চট্টগ্রাম শনিবার, ০৬ মার্চ, ২০২১

সর্বশেষ:

১৬ জানুয়ারি, ২০২১ | ৭:৪৭ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

রেজাউলের নির্বাচনী প্রচারণায় দু’গ্রুপের সংঘর্ষে আহত ১৫

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে নৌকা প্রার্থী রেজাউল করিমের প্রচারণায় আওয়ামী লীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষে ১৫ জন আহত হয়েছে।

আজ শনিবার (১৬ জানুয়ারি) বিকাল সাড়ে ৫টায় নগরীর টাইগারপাসের বটতল এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষে আহতদের চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আহতেরা হচ্ছেন; মোজাম্মেল, হোসেন, সোহাগ, মাহমুদ, শাহীন, জাবেদ, মরিয়ম, রাশেদা বেগম, নওশাদ, আসাদ, রাব্বি, জাহেদ, নয়নসহ মোট ১৫জন। 

সূত্রে জানা যায়, লালখানবাজার এলাকায় আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী রেজাউল করিমের গণসংযোগ ছিল বিকেল সাড়ে ৫টায়। এ সময় তার সঙ্গে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ নেতা মাইনুদ্দিন হাসান চৌধুরী, নগর আওয়ামী লীগের যু্গ্ম সাধারণ সম্পাদক আলাউদ্দিন আলম, লালখান বাজার ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি সিদ্দিক আহমেদ যোগ দেওয়ার কথা।

অতিথিরা আসার আগে লালখান বাজার ওয়ার্ডে আওয়ামী লীগের কাউন্সিলর প্রার্থী আবুল হাসনাত বেলাল ও লালখান বাজার ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ নেতা দিদারুল আলম মাসুম তাদের অনুসারীদের জমায়েত করতে থাকেন। এ সময় দুই পক্ষ মুখোমুখী হলে উত্তেজনা বেড়ে যায়। দুই পক্ষই একে অপরকে পাথর নিক্ষেপ করেন। পরে সংঘর্ষে জড়ান। এতে উভয় পক্ষের অন্তত ১৫ জন আহত হন।

কাউন্সিলর প্রার্থী আবুল হাসনাত বেলাল বলেন, কাউন্সিলর পদে দিদারুল আলম মাসুম দলীয় মনোনয়ন না পাওয়ায় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের উপর হামলা করেছে। মেয়র প্রার্থী রেজাউল করিমের প্রচারণা উপলক্ষে আমাদের কর্মীরা জমায়েত হলে মাসুমের অনুসারীরা আমাদের উপর হামলা করে। এতে আমাদের কর্মী মোজাম্মেল হোসেন সোহাগ, মাহমুদ ও শাহীন আহত হন। তাদের চমেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

হামলার করার বিষয়টি অস্বীকার করে আওয়ামী লীগ নেতা দিদারুল আলম মাসুম বলেন, নির্বাচনী প্রচারণায় আমাদের কর্মীরা জমায়েত হওয়ার সময় বেলাল গ্রুপের লোকজন পেছন দিক দিয়ে অতর্কিত হামলা করে। এতে আমাদের দলের জাবেদ, মরিয়ম, রাশেদা বেগম, নওশাদ, আসাদ, রাব্বি, জাহেদ, নয়নসহ ১২ জন নেতাকর্মী আহত হয়েছেন।

খুলশী থানার ওসি শাহিনুজ্জামান পূর্বকোণকে বলেন, চসিক নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মেয়র প্রার্থী রেজাউল করিম গণসংযোগ চালাতে ১৩ নম্বর এলাকা থেকে ১৪ নম্বর এলাকায় ঢুকার সময় বেলাল আর মাসুম গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। তবে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। বর্তমানে ওই পুলিশের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।

পূর্বকোণ/মামুন

শেয়ার করুন
  • 226
    Shares
The Post Viewed By: 1261 People

সম্পর্কিত পোস্ট