চট্টগ্রাম সোমবার, ১২ এপ্রিল, ২০২১

সর্বশেষ:

২৪ নভেম্বর, ২০২০ | ২:৩০ অপরাহ্ণ

আদালত প্রতিবেদক 

প্যাকেটে ইয়াবা জানতাম না একজন এএসআই দিয়েছেন

দুই হাজার ৮শ ৭৫ পিস ইয়াবাসহ ওয়াসা মোড় থেকে একমাস আগে গ্রেপ্তার হওয়া রাঙ্গুনিয়া থানার কনস্টেবল মো. মোশারফ হোসেন (৩৭) আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন।

মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট খাইরুল আমীন এর আদালতে সম্প্রতি দেয়া জবানবন্দিতে তিনি উল্লেখ করেন, উদ্ধার হওয়া প্যাকেটে ইয়াবা থাকার কথা তিনি জানতেন না। একজন এএসআই তাঁকে প্যাকেটটি দিয়েছেন। তবে জবানবন্দিতে এএএসআইয়ের নাম উল্লেখ করেননি তিনি।

মেট্রোপলিটন পুলিশের সহকারী কমিশনার (প্রসিকিউশন) কাজী শাহাবুদ্দিন আহমেদ বরখাস্ত পুলিশের কনস্টেবল মোশাররফ আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন বলে পূর্বকোণের কাছে স্বীকার করেন ।   গত ২১ অক্টোবর সন্ধ্যায় নগরীর ওয়াসার  মোড় হক লাইব্রেরির সামনে থেকে র‌্যাব মোশারফ হোসেনকে ইয়াবাসহ গ্রেপ্তার করে।  এ ঘটনায়  র‌্যাব-৭ এর পুলিশ পরিদর্শক (শহর ও যান) অমল চন্দ্র বাদি হয়ে নগরীর চকবাজার থানায় মামলা দায়ের করেন। পরদিন তাঁকে আদালতে হাজির করা হলে আদালত তাঁকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। মোশারফ বর্তমানে কারাগারে রয়েছেন। মাদক মামলাটি তদন্ত করছে নগর গোয়েন্দা পুলিশ ইন্সপেক্টর হাসান ইমাম। ইয়াবাসহ আটকের পর অভিযুক্তকে বরখাস্ত করা হয়।

কনস্টেবল মোশারফ  ফেনী জেলার সোনাগাজী থানার নবাবপুর রঘুনাথপুরের জাফর আহম্মদের ছেলে। তিনি নগরীর ২ নম্বর গেট এলাকায় সপরিবারে বসবাস করেন।

ওয়াসার মোড়ে অবৈধ মাদক বিক্রি করতে একব্যক্তির ঘোরাঘুরি করার গোপন সংবাদ পেয়ে ২১ অক্টোবর সন্ধ্যায় র‌্যাবের একটি টিম হক লাইব্রেরির সামনে পৌঁছলে মোশাররফ দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করে। র‌্যাব সদস্যরা তাঁকে আটক করে প্যান্টের দুই পকেট থেকে দুটি প্যাকেট উদ্ধার করে। দুটি পকেটে দুই হাজার ৮ শ ৭৫ পিস ইয়াবা পাওয়া যায়। আটকের পর তিনি নিজেকে রাঙ্গুনিয়া থানার কর্মরত কনস্টেবল বলে পরিচয় দেন। র‌্যাব খবর নিয়ে জানতে পারেন আটক ব্যক্তি পুলিশ কনস্টেবল। পুলিশ জানায়, মোশাররফের কাছে ইয়াবা সরবরাহকারী এএসআইকে খোঁজে বের করার চেষ্টা চলছে। এছাড়া নাম উল্লেখ না করে এএসআইয়ের কথা উল্লেখ করা বিষয়টি মোশারফের বানোয়াট গল্প কি না তাও খতিয়ে দেখা হবে।

পূর্বকোণ/এএ

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 207 People

সম্পর্কিত পোস্ট