চট্টগ্রাম শুক্রবার, ০২ ডিসেম্বর, ২০২২

সর্বশেষ:

২৮ এপ্রিল, ২০১৯ | ২:৫৯ পূর্বাহ্ণ

ওষুধ শিল্প শুধু বিজনেস নয় এটি একটি উন্নতমানের সেবা

ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মো. মোস্তাফিজুর রহমান বলেছেন, ওষধ শিল্প শুধু বিজনেস নয়, এটি একটি উন্নতমানের সেবা। তিনি গতকাল রাউজানের কদলপুরে নুরুল আলম চৌধুরী-খালেদা বেগম কল্যাণ ট্রাস্টের উদ্যোগে গড়ে তোলা হেলথ্কিউর ফার্মেসি এন্ড ডিপার্টমেন্টাল স্টোরের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন। গুণগতমানের শতভাগ নিশ্চয়তা, ওষধের বিধিমোতাবেক সংরক্ষণ, সুলভমূল্যে বিক্রির উদ্দেশ্য নিয়ে রাউজানের কদলপুরের আশরাফ আলী চৌধুরী হাটে যাত্রা শুরু হয়েছে সম্পূর্ণ ভিন্নধর্মী প্রতিষ্ঠান হেলথ্কিউর ফার্মেসি এন্ড ডিপার্টমেন্টাল স্টোর’র। এ উপলক্ষে গতকাল শনিবার বিকেলে আশরাফ আলী চৌধুরী হাটে আয়োজিত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মো. মোস্তাফিজুর রহমান। তিনি বলেন ‘ওষুধ তখনই ওষধ, যখন নিয়ম মেনে সঠিক নিয়মে খাওয়া হয়। এভাবে যদি ওষধ না খাওয়ানো হয়, তখন সেটি বিষ হয়ে যায়। নুরুল আলম চৌধুরী-খালেদা বেগম কল্যাণ ট্রাস্ট সাধারণ মানুষের সেবার জন্য যে প্রতিষ্ঠান খুলেছেন তা গ্রামের মধ্যে একটি বিরল ঘটনা। তিনি আরো বলেন, ২১ জেলায় ৪ শতাধিক এ ধরনের মডেল

ফার্মেসি ইতোমধ্যে করা হয়েছে। ভবিষ্যতে এটা সারা বাংলাদেশে ছড়িয়ে যাবে।’ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব ও নুরুল আলম চৌধুরী-খালেদা বেগম কল্যাণ ট্রাস্টের সহ-সভাপতি মুহাম্মদ মোহসিন চৌধুরী’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন, বাংলাদেশ ফার্মেসি কাউন্সিলের সচিব মুহাম্মদ মাহবুবুল হক, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র উপ-সচিব আরিফ আহম্মেদ খান, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব আলমগীর হোসেন, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. এহসান মুরাদ, অধ্যাপক মোজাহিদুল ইসলাম চৌধুরী, কদলপুর ইউপি চেয়ারম্যান তছলিম উদ্দিন চৌধুরী, ড. মো. আকিব হোসেন, ওষুধ তত্ত্বাবধায়ক মো. কামরুল হাসান, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মো. হাসেম চৌধুরী, মুক্তিযোদ্ধা কিরণ লাল আচার্য্য, বিমাবিদ এস. এম ইউসুফ, এস. এম ইব্রাহীম খোকন, প্রাক্তন শিক্ষক সাধন কৃষ্ণ চক্রবর্তী, কাজী সিরাজুল ইসলাম, নাছিরুল হক চৌধুরী, এডভোকেট কাজী মুহাম্মদ নজমুল হক, অধ্যাপক বাদল কিশোর দাশ, সুরঞ্জন ভট্টাচার্য্য, সাবেক চেয়ারম্যান এস.এম ফারুক, সাইফুল হক চৌধুরী লাভলু, ফরহাদ উদ্দিন আহম্মেদ চৌধুরী, অধ্যক্ষ আবদুল মালেক, মোবারক শাহ্ চৌধুরী, তরুণ চক্রবর্তী, অধ্যক্ষ ওমর ফারুক, অধ্যক্ষ আলহাজ আবু জাফর সিদ্দিকী। সংগঠক বিশ্বজিত ভট্টাচার্য্যরে সঞ্চালনায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন ট্রাস্টের সাধারণ সম্পাদক আবুল মনসুর চৌধুরী, কোষাধ্যক্ষ খোরশেদুল আলম চৌধুরী, কদলপুর আইডিয়াল হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষক মো. জসিম উদ্দিন চৌধুরী, প্রধান শিক্ষক বিলাস কান্তি দাশ, অধ্যাপক লিয়াকত আলী চৌধুরী, ফাহিম উদ্দিন শাহ্, ইউসুফ চৌধুরী ভুট্টো, এডভোকেট মুজিবর রহমান, এডভোকেট দিশু কান্তি দাশ, ইউপি সদস্য কমল চক্রবর্তী, মুরাদুল হক চৌধুরী, নাছির উদ্দিন, আবু তৈয়ব চৌধুরী, মো. ইলিয়াছ, রণিকা ভট্টাচার্য্য, জেনু বড়–য়া, কদলপুর স্কুল এন্ড কলেজ প্রাক্তন ছাত্র সমিতির সিনিয়র সহ-সভাপতি সেলিম উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক মো. ফরহাদুর রহমান চৌধুরী, মো. ইদ্রিছ, পংকজ ভট্টাচার্য্য, সাইফুল্লাহ আনসারী, আবদুল সালাম, রেজাউল করিম চৌধুরী, মঈনুদ্দিন চৌধুরী, মো. রবিউল হোসেন শাহ্, মো. ইফতেখারুল আলম চৌধুরী, মনিরুল হক চৌধুরী, মো. হেলাল উদ্দিন প্রমুখ।
অনুষ্ঠানের সভাপতি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব ও নুরুল আলম চৌধুরী-খালেদা বেগম কল্যাণ ট্রাস্টের সহ-সভাপতি মুহাম্মদ মোহসিন চৌধুরী বলেন, এ ট্রাস্ট বা আমরা ব্যবসার জন্য প্রতিষ্ঠান করিনি। জনসেবার জন্য করা হয়েছে। এখান থেকে মুনাফা নিবো না।’ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আগে ফিতাকেটে হেলথ্কিউর ফার্মেসি এন্ড ডিপার্টমেন্টাল স্টোর’র উদ্বোধন করেন অতিথিবৃন্দ।

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট