চট্টগ্রাম শুক্রবার, ০৫ জুন, ২০২০

জটিলতায় থমকে আছে আইসিইউ বেড স্থাপন
জটিলতায় থমকে আছে আইসিইউ বেড স্থাপন

১৮ এপ্রিল, ২০২০ | ৬:৫১ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

দু’একদিনের মধ্যেই মিলবে আইসিইউ সেবা

অবশেষে চট্টগ্রামের করোনা রোগীদের জন্য চালু করা হচ্ছে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্র (আইসিইউ)। ইতোপূর্বে চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে আসা ভেন্টিলেটরসহ দশটি নতুন আইসিইউ শয্যার কাজ প্রায় ৯০ শতাংশ শেষ হয়েছে। রবিবারের মধ্যে বাকি দশ শতাংশ কাজ শেষে আগামী সোমবার-মঙ্গলবার তা পরীক্ষামূলকভাবে চালু করা হবে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা। এরপরেই করোনা আক্রান্ত রোগীরা পুরোপুরি আইসিইউ সুবিধা পাবেন বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।

এদিকে, করোনার এ পরিস্থিতিতে দ্রুত সময়ের মধ্যে হাসপাতালটির স্টোর রুমে দীর্ঘদিন পড়ে থাকা আরও আটটি আইসিইউ শয্যাও বসানোর জন্য স্বাস্থ্য দপ্তর থেকে মৌখিক নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য বিভাগ। তবে লিখিত পত্র হাতে পাওয়া মাত্রই তার স্থাপনের কাজ শুরু করতে চায় স্থানীয় স্বাস্থ্য বিভাগ।

এর আগে গত ৭ এপ্রিল চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালের জন্য দশটি ভেন্টিলেটরসহ আইসিইউ শয্যা পাঠানো হয়। এরপর তা বসানোর কাজ শুরু করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। ইতোমধ্যে শয্যা বসনোসহ প্রায় ৯০ শতাংশ কাজ শেষ হয়েছে। তবে সেন্ট্রাল অক্সিজেন কর্ণার না থাকলেও আপাতত সিলিন্ডার অক্সিজেন দিয়েই আইসিইউ সেবা নিশ্চিত করা হবে বলে জানিয়েছেন জেলা সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বি। তিনি এ প্রসঙ্গে পূর্বকোণকে বলেন, ‘মূল কাজ ইতোমধ্যেই শেষ হয়েছে। বাকি সামান্য কিছু কাজ বাকি আছে। তা রবিবারের মধ্যেই সম্পন্ন হবে বলে আশাবাদ। এরপর সোমবার অথবা মঙ্গলবার পরীক্ষামূলকভাবে চালু করে ত্রুটিবিচ্যুতি দেখা হবে। তারপরেই রোগীদের সেবা দিতে তা ব্যবহার করা যাবে।’

এদিকে, মামলার কারণে হাসপাতালটিতে পড়ে থাকা আটটি আইসিইউ সরঞ্জাম বসানোর জন্য স্বাস্থ্য দপ্তর থেকে নির্দেশনা পেয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। এর আগে গত ১২ এপ্রিল পড়ে থাকা এসব আইসিইউ শয্যা স্থাপনের বিষয়ে স্বাস্থ্য সচিবের কাছে তা স্থাপনের সমাধান চেয়ে চিঠি ইস্যু করেন হাসপাতালটির তত্ত্বাবধায়ক ডা. অসীম কুমার নাথ। পরিস্থিতি বিবেচনায় মৌখিকভাবে তা দ্রুত স্থাপনের জন্য অনুমতি দেওয়া হয়। একই সাথে স্থানীয়ভাবে প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম ক্রয় করে তা স্থাপন করতেও বলা হয় বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্র।

স্বাস্থ্য দপ্তর চট্টগ্রাম বিভাগীয় পরিচালক ডা. হাসান শাহরিয়ার কবীর এ প্রসঙ্গে পূর্বকোণকে বলেন, ‘নতুন দশটি শয্যার সাথে আগের আটটি শয্যা সংযুক্ত করতে মৌখিকভাবে উচ্চ পর্যায় থেকে জানানো হয়েছে। কিন্তু অফিসিয়াল কোন চিঠি এখন পর্যন্ত আমরা পাইনি। মন্ত্রণালয় থেকে যদি তার অনুমতির কপি হাতে আসে, তাহলে সাথে সাথেই ওই আটটি শয্যার কাজও আমরা শুরু করে দিব।’

প্রসঙ্গত: গত পাঁচ বছর আগে জেনারেল হাসপাতালটির জন্য কেনা হয় আটটি আইসিইউ সরঞ্জাম। কিন্তু কেনার কিছুদিন পর কেনা-কাটা নিয়ে দুর্নীতির অভিযোগ ওঠে। যা নিয়ে দুদকের অনুসন্ধানের পর মামলা দায়ের হয়। মামলা চলমান থাকায় এসব সরঞ্জাম স্থাপন হয়নি। তবে করোনার পরিস্থিতিতে চট্টগ্রামের আইসিইউ ব্যবস্থা নিয়ে পূর্বকোণসহ বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে একাধিক প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। যার প্রেক্ষিতে এই আটটি আইসিইউ শয্যা ব্যবহারের অনুমিত আসে।

 

 

 

 

The Post Viewed By: 245 People

সম্পর্কিত পোস্ট