চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ২৮ জানুয়ারি, ২০২১

২৫ ডিসেম্বর, ২০২০ | ৫:০২ অপরাহ্ণ

সৌমিত্র চক্রবর্তী

প্রচারণা অব্যাহত আ. লীগ প্রার্থীদের

পৌরসভা নির্বাচন: সীতাকুণ্ডে বিএনপি’র মেয়র-কাউন্সিলর প্রার্থীরা সক্রিয়

সীতাকুণ্ড পৌরসভা নির্বাচনের একেবারে শেষপ্রান্তে এসে সক্রিয় হয়ে উঠেছে বিএনপির প্রার্থীরা। নির্বাচনে প্রতীক পাবার পরেও এতদিন দলটির প্রার্থীদের তেমন কোন তৎপরতা ছিলো না। মেয়র থেকে শুরু করে তাদের কাউন্সিলর প্রার্থীরাও শুধুমাত্র পোস্টার ঝুলিয়েই কর্তব্য শেষ করেছিলো।

কিন্তু গত মঙ্গলবার ও বুধবার হঠাৎ শোডাউন করে বিএনপির দুই প্রার্থী। এতে ফের আলোচনায় আসে দলটির তৎপরতার বিষয়। অন্যদিকে প্রচারণা অব্যাহত রেখেছেন আ. লীগের প্রার্থীরা। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, আগামী ২৮ ডিসেম্বরের সীতাকুণ্ড পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র কাউন্সিলর পদে মোট ৮৬ জন প্রার্থী পরস্পরের প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন। এদের মধ্যে মেয়র প্রার্থী তিনজন। এছাড়া সাধারণ কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ৯টি ওয়ার্ডে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন ৮৩ জন প্রার্থী।

স্থানীয়রা জানান, গত মঙ্গলবার পৌরসদরে আকস্মিক মিছিল করেন পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী বিএনপি নেতা মোহাম্মদ আলী। ঠিক এর পরদিন গতকাল বুধবার পৌরসদরে মিছিল করেন বিএনপির মেয়র প্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল মুনছুর। দুটি মিছিলেই বেশ কিছু বিএনপি সমর্থক নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। এর ফলে তাদের এই তৎপরতা আবার আলোচনায় আসে।

এ বিষয়ে উপজেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক জহুরুল আলম জহুর বলেন, প্রতিপক্ষরা নানাভাবে আমাদের প্রার্থীদের নির্বাচন থেকে দূরে রাখতে চেষ্টা চালাচ্ছে এবং বাধা দিচ্ছে। তবুও আমাদের প্রার্থীরা নিজেদের প্রচারণা করছেন।

অন্যদিকে প্রত্যেক ওয়ার্ডে আওয়ামীলীগের ৫ থেকে ৮-৯জন পর্যন্ত প্রার্থী থাকায় প্রার্থীরা খানিকটা সমস্যায় পড়লেও তারাও নির্বাচনী প্রচারণা অব্যহত রেখেছেন।

এদিকে উপজেলা নির্বাচন অফিসার ও পৌরসভা নির্বাচনের সহকারী রিটার্নিং অফিসার বুলবুল আহমেদ বলেন, নির্বাচনের মুখে প্রচারণা করতে গিয়ে কোন কোন প্রার্থী আচরণবিধি লঙ্ঘনের মত ঘটনা ঘটাচ্ছেন। কেউ যদি আচরণবিধি লঙ্ঘন করেন তাহলে আমরা আরো কড়া ব্যবস্থা নেব।

 

 

 

পূর্বকোণ/পি-আরপি

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 153 People

সম্পর্কিত পোস্ট