চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী, ২০২১

সর্বশেষ:

২৭ জানুয়ারি, ২০২১ | ৭:২৩ অপরাহ্ণ

লামা সংবাদদাতা

লামায় দুটি ইটভাটা ধ্বংস, ৫ লাখ টাকা জরিমানা

লামায় দুটি ইটভাটা গুড়িয়ে দিল প্রশাসন, ৫ লাখ টাকা জরিমানা (প্রতিনিধির দেয়া)

পরিবেশ অধিদপ্তরের ছাড়পত্র ছাড়া ইট প্রস্তুত ও ভাটা নিয়ন্ত্রণ আইন অমান্য করে ভাটা পরিচালনা করায় বান্দরবানের লামায় দুটি ইটভাটা গুড়িয়ে দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ সময় ইটভাটা দুটির মালিককে ২ লাখ ৫০ হাজার টাকা করে ৫ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

আজ বুধবার (২৭ জানুয়ারি) উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রট মাহফুজা জেরিন এবং পরিবেশ অধিদপ্তর চট্টগ্রামের সহকারী পরিচালক শ্রীরুপ মজুমদারের নেতৃত্বে এই অভিযান পরিচালিত হয়। অভিযানে অধিদপ্তরের বান্দরবান কার্যালয়ের পরিদর্শক আব্দুস সালামসহ লামা থানা পুলিশ, র‌্যাব-১৫ ও লামা ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

গুড়িয়ে ফেলা ভাটাগুলো হল- চকরিয়া উপজেলার কৈইয়ারবিল এলাকার মোকতার মিয়াসহ যৌথ পরিচালিত উপজেলার ফাইতং ইউনিয়নের পাদুরছড়া এলাকার ফাইভজিএম ব্রিকস, চকরিয়া উপজেলার ছিকলঘাট এলাকার ফরিদ মিয়া পারিচালিত ফাইতং ফাদুরছড়া এলাকার এসডব্লিউবি ব্রিকস। এসময় ইটভাটা দুটির টিনের চিমনি ভেঙে ফেলে ও স্কেভেটর দিয়ে ভাটার কাঁচা-পাকা তৈরি ইট গুড়িয়ে দেয়া হয়। তাছাড়া পানি দিয়ে ইটভাটাগুলো নষ্ট করে দেয়া হয়।

পরিবেশ অধিদপ্তর চট্টগ্রাম কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক শ্রীরুপ মজুমদার বলেন, আদালতের নির্দেশে অবৈধ ইটভাটার বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে। পরিবেশ অধিদপ্তরের ছাড়পত্র ছাড়া ইটভাটাগুলোতে অভিযান পরিচালনা করা হবে।

সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রট মাহফুজা জেরিন বলেন, ভাটায় চিমনি ব্যবহার করে যারা ভাটার কার্যক্রম চালিয়ে আসছে তাদের বিরুদ্ধে এই অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে। যেসব ভাটায় স্থায়ী চিমনি ব্যবহার না করে হাওয়ার মাধ্যমে ইট তৈরির কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে তাদের জরিমানা করা হচ্ছে। ২০১২ সালের পর থেকে পরিবেশ দূষণকারী সনাতন পদ্ধতির ফিক্সড চিমনি দিয়ে ইটভাটা নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

পূর্বকোণ/রফিক-আরপি

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 270 People

সম্পর্কিত পোস্ট