গত বছরের ২১ ডিসেম্বর গেজেট প্রকাশের মাধ্যমে এ নদীকে বঙ্গবন্ধু মৎস্য হেরিটেজ ঘোষণা করে সরকার।

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয় জাতির জনকের ম্যুরালটি তৈরির ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিবে। ইতোমধ্যে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসকের নেতৃত্বে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। যেখানে সদস্য হিসেবে আছেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণিবিদ্যা বিভাগের শিক্ষক ও হালদা গবেষক প্রফেসর ড. মঞ্জুরুল কিবরিয়া, হাটহাজারী ও রাউজানের নির্বাহী কর্মকর্তা, জেলা মৎস্য কর্মকর্তা, পানি উন্নয়ন বোর্ডের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী।

ড. মঞ্জুরুল কিবরিয়া বলেন, হালদা নদীকে বঙ্গবন্ধু মৎস্য হেরিটেজ ঘোষণা করার জন্য দীর্ঘ ২০ বছর ধরে দাবি করে আসছি আমরা। বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এটিকে বঙ্গবন্ধু মৎস্য হেরিটেজ ঘোষণা করার মাধ্যমে হালদা নদী তার ঐতিহ্যে ফিরে পাবে।

বাংলাদেশ মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউট সূত্র জানায়, চট্টগ্রামে হালদা নদী এশিয়া মহাদেশের একমাত্র প্রাকৃতিক মৎস্য প্রজনন ক্ষেত্র। খাগড়াছড়ির পাতাছড়া থেকে নেমে আসা একশ ছয় কিলোমিটার দীর্ঘ এ নদীতে প্রাকৃতিকভাবে চার প্রজাতির মা মাছ ডিম ছাড়ে। এই নদী থেকেই দৈনিক ১৮ কোটি লিটার পানিও সরবরাহ করে চট্টগ্রাম ওয়াসা। প্রতিবছর মা মাছ এখানে অবাধে রেণু (ডিম) ফোটাতে নিরাপদ স্থান হিসেবে বেছে নেয়। প্রাকৃতিকভাবে মা-মাছ ডিম ছাড়ে বলে দুই পাড়ের মানুষকে সমৃদ্ধ করছে এ নদী। জাতীয় অর্থনীতিতে এর অবদান ৮০০ কোটি টাকা। ফলে মৎস্য ও হালদা নদীপ্রেমিরা ‘হালদা নদী রক্ষা কমিটি’র ব্যানারে নদীটিকে অভয়াশ্রমসহ জাতীয় ঐতিহ্য ঘোষণার দাবি জানিয়ে আসছিল।

জানা গেছে, হালদা নদীর মদুনাঘাট থেকে সর্তার ঘাট পর্যন্ত অংশে সরকারি জায়গায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরাল স্থাপন করা হবে। এ ব্যাপারে হাটহাজারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রুহুল আমিন বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরালটি কি রকম হবে সে বিষয়ে এখনো চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়নি। তবে হালদার পাড়ের যে পাশে রাউজান অংশ, সেখানে ম্যুরালটি হবে বলে নীতিগত সিদ্ধান্ত হয়েছে। হালদা নদীকে বঙ্গবন্ধু মৎস্য হেরিটেজ ঘোষণা করা হয়েছে। এতে এই নদীটা বিশেষ মর্যাদা পাবে। পাশাপাশি হালদা নদী আরও বেশি সুরক্ষিত থাকবে।  

পূর্বকোণ/পিআর

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 229 People

সম্পর্কিত পোস্ট