চট্টগ্রাম সোমবার, ০৮ মার্চ, ২০২১

সর্বশেষ:

১৭ জানুয়ারি, ২০২১ | ২:২৪ অপরাহ্ণ

নরোত্তম বনিক, সন্দ্বীপ

সন্দ্বীপের নতুন মেয়র আওয়ামী লীগের মোক্তাদের মাওলা সেলিম

কয়েকটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা ছাড়া শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন হয়েছে সন্দ্বীপ পৌরসভা নির্বাচন। ১৬ জানুয়ারি সকাল ৮ টা থেকে বিকাল ৪ টা পর্যন্ত নিরবচ্ছিন্নভাবে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে বিপুল ভোটে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মোক্তাদের মাওলা সেলিম জয়লাভ করে বেসরকারিভাবে মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন।

সন্দ্বীপ পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মোক্তাদের মাওলা সেলিম  ১৭টি কেন্দ্রে তিনি পেয়েছেন ১৭ হাজার ৭১৬ ভোট। তার একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপি মনোনীত প্রার্থী মো. আবুল বশার পেয়েছেন ৭১১ ভোট।

পৌরসভার ৯ টি ওয়ার্ডে নির্বাচিত কাউন্সিলররা হলেন  ১ নম্বর ওয়ার্ডে উটপাখি প্রতীকে মো. আলাউদ্দীন বাবলু, ২ নং ওয়ার্ডে পাঞ্জাবি প্রতীকে মো. ইউসুফ প্রকাশ চৌধুরী, ৩ নং ওয়ার্ডে ডালিম প্রতীকে মহব্বত বাঙ্গালী, ৪ নং ওয়ার্ডে পাঞ্জাবি প্রতীকে দিদারুল আলম সওদাগর , ৫ নং ওয়ার্ডে উটপাখি প্রতীকে ওয়াহিদুল আলম পারভেজ, ৬নং ওয়ার্ডে উটপাখি প্রতীকে মো.আবু তাহের, ৭ নং ওয়ার্ডে  উটপাখি প্রতীকে শফিকুল মাওলা, ৮নং ওয়ার্ডে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় শাকিল উদ্দীন খোকন এবং ৯নং ওয়ার্ডে ডালিম প্রতীকে মোক্তাদের মাওলা ফয়সাল।

এছাড়াও সংরক্ষিত মহিলা আসনের ১, ২ ও ৩ নম্বর ওয়ার্ডে জবাফুল প্রতীকে পারভিন আক্তার, ৪,৫ ও ৬ নং ওয়ার্ডে আনারস প্রতীকে শামীমা আক্তার সুমি এবং ৭,৮, ৯নং ওয়ার্ডে আনারস প্রতীকে রাহেনা বেগম জয়লাভ করেছেন।

শনিবার সকাল থেকে কেন্দ্রগুলোতে ভোটারদের আনাগোনা ছিল চোখে পড়ার মতো। বেলা বাড়ার সাথে সাথে ভোটারের উপস্থিতি কমতে থাকে। সকাল সাড়ে দশটায় ৫ নং ওয়ার্ডের বাউরিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের বাইরে কয়েকটি ফাঁকা গুলি ছুড়ে আতঙ্কের সৃষ্টি করে। পুলিশসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর তাৎক্ষণিক হস্তক্ষেপে দ্রুত পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়। ৪নং ওয়ার্ডে পুলিশ অতিউৎসাহীদের ধাওয়া দিতে দেখা যায়। নির্বাচনকে ঘিরে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কঠোর অবস্থানে ছিল। যেকোনো ধরনের বিশৃঙ্খলা এড়াতে নয়জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও একজন জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট নির্বাচনী এলাকায় সার্বক্ষণিক দায়িত্ব পালন করেন। নির্বাচনকে ঘিরে পুলিশ ও কোস্টগার্ডের অতিরিক্ত সদস্য মোতায়েন ছিল।

আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মোক্তাদের মাওলা সেলিম সকাল ৮ টায় ৩নং ওয়ার্ড মোমেনা সেকান্দর প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোট প্রদান করেন। এসময় তিনি উপস্থিত সাংবাদিকদের বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনার সারাদেশের উন্নয়নের ধারাবাহিকতায় সন্দ্বীপ পৌরসভাকে সামিল করতে পৌরবাসী তাদের সেবক হিসাবে আমাকে পেতে চায়। ভোটের মাধ্যমে তারা আমাকে জয়যুক্ত করবেন বলে আমি বিশ্বাস রাখি।

বিএনপির প্রার্থী আবুল বশর সকাল ৮টা ১০ মিনিটে ৮নং ওয়ার্ডের খাদেমুল ইসলাম মাদ্রাসায় ভোট প্রদান করেন। এরপর তিনি বিভিন্ন কেন্দ্র পরিদর্শন করে তার বাড়িতে সংবাদ সম্মেলন করেন। সেখানে তিনি নির্বাচনী আচরণবিধি ভঙ্গ, বিএনপির সমর্থকদের এবং এজেন্টদের কেন্দ্রে যেতে বাধা প্রদানসহ বিভিন্ন অভিযোগ তোলেন।

অভিযোগের ভিত্তিতে মোক্তাদের মাওলা সেলিম সাংবাদিকদের বলেন, বিএনপির কাজ হলো মিথ্যাচার। বিএনপির প্রার্থী কেন্দ্রগুলো ঘুরে যখন নৌকার জোয়ার দেখেন তখনই তিনি এসব ভিত্তিহীন অবান্তর ও মনগড়া অভিযোগ তুলেছেন।

নির্বাচন সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা কাজী রবিউস সারোয়ার জানান, নির্বাচন শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন হয়েছে। বেসরকারি ভাবে মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মোক্তাদের মাওলা সেলিম।

পূর্বকোণ/এএ

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 195 People

সম্পর্কিত পোস্ট