চট্টগ্রাম রবিবার, ০৭ মার্চ, ২০২১

সর্বশেষ:

২৮ জানুয়ারি, ২০২১ | ১:৩৯ অপরাহ্ণ

 নিজস্ব প্রতিবেদক

অগ্রাধিকার দিব ১০০ দিনের কর্মসূচিতে: রেজাউল

দায়িত্বভার গ্রহণ করার পর ১০০ দিনের কর্মসূচিতে অগ্রাধিকার দিবেন বলে জানিয়েছেন চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের নতুন মেয়র রেজাউল করিম চৌধুরী।

বৃহস্পতিবার (২৮ জানুয়ারি) বেলা ১২টায় নগরের বহদ্দারহাটে নিজের বাসার সামনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, নগরবাসী আমাকে ভোট দিয়ে জয়জযুক্ত করেছেন, আমার ওপর যে বিশ্বাস রেখে আমাকে ভোট দিয়েছেন, আমি চেষ্টা করবো আমার অঙ্গীকার শতভাগ পূরণ করতে।

তিনি বলেন, ‘নগরের সমস্যা তো অনেক। চট্টগ্রামকে পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন একটি নগরীতে পরিণত করা, মশা থেকে মোটামুটি মুক্ত করা- এসব কাজকে অগ্রাধিকার দেব।’

রেজাউল বলেন, জলাবদ্ধতা নিরসন, ১০০ দিনের অগ্রাধিকার কর্মসূচি, যানজট সমস্যা থেকে উত্তরণ, সড়কে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনা, নালা-নর্দমা, খাল-নদী দখলদার উচ্ছেদ ও বর্জ্য ব্যবস্থাপনার পাশাপাশি নগরীর সবচেয়ে বড় সংকট জলাবদ্ধতা নিরসনে চলমান মেগা প্রকল্পগুলো ঠিকমত বাস্তবায়নে সর্বোচ্চ মনোযোগ দেব।

রেজাউল বলেন, ‘কোনো প্রভাব, প্রতিপত্তি, লোভ, লালসা অতীতে যেমন আমাকে নীতি ও আদর্শ থেকে বিচ্যুত করতে পারেনি, ভবিষ্যতে মেয়রের চেয়ারে বসার পরও আমাকে কেউ এক ইঞ্চিও বিচ্যুত করাতে পারবে না।

তিনি বলেন, ‘রাজনীতি করতে গিয়ে প্রত্যেক মানুষের স্বপ্ন থাকে। স্বপ্ন না থাকলে কেউ এগুতে পারে না। আমারও স্বপ্ন ছিল, এ দেশের মানুষের জন্য কাজ করা, মানুষের স্বার্থে নিজেকে বিলিয়ে দেয়া। জননেত্রী শেখ হাসিনা আমাকে সেই সুযোগ দিয়েছেন, এজন্য প্রধানমন্ত্রীর প্রতি আমি কৃতজ্ঞ। আল্লাহ আমাকে মহান দায়িত্ব দিয়েছেন। এই দায়িত্ব যেন পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে পালন করতে পারি, সেজন্য দোয়া চাই।’

রেজাউল করিম বলেন, ‘চট্টগ্রামকে আমি পরিকল্পিতভাবে সাজাতে চাই। তবে এককভাবে নয়, সবাইকে নিয়ে। এককভাবে করলে ভুলত্রুটি থেকে যায়। চট্টগ্রামে অনেক জ্ঞানী-গুণি মানুষ আছেন, সাংবাদিক-বুদ্ধিজীবী, সাহিত্যিক, ডাক্তার, প্রকৌশলী, পরিকল্পনাবিদ আছেন। সকল শ্রেণী-পেশার মানুষকে সাথে নিয়ে, তাদের পরামর্শ নিয়ে, যে পরামর্শ টেকসই হবে, বাস্তবসম্মত হবে সেটাকে গ্রহণ করে চট্টগ্রামকে সাজাতে চাই।’

এর আগে গতকাল বুধবার অনুষ্ঠিত মেয়র পদের নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হয়ে ৩ লাখ ৬৯ হাজার ২৪৮ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন রেজাউল করিম। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির শাহাদাত হোসেন পেয়েছেন ৫২ হাজার ৪৮৯ ভোট। বুধবার দিবাগত রাত ১টা ৪০ মিনিটে নগরীর এম এ আজিজ স্টেডিয়ামে স্থাপিত নির্বাচন কমিশনের অস্থায়ী নিয়ন্ত্রণ কক্ষ থেকে এ ফলাফল ঘোষণা করেন রিটার্নিং কর্মকর্তা মুহাম্মদ হাসানুজ্জামান।

পূর্বকোণ/পিআর

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 921 People

সম্পর্কিত পোস্ট