চট্টগ্রাম শুক্রবার, ০৫ মার্চ, ২০২১

২৯ জানুয়ারি, ২০২১ | ২:০৪ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

অভিজ্ঞদের নিয়ে গড়তে চাই পরিকল্পিত নগরী

চট্টগ্রামকে পরিকল্পিত নগরী হিসেবে গড়ে তুলতে সবার মতামত নেবেন বলে জানিয়েছেন সিটি করপোরেশনের সদ্য নির্বাচিত মেয়র রেজাউল করিম চৌধুরী। মেয়র নির্বাচিত হওয়ার পর গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় রেজাউল করিম চৌধুরী দৈনিক পূর্বকোণ সাংবাদিকদের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎকালে এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘আমি ব্যক্তি উদ্যোগে প্রথমে চট্টগ্রামের সমস্যাগুলো চিহ্নিত করব। এরপর বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ ও অভিজ্ঞদের সঙ্গে নিয়ে এবং তাদের সাথে আলাপ আলোচনা করে সমস্যা সমাধানের উপায় বের করবো।’

সাক্ষাতকালে তিনি সাবেক সিটি মেয়র ও নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দীনসহ অন্যদের নিয়ে দি পূর্বকোণ লিমিটেডের চেয়ারম্যান জসিম উদ্দীন চৌধুরী ও সম্পাদক ডা. ম রমিজউদ্দিন চৌধুরীর সঙ্গে মতবিনিময় করেন।

দৈনিক পূর্বকোণ সেন্টারের ইউসুফ চৌধুরী হলে অনুষ্ঠিত এ মতবিনিময় সভায় রেজাউল করিম চৌধুরী বলেন, চট্টগ্রাম শহরটা শুধু মেয়রের নয়, এটিকে নিয়ে সবাইকে চিন্তা করতে হবে। চট্টগ্রামকে পরিকল্পিত নগরী হিসেবে গড়ে তুলতে হলে অভিজ্ঞদের মতামত প্রয়োজন। এতে করে পরিকল্পনাগুলো টেকসই এবং বাস্তবসম্মত হবে। এসব পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করা গেলে চট্টগ্রাম অনেক দূর এগিয়ে যাবে।

চট্টগ্রাম শহরের সমস্যাগুলো তুলে ধরতে সাংবাদিকদের আহ্বান জানান রেজাউল করিম চৌধুরী। তিনি বলেন, বিশেষ করে যারা প্রিন্ট মিডিয়ায় কর্মরত আছেন তাঁরা সমস্যাগুলো তুলে ধরার পাশাপাশি সমস্যা সমাধানেরও দিক-নির্দেশনাও দিতে পারেন। এতে আমরা অনেক ক্ষেত্রে সফল হবো। সম্মিলিতভাবে কাজ করলে সফলতা আসবে বলে মনে করেন মেয়র।

তিনি বলেন, ‘শুধু চট্টগ্রামের মেয়রই চট্টগ্রামের উন্নয়নে কাজ করবেন, এটা মাথায় রাখবেন না। নগরীর প্রতিটি নাগরিককে নগর উন্নয়নের চিন্তা করতে হবে। চট্টগ্রামের যে ইতিহাস আর ঐতিহ্য নিয়ে আমরা গর্ব করি তা বাস্তবে অনেক পিছিয়ে পড়েছে, এটি আমাদের জন্য দুর্ভাগ্য। তবে আমাদের এগিয়ে যেতে হবে।’

মেয়রের কাছে নগরবাসীর প্রত্যাশা আকাশচুম্বি উল্লেখ করে সাবেক সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেন, উন্নয়ন কর্মকা- পরিচালনার মতো আর্থিক সক্ষমতা এই মুহূর্তে সিটি করপোরেশনের নেই। বর্তমানে যেটুকু পৌরকর সংগ্রহ করা যায় তাতে শুধুমাত্র সিটি কর্পোরেশনের কর্মকর্তা কর্মচারীদের বেতন ভাতা দেওয়া যায়। এর বাইরে নগরীর উন্নয়ন কর্মকা- পরিচালনা করার মত আর্থিক সক্ষমতা সিটি কর্পোরেশনের নেই। এখন যেটুকু কাজ হচ্ছে তা হলো একমাত্র সরকারের আন্তরিক সদিচ্ছা ও সহযোগিতার কারণে। পূর্বকোণ কার্যালয়ে আসার জন্য নবনির্বাচিত মেয়র রেজাউল করিম চৌধুরী ও আওয়ামী লীগ নেতাদের ধন্যবাদ জানান দি পূর্বকোণ লিমিটেডের চেয়ারম্যান জসিম উদ্দীন চৌধুরী। তিনি মেয়রকে উদ্দেশ্য করে বলেন, ‘আপনি হচ্ছেন নগরপিতা। আর আমরা (পূর্বকোণ) নগরবাসীর মুখপাত্র। আমরা সেই নগরবাসীর নানা সমস্যার কথা লিখব। সেটি আপনাকে ইতিবাচকভাবে নিতে হবে। কারণ, আমাদের লেখালেখির কারণে আপনার কাজ করতে সুবিধা হবে, কর্মকর্তাদের কাজ করাতেও ভালো হবে।’

চট্টগ্রামের সমস্যাগুলো সরকারের কাছে যথাযথভাবে তুলে ধরতে সবার প্রতি আহ্বান জানান দৈনিক পূর্বকোণের সম্পাদক ডা. ম রমিজউদ্দিন চৌধুরী। তিনি বলেন, ‘এক্ষেত্রে সিটি করপোরেশনকে সর্বাত্মক সহায়তা করবে পূর্বকোণ। সবাই একযোগে কাজ করলে সরকারের কাছ থেকে চট্টগ্রামের স্বার্থসংশ্লিষ্ট প্রকল্প আদায় করে নেওয়া সম্ভব হবে।’

এ সময় উপস্থিত ছিলেন নগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি নঈম উদ্দিন চৌধুরী, এডভোকেট ইব্রাহিম হোসেন চৌধুরী, আলতাফ হোসেন চৌধুরী বাচ্চু, সাংগঠনিক সম্পাদক নোমান আল মাহমুদ ও শফিক আদনান, প্রচার সম্পাদক শফিকুল ইসলাম ফারুক, তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক চন্দন ধর, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক মশিউর রহমান চৌধুরী, শ্রমবিষয়ক সম্পাদক আবদুল আহাদ, মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক দেবাশীষ গুহ বুলবুল ও কাউন্সিলর মোরশেদ আলম।

পূর্বকোণ / আরআর

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 227 People

সম্পর্কিত পোস্ট