চট্টগ্রাম সোমবার, ২৫ জানুয়ারি, ২০২১

সর্বশেষ:

১৩ ডিসেম্বর, ২০২০ | ৫:০৮ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

পুলিশের রূপ পাল্টাচ্ছে

দীর্ঘদিন ধরে কাঁধে রাইফেল বয়ে বেড়ানোর অধ্যায়ের সমাপ্তি ঘটতে যাচ্ছে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশে (সিএমপি)। পুলিশ সদস্যদের দেয়া হবে ‘ট্যাকটিক্যাল বেল্ট’। এতে দায়িত্বরত পুলিশ সদস্যরা থাকবেন ‘হ্যান্ডস ফ্রি’। আগামী ১৬ ডিসেম্বর প্রাথমিকভাবে নগরীর চার থানার সদস্যদের ‘ট্যাকটিক্যাল বেল্ট’ প্রদান করা হবে। পর্যায়ক্রমে নগরীর সব পুলিশ সদস্যের মাঝে এ বেল্ট দেয়া হবে। উন্নত বিশ্বের দেশগুলোতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা ট্যাকটিক্যাল বেল্ট ব্যবহার করছেন আরো আগে থেকে। একই দিনে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশেও এ বেল্ট দেয়া হবে।

চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার সালেহ মোহাম্মদ তানভীর বলেন, ‘ট্যাকটিক্যাল বেল্টের মূল শ্লোগান হচ্ছে ‘হ্যান্ডস ফ্রি পুলিশিং’। মানে হাত খালি রাখো। আগামী ১৬ ডিসেম্বর বিজয় দিবসের দিনে প্রাথমিক পর্যায়ে নগরীর কোতোয়ালী, খুলশী, পাঁচলাইশ ও ডবলমুরিং- এ চার থানার পুলিশ সদস্যের মাঝে ট্যাকটিক্যাল বেল্ট প্রদান করা হবে। যাদের বেল্ট দেয়া হবে তাদেরকে ইতিমধ্যে ট্রেনিং করানো হয়েছে। পরবর্তীতে অন্য থানার পুলিশ সদস্যদের মাঝেও এ বেল্ট দেয়া হবে। পুলিশ সদর দপ্তর থেকে প্রথম পর্যায়ে দুই হাজার বেল্ট দেয়া হয়েছে। ট্রেনিং শেষে সবাইকে এ বেল্ট দেয়া হবে।

বিজ্ঞাপন

সিএমপি কমিশনার বলেন, পুলিশ সদস্যদের ডিউটিকালে প্রয়োজন হয় এমনটি সাতটি জিনিস ট্যাকটিক্যাল বেল্টে রাখতে পারবে। এতে বড় অস্ত্র বহনের ঝামেলা আর থাকবে না। পুলিশের কাজে গতি আসবে, মনোবলও বাড়বে। দায়িত্বরত পুলিশকে দেখতেও আরও আধুনিক ও যুগোপযোগী লাগবে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, জনবান্ধব পুলিশিংয়ের মূল কথা- পুলিশকে কাছের ভাববে সাধারণ মানুষ। বিপদে ভরসা মনে করবে। এ জন্য উন্নত বিশ্বে পুলিশের অস্ত্র সাধারণত প্রয়োজন ছাড়া প্রদর্শন করা হয় না। আবার এমনভাবে পুলিশ সদস্যদের কাছে সংরক্ষণ করা হয়, যেন অপরাধীদের দমনে দ্রুত সেটি ব্যবহার করতে পারে। ট্যাকটিক্যাল বেল্টের কারণে অস্ত্র থাকবে হিডেন (লুকানো)। এতে সাধারণ মানুষের নজর পুলিশের অস্ত্রের দিকে সহজে পড়বে না। ট্যাকটিক্যাল বেল্টে সাতটি চেম্বার থাকবে। এসব চেম্বারে প্রাথমিকভাবে থাকছে ছোট অস্ত্র, এক্সপেন্ডেবল ব্যাটন, ওয়্যারলেস সেট, ৫০০ মিলিলিটার পানির বোতল ও ট্রাফিক পুলিশ সদস্যদের জন্য পজ মেশিন। পরবর্তী সময়ে ট্যাকটিক্যাল বেল্টে বডি অন ক্যামেরা, টর্চলাইটসহ প্রয়োজনীয় আরও কিছু ফিচার যুক্ত করা হবে। ওয়্যারলেস সেটেও আসছে বড় পরিবর্তন। ওয়্যারলেস সেট এখন আর হাতে নিয়ে কথা বলতে হবে না। ট্যাকটিক্যাল বেল্টে যুক্ত ওয়্যারলেস সেটের জন্য কানে হেডফোন এবং পোশাকের কলার অথবা বোতামে থাকবে স্পিকার। কোমরের বেল্টে অস্ত্র ছাড়া বাকি সবকিছু থাকবে। আর পিস্তলের জন্য নির্ধারিত চেম্বারটি ডান পাশের উরু বরাবর পরবেন পুলিশ সদস্যরা। প্রাথমিকভাবে কনস্টেবল থেকে উপ-পরিদর্শক (এস আই) পদমর্যাদার পুলিশ সদস্যদের ট্যাকটিক্যাল বেল্ট দেওয়া হবে।

চীন থেকে আমদানি করা হয়েছে এসব ট্যাকটিক্যাল বেল্ট। শুরুতে অপারেশনাল ফোর্স, ফুট ও মোবাইল প্যাট্রল টিম, ট্রাফিক পুলিশ সদস্যদের ট্যাকটিক্যাল বেল্ট প্রদান করা হবে। ধাপে ধাপে সব মহানগর, জেলা পুলিশসহ সব ইউনিটের সদস্যদের ট্যাকটিক্যাল বেল্ট প্রদান করা হবে।তবে পুলিশের বিশেষায়িত ইউনিটসহ প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রে বড় অস্ত্রের ব্যবহারে পরিবর্তন আসবে না।

 

পূর্বকোণ/পি-এন.এইচ

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 355 People

সম্পর্কিত পোস্ট