চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ২১ জানুয়ারি, ২০২১

১৪ ডিসেম্বর, ২০২০ | ১২:৪৭ অপরাহ্ণ

ইমরান বিন ছবুর 

সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ভর্তির আবেদন শুরু মঙ্গলবার

সারা দেশের ন্যায় বন্দর নগরীর ১০টি সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে কাল থেকে ভর্তির আবেদন শুরু হচ্ছে। আগের নয়টি সরকারি বিদ্যালয়ের সাথে এবছর নতুন করে যুক্ত হচ্ছে চট্টগ্রাম সরকারি মডেল স্কুল এন্ড কলেজ।

নগরীর এই ১০টি সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৩ হাজার ৯১০টি শূন্য আসনের বিপরীতে আবেদন গ্রহণ করা হবে। অনলাইনের (https://gsa.teletalk.com.bd) এই ঠিকানার মাধ্যমে ১৫ ডিসেম্বর থেকে ২৭ ডিসেম্বর পর্যন্ত আবেদন করা যাবে। আবেদনশেষে ৩০ ডিসেম্বর অনলাইনে লটারির মাধ্যমে শিক্ষার্থী নির্বাচন করা হবে।

বিজ্ঞাপন

মহামারী করোনাভাইরাসের কারণে বিগত বছরের ন্যায় এবার সরকারি বিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষা হচ্ছে না। লটারির মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের ভর্তি করানোর ব্যাপারে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অনুমোদন পাওয়ার পর গত শুক্রবার মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর (মাউশি) ২০২১ শিক্ষাবর্ষে ভর্তির এ বিজ্ঞপ্তি জারি করেছে। বিদ্যালয় সংশ্লিষ্টদের তথ্য মতে, চট্টগ্রাম কলেজিয়েট স্কুলে মোট শূন্য আসন সংখ্যা ৪৯০টি, ডা. খাস্তগীর সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে ৪৮০টি, গভ. মুসলিম হাই স্কুলে ৪৮০টি, চট্টগ্রাম সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে ৩২০টি, নাসিরাবাদ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে ৫২০টি, চট্টগ্রাম সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে ৩৮০টি আসন শূন্য রয়েছে। একইভাবে, হাজি মুহাম্মদ মহসিন সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে ২২০টি, বাকলিয়া সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের বালক ও বালিকা শাখায় ২৫০টি করে মোট ৫০০টি আসন শূন্য রয়েছে। সিটি সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে ৪৪০টি এবং চট্টগ্রাম সরকারি মডেল স্কুল এন্ড কলেজে ৮০টি শূন্য আসন রয়েছে।

এ সম্পর্কে জানতে চাইলে চট্টগ্রামের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) আ স ম জামশেদ খোন্দকার বলেন, নগরীর ১০ সরকারি বিদ্যালয়ে পঞ্চম থেকে নবম শ্রেণিতে প্রায় ৪ হাজার শিক্ষার্থী ভর্তির সুযোগ পাবে। এবছর ভর্তি কার্যক্রম মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর মাউশি থেকে নিয়ন্ত্রণ করবে। আগে নয়টি সরকারি বিদ্যালয়কে তিনটি গ্রুপে ভাগ করা হতো। প্রত্যেক শিক্ষার্থী প্রতিটি গ্রুপের যে কোন একটি বিদ্যালয়ে পরীক্ষায় অংশগ্রহণের সুযোগ পেত।

তিনি আরো বলেন, এবছর সরকারি বিদ্যালয়ের সাথে নতুন করে আরো একটি বিদ্যালয় যুক্ত হয়েছে। বিস্তারিত বিষয় নিয়ে আমরা আজ (সোমবার) বিদ্যালয় প্রধানদের সাথে মিটিং করবো। সেখানে বিস্তারিত আলোচনার পর তা আমরা সবাইকে জানিয়ে দিব।

কোন স্কুলে কত আসন ঃ নগরীর ১০টি সরকারি বিদ্যালয়ে এবার মোট আসন সংখ্যা ৩ হাজার ৯১০টি। এরমধ্যে পঞ্চম শ্রেণিতে দুই হাজার আসন রয়েছে। ষষ্ঠ শ্রেণিতে ৭৬৫টি, অষ্টম শ্রেণিতে ১৭০টি, নবম শ্রেণির বিজ্ঞান শাখায় ৮৬০ এবং ব্যবসায় শিক্ষা শাখায় ৯৫টি আসন রয়েছে।

চট্টগ্রাম কলেজিয়েট স্কুলে ৫ম শ্রেণিতে ৩২০, ৮ম শ্রেণিতে ১০টি ও নবম শ্রেণির বিজ্ঞান বিভাগে ১৬০টি আসন রয়েছে। ডা. খাস্তগীর সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে ৫ম শ্রেণিতে ৩২০ ও নবম শ্রেণির বিজ্ঞান বিভাগে ১৬০টি আসন রয়েছে। গভ. মুসলিম হাই স্কুলে ৫ম শ্রেণিতে ১৬০, ৬ষ্ঠ শ্রেণিতে ১৬০ ও নবম শ্রেণির বিজ্ঞান বিভাগে ১৬০টি আসন রয়েছে। চট্টগ্রাম সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেণিতে ৩২০ আসন রয়েছে। নাসিরাবাদ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেণিতে ১৬০, ৬ষ্ঠ শ্রেণিতে ১৬০, ৮ম শ্রেণিতে ৪০ ও নবম শ্রেণীর বিজ্ঞান বিভাগে ১৬০টি আসন রয়েছে। চট্টগ্রাম সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেণিতে ১৬০, ৬ষ্ঠ শ্রেণিতে ১৬০ এবং নবম শ্রেণির বিজ্ঞান বিজ্ঞান বিভাগে ৬০টি আসন রয়েছে। বাকলিয়া সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের (বালক) ৫ম শ্রেণিতে ৮০, ৬ষ্ঠ শ্রেণিতে ৭০, অষ্টম শ্রেণিতে ৩০টি এবং নবম শ্রেণির বিজ্ঞান বিভাগে ৩০টি ও ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগে ৪০টি আসন রয়েছে।

একইভাবে, বাকলিয়া সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের (বালিকা) ৫ম শ্রেণিতে ৮০, ৬ষ্ঠ শ্রেণিতে ৭০টি, অষ্টম শ্রেণিতে ৩০টি এবং নবম শ্রেণির বিজ্ঞান বিভাগে ৩০টি ও ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগে ৪০টি আসন রয়েছে। হাজী মুহাম্মদ মহসিন সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে ৫ম শ্রেণিতে ১৬০, ৬ষ্ঠ শ্রেণিতে ২০টি, সপ্তম শ্রেণিতে ২০টি ও নবম শ্রেণির বিজ্ঞান বিভাগে ২০টি আসন রয়েছে। সিটি সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেণিতে ২৪০, ৮ম শ্রেণিতে ৬০টি, অষ্টম শ্রেণিতে ৬০টি ও নবম শ্রেণির বিজ্ঞান বিভাগে ৮০টি আসন রয়েছে। এবার নতুন করে যুক্ত হওয়া চট্টগ্রাম সরকারি মডেল স্কুল এন্ড কলেজ ষষ্ঠ শ্রেণিতে ৬৫ ও নবম শ্রেণির ব্যবসায় শিক্ষা শাখায় ১৫টি আসন রয়েছে।

পূর্বকোণ/এএ

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 307 People

মন্তব্য দিন :

সম্পর্কিত পোস্ট