চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ২৮ জানুয়ারি, ২০২১

২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০ | ১:৪৯ অপরাহ্ণ

খাগড়াছড়ি সংবাদদাতা

খাগড়াছড়িতে ডাকাতি ও গণধর্ষণের ঘটনায় পুলিশের সংবাদ সম্মেলন

খাগড়াছড়ির সদরে সংগঠিত ডাকাতি ও গণধর্ষণের ঘটনার বিষয়ে পুলিশের পক্ষ থেকে এক সংবাদ সম্মেলন করা হয়।
আজ রবিবার (২৭ সেপ্টেম্বর) সকাল ১০.৩০ টায় পুলিশ সুপারের র্কাযালয়ে এ সংবাদ সম্মেলন করা হয়।

সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার আব্দুল আজিজ বলেন , আমরা স্থানীয় জনগণের সহযোগিতায় ঘটনার ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে ৯ জন আসামীর মধ্যে ৭ জনকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়েছি । চট্টগ্রাম ,রামগড়, গুইমারা ও খাগড়াছড়ি সদর থেকে এসব আসামীদের পৃথক পৃথক ভাবে একটি সিএনজিসহ গ্রেপ্তার করি। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন মো. আমিন (৪০) পিতা মৃত আবুল কাশেম সাং তৈচালা পাড়া রামগড়, মো. বেলাল হোসেন (২৩) পিতা মৃত আকবর আলী কুমিলা টিলা, খাগড়াছড়ি সদর; মো. ইকবাল হোসেন (২১) পিতা ইমরান হোসেন সাং-হাফছড়ি, গুইমারা; মো. আব্দুল হালিম (২৮) পিতা হাবিল মিঞা সাং- আমতলী, মাটিরাঙ্গা; মো. শাহিন মিঞা (১৯) পিতা আব্দুল কাদের সাং-বড়পিলেক, গুইমারা; মো. অন্তর (২০) পিতা আহমদ উল্লাহ সাং-দারগাপাড়া, রামগড়; আব্দুর রশিন (৩৭) পিতা শামসুল হক সাং- মুসলিম পাড়া, মাটিরাঙ্গা।

তিনি বলেন, এসব আসামীরা ইতোপূর্বে অস্ত্র , ধর্ষণ, ডাকাতি, মাদকসহ বিভিন্ন বড় ধরনের মামলার আসামী।
পুলিশ সুপার সংবাদ সম্মেলনে আরো বলেন , গ্রেপ্তারকৃত ৭ জন সহ অন্য আসামী ২ জন মিলে গত বুধবার রাতে বিন্দু লাল চাকমার বাড়িতে ডাকাতি ও বাড়ির প্রতিবন্দী এক নারীকে পালাক্রমে গণধর্ষণ করে । মামলার বাদি পুষ্পরাণী চাকমার অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে পুলিশ ৪৮ ঘন্টার মধ্যে ৭ জন আসামীকে গ্রেপ্তার করে এবং অন্য ২ জন আসামীকে গ্রেপ্তারের অভিযান অবাহত রয়েছে বলে জানান তিনি।
পুলিশ সুপার সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, এ ঘটনার সাথে কোনো রাজনৈতিক কিংবা সাম্প্রদায়িক বিষয় জড়িত নয়। সাংবাদিক সম্মেলনে চট্টগ্রামের ডিআইজি আনোয়ার হোসেনসহ পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন ।

পূর্বকোণ/জহুরুল-এএ

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 185 People

সম্পর্কিত পোস্ট