চট্টগ্রাম রবিবার, ২৪ জানুয়ারি, ২০২১

সর্বশেষ:


Notice: Undefined property: stdClass::$container_aria_label in /home/dainikpurbokone/public_html/wp-includes/nav-menu-template.php on line 190

২২ আগস্ট, ২০২০ | ১২:৩৩ অপরাহ্ণ

ইফতেখারুল ইসলাম

মশক নিধনে ২০ কোটি টাকা বরাদ্দ চেয়ে চসিকের চিঠি মন্ত্রণালয়ে

করোনার ডামাডোলে মানুষ ডেঙ্গুর কথা ভুলেই গেছে। জ্বর হলেই করোনা পরীক্ষা করে। কিন্তু ডেঙ্গুর পরীক্ষা করে না। ডেঙ্গুর মৌসুমে ডেঙ্গু রোগী পাওয়া যাচ্ছে না। এটা একদিকে, সুখবর হলেও এর মধ্যে আছে আতঙ্কও। সংশ্লিষ্টদের অভিমত, পরীক্ষা না করলে ডেঙ্গু শনাক্ত হবে না। তাই জ্বর হলে মশাবাহিত রোগের বিষয়টিও মাথায় রাখতে হবে।

এদিকে, মশক নিধন কার্যক্রম চালানোর জন্য মন্ত্রণালয়ের কাছে ২০ কোটি টাকা বরাদ্দ চেয়েছে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন (চসিক)। সম্প্রতি চসিক প্রশাসক আলহাজ খোরশেদ আলম সুজন স্থানীয় সরকার মন্ত্রীর কাছে এই টাকা চেয়ে চিঠি দেন।

বিজ্ঞাপন

চট্টগ্রাম জেলা সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বী পূর্বকোণকে বলেন, মাস দুয়েক আগে কয়েকটি ডেঙ্গু রোগী পেয়েছিলাম। প্রাইভেট হাসপাতালে তখন ডেঙ্গু রোগী পাওয়া গিয়েছিল। কিন্তু এর মধ্যে ডেঙ্গু রোগীর আর কোন রিপোর্ট আসেনি। চিকুনগুনিয়া রোগেরও প্রাদুর্ভাব নেই। তিনি বলেন, ডেঙ্গু মৌসুমের শুরুতে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনকে চিঠি দিয়ে মশক নিধন কার্যক্রম পরিচালনার জন্য অনুরোধ জানানো হয়েছে। আবারো অনুরোধ জানানো হবে।

তিনি বলেন, করোনা মহামারীর মাঝে ডেঙ্গুর মৌসুম চলছে। তাই সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে। কারণ যথাসময়ে ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত করে চিকিৎসা না নিলে তা ঝুঁকির কারণ হতে পারে।

জানতে চাইলে চসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ সামসুদ্দোহা পূর্বকোণকে বলেন, এই মুহূর্তে মশক নিধনের জন্য চসিকের কাছে ওষুধ আছে। নিধন কার্যক্রমও চলছে। তবে পরে ওষুধ লাগবে। তাই মন্ত্রণালয়ের কাছে ২০ কোটি টাকা চাওয়া হয়েছে। এছাড়া উন্নয়ন কার্যক্রম বাস্তবায়নের জন্য আরো ২৯৩ কোটি টাকা চাওয়া হয়েছে। মন্ত্রণালয় থেকে ইতিবাচক সাড়া আছে উল্লেখ করে বলেন, এবিষয়ে কথা বলার জন্য চসিকের প্রশাসক মন্ত্রণালয়ে যাবেন। টাকা পাওয়া যাবে।
পূর্বকোণ/এএ

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 138 People

সম্পর্কিত পোস্ট