চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ০৪ মার্চ, ২০২১

১৯ জানুয়ারি, ২০২১ | ১১:১৪ অপরাহ্ণ

ঈদগাঁও সংবাদদাতা

মা-মেয়েকে জবাই করে হত্যা ঈদগাঁওয়ে

কক্সবাজার সদরের ঈদগাঁও’তে সীমানা বিরোধের জেড়ে জোড়া খুনের ঘটনা ঘটেছে। নিহতরা সম্পর্কে মা-মেয়ে।

 

মঙ্গলবার (১৯ জানুয়ারি) রাত সাড়ে ৭ টায় ইসলামাবাদ ইউনিয়নের চরপাড়া (উত্তর লরাবাগ) গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ নিয়ে এক মাসেরও কম সময়ের মধ্যে ওই ইউনিয়নে ৩ খুনের ঘটনা ঘটল।

 

নিহতরা হল- গৃহিনী রাশেদা বেগম (৪০) এবং তাঁর কন্যা জান্নাতুল ফেরদাউস (১৩)। নিহতরা ওই এলাকার আজিজুল হকের স্ত্রী ও মেয়ে।

 

নৃশংস ও লোমহর্ষক ঘটনাটি ঘটিয়েছে নিহত জান্নাতুলের আপন চাচাত ভাই ও টমটম চালক আবুল কালাম (৩৫)। সে একই গ্রামের মৃত জাফর আলমের পুত্র।

 

স্থানীয় ইউপি সদস্য সাইফুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, আজ নিহতের স্বামী আজিজুল হক বিরোধীয় জমির সীমানায় ঘেরা দেন। আবুল কালাম সন্ধ্যায় বাড়ী এসে বিরোধীয় জায়গায় ঘেরা দেখতে পেয়ে উত্তেজিত হয়ে পড়েন। প্রতিপক্ষের লোকজনকে গালিগালাজ করতে করতে দা নিয়ে ঘেরা কাটতে থাকেন। আবুল কালামের গালিগালাজে রাশেদা ঘর থেকে বের হয়ে আবুল কালামকে বাধা দেয়ার চেষ্টাকালে আবুল কালাম তাকে মাটিতে ফেলে হাতে থাকা ধারালো দা দিয়ে জবাই করে দেন। মায়ের চিৎকার শুনে মেয়ে ঘর থেকে বের হলে আবুল কালাম একই কায়দায় জান্নাতুল ফেরদাউসকেও খুন করে ঘটনাস্থল ত্যাগ করে।

 

ঘটনার পরপরই ঈদগাঁও পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের আইসি মো. আবদুল হালিম একদল পুলিশ নিয়ে ঘটনাস্থলে রয়েছেন। তিনি জানান, খুনী আবুল কালামকে ধরতে পুরো এলাকায় তল্লাশী অভিযান শুরু করেছে পুলিশ। অচিরেই তাকে ধরা হবে। এ রিপোর্ট লিখা পর্যন্ত ইউপি চেয়ারম্যান নুর ছিদ্দিক ও ইউপি সদস্য সাইফুল ইসলাম ঘটনাস্থলে রয়েছেন। নিহতদের লাশ কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে রয়েছে। ঘটনায় ব্যবহৃত দা’টি পুলিশ জব্দ করেছে।

 

পূর্বকোণ/তারেক-মামুন

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 1204 People

সম্পর্কিত পোস্ট