চট্টগ্রাম সোমবার, ০১ মার্চ, ২০২১

১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ | ২:৩০ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক 

পৌর নির্বাচন: উৎসব-আতঙ্কের ভোট কাল

চতুর্থ ধাপে অনুষ্ঠেয় নির্বাচনের প্রচার-প্রচারণা শেষ হয়েছে গতকাল মধ্য রাতে। আগামীকাল রবিবার অনুষ্ঠিত হবে ভোটগ্রহণ। নির্বাচনের সকল প্রস্তুতি নিয়েছে নির্বাচন কমিশন। আজ দুপুর থেকে কেন্দ্রে কেন্দ্রে পৌঁছে যাবে ভোটগ্রহণ সামগ্রী। সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে ভোটগ্রহণ করা হবে।

এদিকে, গতকাল প্রচারণার শেষদিনে প্রচারণায় ব্যস্ত ছিলেন প্রার্থীরা। শেষদিনে আচরণবিধি লঙ্ঘন করে প্রচারণা শেষ করেছেন মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীরা। বাদ্য-বাজনা বাজিয়ে বড় শোভাযাত্রা হয়েছে বিভিন্ন এলাকায়। অথচ নির্বাচনী আইনে শোভাযাত্রা ও বাদ্য-বাজনার উপর নিষেধাজ্ঞা রয়েছে।

ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী কাল জেলার চন্দনাইশ, পটিয়া ও সাতকানিয়া উপজেলায় পৌর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। তিন পৌরসভার মধ্যে চন্দনাইশে প্রচার-প্রচারণায় সংঘাত-সংঘর্ষ ও সহিংসতা লেগেই ছিল। গতকাল শেষদিনেও একাধিক স্থানে সহিংসতার ঘটনা ঘটেছে। গত বৃহস্পতিবার পৌরসভার চৌধুরী পাড়া থেকে অস্ত্র ও গুলিসহ মাহমুদুর রহমান নয়ন নামে একব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তার বিরুদ্ধে পুলিশের উপর গুলিবর্ষণসহ সাতটি মামলা রয়েছে বলেন জানান চন্দনাইশ থানার ওসি নাসির উদ্দিন সরকার। অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার ও সংঘাত-সহিংসতা নিয়ে শঙ্কায় রয়েছেন ভোটার ও প্রার্থীরা।

চন্দনাইশ পৌরসভায় মেয়র পদে লড়ছেন আওয়ামী লীগ, বিএনপি, এলডিপি মনোনীত প্রার্থীসহ ৪ জন। সংরক্ষিত তিন ওয়ার্ডে ৯ জন ও সাধারণ ওয়ার্ডে ৪৭ জন কাউন্সিলর প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

সাতকানিয়া পৌরসভায় মেয়র পদে একক প্রার্থী হিসেবে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মো. জোবায়ের হোসেন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হতে চলেছেন। মেয়র পদে নির্বাচন না হলেও সংরক্ষিত ও সাধারণ ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে লড়ছেন ৮ জন। সাধারণ ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে আছেন ৪৫ জন প্রার্থী।

পটিয়ায় মেয়র ও কাউন্সিলর পদে ৪৬ জন প্রার্থী রয়েছেন। এরমধ্যে মেয়র পদে চারজন, সংরক্ষিত ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে নয়জন ও সাধারণ ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে ৩৩ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

পূর্বকোণ/এএ

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 175 People

সম্পর্কিত পোস্ট