চট্টগ্রাম সোমবার, ২৫ জানুয়ারি, ২০২১

সর্বশেষ:

২ জানুয়ারি, ২০২১ | ৯:৩৮ অপরাহ্ণ

লামা (বান্দরবান) সংবাদদাতা

হরিণের মাংস উদ্ধার: ২ ব্যক্তির বিরুদ্ধে মামলা

বান্দরবানের লামায় মায়া হরিণ আটক ও জবাই করার অপরাধে ২ ব্যক্তির বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। লামা বন বিভাগের কর্মকর্তারা ‘বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ ও নিরাপত্তা আইনে’ এই মামলা দায়ের করেন । আজ শনিবার (২ জানুয়ারি) লামা বন বিভাগের সদর রেঞ্জ কর্মকর্তা মো. নুরে আলম হাফিজ এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, বিভিন্ন পত্রিকায় ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মায়া হরিণ আটক ও জবাই করার ছবি-ভিডিও দেখে লামা বন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা এস. এম. কায়সার দোষীদের বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা গ্রহণে নির্দেশ প্রদান করেন। এই বিষয়ে আমার নেতৃত্বে বন বিভাগের একটি টিম গত বৃহস্পতিবার উপজেলার রূপসীপাড়া ইউনিয়নের ১নম্বর ওয়ার্ডের শিলেরতুয়া নোয়া পাড়া এলাকায় অভিযান চালায়। এসময় নোয়া পাড়ার জাফর আলম মনার বাড়ি থেকে রান্না করা হরিণের মাংস ও আলামত উদ্ধার করা হয়। হরিণ আটক ও জবাই কাজে সম্পৃক্ত থাকায় জাফর আলম মনার ছেলে মেহেরাজ হোসেন কালু (১৮) ও তার চাচা মো. বেলাল (৩৫) এর নামে বন্যপ্রাণী (সংরক্ষণ ও নিরাপত্তা) আইনে করায় ৩৯ ধারায় শাস্তি চেয়ে মামলা করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

এস. এম. কায়সার  বলেন, বন্যপ্রাণী সংরক্ষণে আমরা সচেষ্ট রয়েছি। দোষীদের অবশ্যই সাজা পেতে হবে। বন্যপ্রাণী হত্যা, পাচার ও আটক করার বিষয়ে তথ্য দিয়ে তিনি সবাইকে সহায়তা করতে অনুরোধ করেন। ইতিমধ্যে সরকার বন্যপ্রাণী বিষয়ে কোন প্রকার তথ্য দিলে তথ্যদাতার জন্য পুরষ্কার ঘোষণা করেছেন।

উল্লেখ্য, গত ২৯ ডিসেম্বর ২০২০ মঙ্গলবার লামা উপজেলার রূপসীপাড়া ইউনিয়নের ১নম্বর ওয়ার্ডের ঠাণ্ডা ঝিরি এলাকা থেকে একটি মায়া হরিণ আটকের পর জবাই করে অভিযুক্তরা।

পূর্বকোণ / আরআর

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 209 People

সম্পর্কিত পোস্ট