চট্টগ্রাম বুধবার, ১৯ ফেব্রুয়ারী, ২০২০

সর্বশেষ:

১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ | ৬:৪৯ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

মেয়র প্রার্থী নিয়ে একের পর এক গুঞ্জন

চসিক নির্বাচন ফরম নিলেন আরো ৪ জন

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন (চসিক) নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী নিয়ে আলোচনা এবং গুঞ্জন একেক সময় একেক দিকে বাঁক নিচ্ছে। একেক সময় একেকজন আলোচনায় আসছেন। গতকাল মনোনয়ন ফরম বিক্রির শেষ দিনে মেয়র পদে আরো চার জন ফরম সংগ্রহ করেছেন। প্রাচ্যের রাণীর নগর পিতা হতে মনোনয়ন দৌড়ে আওয়ামী লীগের সর্বমোট ১৯ জন ফরম কিনেছেন। অপরদিকে, কাউন্সিলর হিসেবে দলীয় সমর্থন পেতে ফরম কিনেছেন ৪০৬ জন। ফরম বিক্রি বাবদ আওয়ামী লীগের আয় হয়েছে ৪৫ লাখ ৩৫ হাজার টাকা। গত ১০ ফেব্রুয়ারি থেকে আওয়ামী লীগ মনোনয়ন ফরম বিক্রি শুরু করে। এর আগে থেকেই সম্ভাব্য প্রার্থীরা যে যার মত চেষ্টা তদবির করে নিজের দলীয় মনোনয়ন নিশ্চিত করার চেষ্টা করেছেন। ফরম বিক্রির কিছু দিন আগে আলোচনায় ছিলেন, শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল। তবে তিনি নিজ থেকে মনোনয়ন চাওয়ার কথা কোথাও বলেননি। এরপর আলোচনায় আসেন বর্তমান মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন। অনেকেই বলাবলি করছিলেন বর্তমান মেয়র দ্বিতীয়বারের মনোনয়ন নিশ্চিত করে ফেলেছেন। কিন্তু দলীয় মনোনয়ন ফরম বিক্রি শুরু হওয়ার পর থেকেই গুঞ্জন একেক সময় একেক দিকে বাঁক নিচ্ছে। কেউ কেউ নগর আওয়ামী লীগের সহসভাপতি খোরশেদ আলম সুজনকে নিয়ে আশাবাদীর কথা বলেছেন। দলের জন্য সবসময় সরব এই নেতা দীর্ঘ দিনের বঞ্চনার অবসান ঘটতে যাচ্ছে বলে আলোচনায় উঠে আসে। এর মধ্যে সাবেকমন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসি এবং তার ছেলে মুজিবুর রহমানের মনোনয়ন ফরম ক্রয় আলোচনার মোড় ঘুরিয়ে দেয়। সিডিএ’র সাবেক চেয়ারম্যান আবদুচ ছালাম ফরম নিয়েছেন ১২ ফেব্রুয়ারি। সেদিন তাকে নিয়ে বেশ আলোচনা হয়েছে নগরজুড়ে। আবার সাবেক মেয়র এম মনজুর আলম ফরম কেনার খবর ছড়িয়ে পড়লে আলোচনা সেদিকে মোড় নেয়। দীর্ঘ দিন রাজনীতি থেকে দূরে থেকে সাবেক মেয়র তলে তলে হয়তো সবকিছু ঠিক করেই ফরম কিনেছেন বলে তাঁর শুভাকাক্সিক্ষদের ধারণা। তবে গতকাল চট্টগ্রাম চেম্বার সভাপতি মাহাবুবুল আলম ফরম ক্রয় করার পর আলোচনায় নতুন মাত্রা যোগ হয়েছে। ঢাকায় যেমন ব্যবসায়ী নেতা আতিকুল ইসলামকে মনোনয়ন দেয়া হয়েছে। চট্টগ্রামেও একই ধরনের সিদ্ধান্ত আসতে যাচ্ছে ? এমন আলোচনায় চায়ের কাপে ঝড় উঠছে বন্দর নগরীতে। সব জল্পনা-কল্পনার অবসান হবে আজ। আজ শনিবার সন্ধ্যা ৭টায় সব সম্ভাব্য প্রার্থী গণভবনে যাবেন। সেখানেই ঘোষণা হতে পারে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থীর নাম।

গতকাল শেষ দিনে মেয়র পদে ফরম কিনেছেন চার জন। তারা হলেন চট্টগ্রাম চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজের সভাপতি মাহাবুবুল আলম, ডা. আফছারুল আমীন এমপি’র ছোট ভাই এরশাদুল আমীন, ব্যারিস্টার মনোয়ার হোসেন এবং ৩২ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ নেতা দীপক কুমার পালিত। অপরদিকে, ৪১টি ওয়ার্ডে কাউন্সিলর হিসেবে দলীয় সমর্থন পেতে দলীয় ফরম নিয়েছেন ৪০৬ জন।

মেয়র পদে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করা বাকি ১৫ জন হলেন, নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বর্তমান মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন, সহ-সভাপতি সাবেক মন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসি, এ কে এম বেলায়েত হোসেন, খোরশেদ আলম সুজন, ও আলতাফ হোসেন চৌধুরী বাচ্চু, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম চৌধুরী, সিডিএ’র সাবেক চেয়ারম্যান ও নগর কমিটির কোষাধ্যক্ষ আবদুচ ছালাম, সাবেক মেয়র এম মনজুর আলম, মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলা পরিষদের আহ্বায়ক মো. ইউনুস, সাবেক মন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসির ছেলে মুজিবুর রহমান, সাবেক প্যানেল মেয়র রেখা আলম, মেজর (অব.) এমদাদুল ইসলাম, সদ্যপ্রয়াত চট্টগ্রাম-৮ আসনের সাংসদ মাইনুদ্দিন খান বাদলের স্ত্রী সেলিনা খান, মরহুম জননেতা জহুর আহমদ চৌধুরীর পুত্র হেলাল উদ্দিন চৌধুরী তুফান এবং মো. ইনসান আলী।

এদিকে আওয়ামী লীগের সংসদীয় বোর্ড ও সংগঠনের স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন বোর্ডের যৌথসভা আজ শনিবার সন্ধ্যা ৭টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা’র সরকারি বাসভবন গণভবনে অনুষ্ঠিত হবে। সভায় সভাপতিত্ব করবেন আওয়ামী লীগ সংসদীয় বোর্ড ও স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন বোর্ডের সভাপতি এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়–য়া স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়।

The Post Viewed By: 122 People

সম্পর্কিত পোস্ট