চট্টগ্রাম রবিবার, ০৭ মার্চ, ২০২১

১৬ জানুয়ারি, ২০২১ | ১০:১৫ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

গণসংযোগে হামলাকারী সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার করুন : শাহাদাত

চসিক নির্বাচনকে অবাধ ও নিরপেক্ষ করতে নির্বাচন কমিশনসহ প্রশাসনকে আহবান জানানোর পরও কোন উদ্যোগ নেয়া হচ্ছেনা বলে মন্তব্য করেছে বিএনপির মেয়র প্রার্থী ডা. শাহাদাত হোসেন।

আজ শনিবার (১৬ জানুয়ারী) বিকালে নগরীর উত্তর ও দক্ষিণ হালিশহর ওয়ার্ডে গণসংযোগকালে তিনি এ কথা বলেন। তিনি হালিশহরের বিভিন্ন এলাকায় নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে গণসংযোগ করেন।

গণসংযোগকালে তার উপর হামলা চালানো হয়েছে বলে দাবি করে ডা. শাহাদাত বলেন, ঈদগা রূপসা বেকারির সামনে দিয়ে গণসংযোগ করে যাওয়ার সময় আওয়ামী লীগ দলীয় কাউন্সিলর প্রার্থীর সন্ত্রাসীরা অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে আমার গাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করে। নেতাকর্মীদের আহত করেছে। এর আগে বৃহস্পতিবার রাতে মধ্যম রামপুর বড়পুকুর এলাকায় সরকার দলীয় সন্ত্রাসী সাইফুর রহমান পলাশের নেতৃত্বে সন্ত্রাসীরা ধানের শীষের পোষ্টার লাগানোর সময় নেতাকর্মীদের উপর হামলা চালায়।

বিএনপির প্রার্থীদের নির্বাচনী প্রচারণায় আওয়ামী লীগ বাধা দিচ্ছে মন্তব্য করে তিনি আরও বলেন, ভয় ভীতিহীন পরিবেশ নির্বাচন করতে হলে ওয়ার্ড ওয়ার্ডে যাদের নামের সন্ত্রাসী তালিকা আছে তাদের অনতিবিলম্বে গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনাতে হবে। অন্যথায় সুষ্ঠু সুন্দর গ্রহণযোগ্য নির্বাচন সম্ভব্য নয়।

গণসংযোগে অংশ নিয়ে মহানগর বিএনপির সদস্য সচিব আবুল হাসেম বক্কর বলেন, চট্টগ্রামসহ সারাদেশের মানুষ ২৭ জানুয়ারির নির্বাচনের দিকে তাকিয়ে আছেন। ভয়কে জয় করে ভোটের দিন জনগণকে সাথে নিয়ে বিএনপি নেতাকর্মীদের ভোট কেন্দ্র পাহারা দিতে হবে। অনিয়ম ও সন্ত্রাসের মাধ্যমে কেন্দ্র দখল করে জনগণের ভোটাধিকার হরণের চেষ্টা করা হলে দুর্বার আন্দোলন গড়ে তোলা হবে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় বিএনপির শ্রমবিষয়ক সম্পাদক এ এম নাজিম উদ্দীন, চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির যুগ্ন আহবায়ক মো. মিয়া ভোলা, এস কে খোদা তোতন, ইয়াছিন চৌধুরী লিটন, সদস্য কাউন্সিলর প্রার্থী আবুল হাশেম, গাজী মো. সিরাজ উল্লাহ, মনজুর আলম চৌধুরী মনজু, বিএনপি নেতা জামাল আহমেদ, ইঞ্জিনিয়ার বেলায়েত হোসেন, ইপিজেড থানা বিএনপির সভাপতি ও কাউন্সিলর প্রার্থী সরফরাজ কাদের রাসেল, হালিশহর থানা বিএনপির সভাপতি মোশারফ হোসেন ডেপটি, সা. সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম, ইপিজেড থানার সা. সম্পাদক রোকন উদ্দীন মাহামুদ, পাহাড়তলী থানা বিএনপির সা. সম্পাদক জসিম উদ্দীন জিয়া, মহিলা কাউন্সিলর প্রার্থী জেসমিনা খানম ও জাহিদা বেগম, বিএনপির নেতা নুরুজ্জামান কন্ট্রাক্টার, মাহামুদ আলম পান্না, আজাদ বাঙ্গালী, আবুল কালাম আজাদ সেলিম, জানে আলম, জাবেদ আনসারী, মোজাদ বারেক, শাহীন আহমেদ কবির, আব্দুল মান্নান, মো. ইলিয়াস, ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি মোশারফ জামাল, আশরাফ উদ্দীন, শরীফুল ইসলাম, সা. সম্পাদক মুজিবুর রহমান, আনোয়ার হোসেন আরজু, মো. শফীউল্লাহ প্রমুখ।

 

পূর্বকোণ/মামুন

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 297 People

সম্পর্কিত পোস্ট