চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩

২২ মে, ২০১৯ | ২:২৭ পূর্বাহ্ণ

৬ দিনে নকশা অনুমোদন

সিডিএ’র অনলাইনে অটোমেশন
এখন থেকে গ্রাহকেরা আবেদন কোন
পর্যায়ে আছে তা মোবাইলে প্রেরিত
নম্বরের মাধ্যমে জানতে পারবেন
অনলাইনে অটোমেশন কার্যক্রম চালুর পর মাত্র ছয় কর্ম দিবসে নির্মাণ ও ভূমি ব্যবহার ছাড়পত্র অনুমোদন দিয়েছে চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (সিডিএ)। নতুন পদ্ধতিতে প্রথম আবেদন করেন সাতকানিয়ার বাসিন্দা মোহাম্মদ আবু সুফিয়ান। তিনি সিডিএর কল্পলোক আবাসিকে এ-২২ নম্বর প্লটে ১০ তলা ভবন নির্মাণে অনুমতির আবেদন করেন চলতি মাসের ৪ তারিখ। -বাংলানিউজ
ইমারত নির্মাণ কমিটির চেয়ারম্যান ও সিডিএ’র প্রধান নগর পরিকল্পনাবিদ স্থপতি শাহীনুল ইসলাম খান বাংলানিউজকে বলেন, অটোমেশন পদ্ধতির প্রথম আবেদনটি ছয় কর্মদিবসের মধ্যে অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। তিনি বলেন, এ পদ্ধতিতে গ্রাহকরা সিডিএতে না এসে ঘরে বসে অনলাইনে ভূমি ব্যবহার ছাড়পত্র ও ভবন নির্মাণ অনুমোদনের আবেদন করতে পারবেন এবং অনলাইনেই তাদের আবেদন নিষ্পত্তি করা হবে। ‘এখন থেকে চার ধাপে অনুমোদন প্রক্রিয়া সম্পন্ন হবে। এক্ষেত্রে ভূমি ব্যবহারের ছাড়পত্রের জন্য ১৫ দিন, নির্মাণ অনুমোদনের জন্য ২৫ দিন ও ভেরিফিকেশনের ৩ দিনসহ মোট ৩৮ দিন সময় লাগবে। এ ছাড়া প্রযোজ্য ক্ষেত্রে বৃহদায়তন ও বিশেষ প্রকল্পের জন্য ১৫ দিন সময় লাগবে।’পাশাপাশি গ্রাহকেরা আবেদন কোন পর্যায়ে আছে তা আবেদন নম্বর ও মোবাইলে প্রেরিত নম্বরের মাধ্যমে জানতে পারবেন। এ ছাড়া নথির অবস্থান এসএমএস কিংবা ইমেইলের মাধ্যমে জানা যাবে বলে স্থপতি শাহীনুল

ইসলাম খান জানান। তিনি বলেন, আবেদন প্রক্রিয়ায় ভুল-ত্রুটি থাকলে সংশোধনের সুযোগ থাকবে। আবেদনের সময় যেসব কাগজপত্রের হার্ড কপি সিডিএতে জমা দিতে হতো, সেসব কাগজ সফট কপি অনলাইনেই জমা দিয়ে সেবা পাওয়া যাবে।
ইমারত নির্মাণ কমিটির চেয়ারম্যান শাহীনুল ইসলাম খান বলেন, ‘প্রতি মাসে দুই বার আবেদন জমা নেওয়া হবে। নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে আবেদন নিষ্পত্তি করা হবে। কোনো আবেদন ঝুলিয়ে রাখা হবে না।’
এর আগে ৬ মে ই-সেবার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন সিডিএ চেয়ারম্যান এম. জহিরুল আলম দোভাষ। তখন সিডিএ চেয়ারম্যান বলেছেন, জনগণের ভোগান্তি লাঘবে এ পদ্ধতি চালু করা হয়েছে। আশাকরি সিডিএতে সেবা নিতে এসে কেউ ভোগান্তির শিকার হবেন না।

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট