চট্টগ্রাম সোমবার, ১৮ জানুয়ারি, ২০২১

সর্বশেষ:

৭ ডিসেম্বর, ২০২০ | ৬:২৭ অপরাহ্ণ

অনলাইন ডেস্ক

ব্যাংকে জমা দেবে বলে টাকা আত্মসাৎ, দোকান কর্মচারী গ্রেপ্তার

চট্টগ্রাম নগরীর জুবিলী রোডের একটি গার্মেন্টস এক্সেসরিজ দোকান থেকে ১০ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে কর্মচারী আবু তৈয়বকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

গ্রেপ্তার আবু তৈয়ব (২৫) সাতকানিয়া থানার দেওদীঘির আব্দুস সালামের ছেলে।

রবিবার (৬ ডিসেম্বর) রাতভর অভিযান চালিয়ে বাঁশখালী উপজেলা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। এসময় তার কাছ থেকে ছিনতাইয়ের ৭ লাখ ৩৯ হাজার ৯’শ টাকা উদ্ধার করা হয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, জিয়াউল হক নামের জুবিলী রোডের এক গার্মেন্টস এক্সেসরিজের ব্যবসায়ী মালামাল ক্রয়ের জন্য ২ ডিসেম্বর ঢাকায় যান। ব্যবাসায়িক কারণে টাকার প্রয়োজন হলে ওইদিন বেলা সাড়ে ১২টার দিকে সে তার কর্মচারী তৈয়বকে দোকান থেকে ১ লাখ টাকা এবং তার ব্যবসায়িক বন্ধুদের কাছ থেকে আরো ৯ লাখ ৩৯ হাজার ৯’শ টাকা সংগ্রহ করে মোট ১০ লাখ ৩৯ হাজার ৯’শ টাকা সাউথ ইস্ট ব্যাংকে জমা করতে বলেন। তৈয়ব এসব টাকা সংগ্রহ করে ওইদিন দেড়টায় জুবিলী রোডের দোকান থেকে বের হয়।

কিন্তু ওইদিন ব্যাংকে টাকা জমা না দেওয়ায় জিয়াউল তৈয়বকে ফোনে যোগযোগ করার চেষ্টা করে। কিন্তু ফোন বন্ধ পাওয়ায় রাতে চট্টগ্রাম এসে তৈয়বকে অনেক খোঁজার পরও পাওয়া যায়নি। পরে তৈয়বের ফোনে যোগাযোগ করে টাকা ফেরত দিতে বললে সে দিবে বলে ফোন কেটে দেয়। পরে আবার তৈয়বের সাথে ফোনে যোগাযোগ করা হলে তৈয়ব জিয়াউলকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে কোন টাকা দিবে না বলে জানায়। ভবিষ্যতে আর টাকার জন্য ফোন দিলে তাকে মেরে ফেলারও হুমকি ধমকি দেয়।  টাকা না পেয়ে জিয়াউল রবিবার (৬ ডিসেম্বর) এ ঘটনায় একটি মামলা দায়ের করেন।

কোতোয়ালী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ মহসীন পূর্বকোণকে বলেন, ‘‘জুবিলী রোডের এক গার্মেন্টস এক্সেসরিজ ব্যবসায়ী জিয়াউল হক টাকা আত্মসাতের একটি অভিযোগ করেন। এ ঘটনায় আমরা অভিযান চালিয়ে বাঁশখালী উপজেলা থেকে তার দোকানের কর্মচারী আবু তৈয়বকে গ্রেপ্তার করি। এসময় তার কাছ থেকে ৭ লাখ ৩৯ হাজার ৯’শ টাকা উদ্ধার করা হয়েছে।

জিজ্ঞাসাবাদে আবু তৈয়ব জানায়, অনলাইনে ডলার ক্রয় বিক্রয়ের কাজ করতে গিয়ে ঋণগ্রস্ত হয়ে পড়ায় সে তার মালিকের টাকা আত্মসাত করে।

পূর্বকোণ/পিআর

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 160 People

সম্পর্কিত পোস্ট