চট্টগ্রাম বুধবার, ০৩ মার্চ, ২০২১

সর্বশেষ:

৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ | ২:৪৭ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

পটিয়া ও দোহাজারী স্টেশন: কাল এক ট্রেনের দু’বার উদ্বোধন !

দক্ষিণ চট্টগ্রামের যাত্রীদের জন্য সুখবর দিয়েছে বাংলাদেশ রেল কর্তৃপক্ষ। চট্টগ্রাম থেকে দোহাজারীর রেল যাত্রীরা এতদিন মান্ধাতার আমলের একটি লোকাল ট্রেনে যাতায়াত করলেও এখন পেতে যাচ্ছে নতুন একটি ডেমু ট্রেন। তবে ট্রেনটি কেবল বিকেলে চলবে দোহাজারীর যাত্রীদের জন্য। কারণ সকালে ট্রেনটি যাতায়াত করবে পটিয়া পর্যন্ত। তাই দুই স্টেশনেই আয়োজন করা হচ্ছে ট্রেনটির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের। দু’বার উদ্বোধনের এ আয়োজনে প্রধান অতিথি হিসেবে যোগ দিতে আগামীকাল শনিবার চট্টগ্রাম আসছেন রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন। মন্ত্রীর সফরসূচি অনুযায়ী, কাল শনিবার সকাল ৭টা ৪৫ মিনিটে বিমানযোগে চট্টগ্রাম শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে পৌঁছাবেন তিনি। চট্টগ্রামে এসে সার্কিট হাউজে উঠবেন মন্ত্রী। পরে সেখান থেকে সকাল সাড়ে ৯টায় সড়ক পথে যাত্রা করবেন দোহাজারী রেল স্টেশনের উদ্দেশ্যে। সেখানে সকাল ১১ টায় চট্টগ্রাম-দোহাজারী রুটে যুক্ত হতে যাওয়া ডেমু ট্রেনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে যোগদানশেষে সড়ক পথে ফিরবেন পটিয়া স্টেশনে। সেখানেও ডেমু ট্রেনটির দ্বিতীয় দফায় উদ্বোধন করবেন তিনি।

এদিকে, মন্ত্রী আসার আগেদুই স্টেশনে উদ্বোধন হতে ট্রায়াল রানও সেরে ফেলেছে ডেমু ট্রেনটি। গতকাল বৃহস্পতিবার এ ট্রায়াল রান সম্পন্ন করা হয়। রেলের পরিবহন সূত্র জানায়, ডেমুট্রেনটি সকালে চট্টগ্রাম-পটিয়া রুটে এবং বিকেলে চট্টগ্রাম-দোহাজারী রুটে যাতায়াত করবে। শনিবার রেলমন্ত্রী দুই স্টেশনেই এই ট্রেনটির উদ্বোধন করবেন। প্রথমে দোহাজারী স্টেশনে উদ্বোধন হয়ে এসে পটিয়া স্টেশনে দ্বিতীয় দফায় উদ্বোধন হবে ট্রেনটি। এজন্য ট্রায়াল রানও সম্পন্ন করা হয়েছে। ডেমু ট্রেনটির সময়সূচি পর্যালোচনা করেও দেখা গেছে একই ট্রেন দু’বার যাতায়াত করবে এই রুটে। ট্রেনটি চট্টগ্রাম থেকে ভোর সাড়ে ৫টায় পটিয়ার উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাবে। পটিয়ায় পৌঁছাবে সকাল ৬টা ৪০ মিনিটে। এরপর সকাল সাড়ে ৭ টায় পটিয়া ছেড়ে সকাল ৯ টা ৫ মিনিটে চট্টগ্রাম স্টেশনে পৌঁছাবে ট্রেনটি। দ্বিতীয় ট্রিপে বিকেল ৫ টায় চট্টগ্রাম থেকে দোহাজারীর উদ্দেশ্যে যাত্রা করবে ট্রেনটি। সেখানে সন্ধ্যায় সাড়ে ৭টায় পৌঁছে চট্টগ্রামের উদ্দেশ্যে যাত্রা করবে ৭টা ৪০ মিনিটে। চট্টগ্রামে এসে পৌঁছাবে রাত ১০ টা ৪০ মিনিটে।
এদিকে, একই রুটের একই ট্রেন দুই স্টেশনে উদ্বোধন করার বিষয়কে অপচয় বলে মন্তব্য করছেন সংশ্লিষ্টরা। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক রেলের এক কর্মকর্তা পূর্বকোণ বলেন, ‘একটি অনুষ্ঠানের জন্য খাবার, সাউন্ড সিস্টেম, ডেকোরেশন ছাড়াও আনুষঙ্গিক নানা প্রয়োজনে অনেক টাকা খরচ হয়। যেহেতু দোহাজারী রুটে পূর্বেও ট্রেন ছিল এবং নতুন ডেমু ট্রেনটি যেহেতু পটিয়া স্টেশনকে মাথায় রেখে সংযুক্ত করা হয়েছে সেহেতু শুধুমাত্র পটিয়া স্টেশনেই এর উদ্বোধনের আয়োজন করা যেত। তা না হলে, ট্রেনটি আরও অনেক স্টেশনে থামবে। তাই বলে সব স্টেশনে উদ্বোধন অনুষ্ঠান করবেন?’

পূর্বকোণ / আরআর

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 2119 People

সম্পর্কিত পোস্ট