চট্টগ্রাম বুধবার, ০৩ মার্চ, ২০২১

৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ | ৬:৫৫ অপরাহ্ণ

সন্দ্বীপ সংবাদদাতা

ফসলি জমিতে নাশকতা: বাধা দেয়ায় যুবককে পিটিয়ে হত্যা সন্দ্বীপে

চট্টগ্রামের সন্দ্বীপে জমিতে ট্রাক্টর চালিয়ে ফসল নষ্ট করার সময় বাধা দেয়ায় শিহাব উদ্দিন মিশু (২২) নামে এক যুবককে হত্যা করা হয়েছে। উপজেলার মগধরা ইউনিয়নের ১ নম্বর বেড়িবাঁধ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। পেশায় ট্রাকচালক মিশু মগধরা ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডের মো. শাহাবুদ্দিনের ছেলে। বৃহস্পতিবার (৪ ফেব্রুয়ারি) রাতে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে চিকিৎসারত অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

শিহাবের মামা বোরহান উদ্দিন জানান, স্থানীয় মোস্তফা ও তার ছেলে শামীম আমার ভাগ্নে শিহাবদের ফসলের জমির উপর দিয়ে নিয়মিত মাটিবোঝাই গাড়ি চালিয়ে ফসল নষ্ট করত। তারা স্থানীয়ভাবে প্রভাবশালী হওয়ায় শিহাবদের পরিবারের পক্ষ থেকে কয়েকবার নিষেধ করলেও তা মানত না। উল্টো শিহাবদের পরিবারের সদস্যদের হুমকি দিত। বৃহস্পতিবার বিকেলে শিহাবদের জমির উপর দিয়ে মোস্তফা ও তার ছেলে শামীম ট্রাক্টর নেয়ার সময় শিহাব ও তার পিতা শাহাবুদ্দিন বাধা দেয়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে মোস্তফা-শামীম ও তাদের লোকজন নিয়ে বেড়িবাঁধ এলাকায় শিহাবদের দোকানে এসে তাকে লাঠি দিয়ে বেধড়ক মারধর করে। শিহাব জ্ঞান হারিয়ে অচেতন হয়ে গেলে শামীম ও তার লোকজন তাকে ফেলে রেখে যায়। পরে লোকজন জড়ো হয়ে শিহাবকে মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যায়। এ সময় শারীরিক অবস্থা দেখে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য চমেক হাসপাতালে পাঠায়। বৃহস্পতিবার রাতে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মিশুর মৃত্যু হয়।

বোরহান আরও জানান, মিশু পেশায় একজন ট্রাক চালক। তার ৮ মাস বয়সী একটি ছেলে সন্তান রয়েছে। মিশুকে হারিয়ে তার পরিবারের শোকের মাতম চলছে। তার মৃত্যুর বিচার দাবি করে আজ শুক্রবার সকাল ১১টায় উপজেলার বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ মিছিল করেছেন সন্দ্বীপ ট্রাকচালক সমিতির সদস্যরা। এ সময় তারা কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ সড়কে টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে।

সন্দ্বীপ থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বশির আহাম্মদ খান জানান, মিশু হত্যার ঘটনায় তার পিতা শাহাবুদ্দিন বাদি হয়ে ১২ জনকে আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। ঘটনায় জড়িত চার আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গ্রেপ্তারকৃতরা হল- আকরাম, সাইফুল, সেন্টু ও মুনির সওদাগর। তবে প্রধান আসামি মোস্তফা ও শামীম এ ঘটনার পর থেকে পলাতক রয়েছে। তাদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে।

পূর্বকোণ/নরোত্তম-আরপি

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 939 People

সম্পর্কিত পোস্ট