চট্টগ্রাম শনিবার, ১৬ জানুয়ারি, ২০২১

সর্বশেষ:

২১ মে, ২০১৯ | ২:৫০ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

বিএনপি নেতাদের উদ্দেশে কর্নেল অলি

প্রেসক্লাব আর মঞ্চে বক্তব্য দিলে চলবে না, মাঠে নামতে হবে

খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে হলে ঘরে বসে থাকলে চলবে না মন্তব্য করে লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি (এলডিপি)’র চেয়ারম্যান ও সাবেক মন্ত্রী কর্নেল (অব.) অলি আহমদ বলেছেন, শুধু প্রেসক্লাব আর মঞ্চে বক্তব্য দিলে চলবে না, মাঠে নামতে হবে। ঐক্যবদ্ধ হয়ে আন্দোলন করে খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে হবে। বসে থাকলে হবে না, আমাদেরকে এগিয়ে যেতে হবে।
বিএনপি নেতাদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আমরা উদ্যোগ নিয়েছি, হয় আপনারা ভালোভাবে নেতৃত্ব দেন, না হলে আমার নেতৃত্ব গ্রহণ করুন। বিএনপি যদি নেতৃত্ব দেয়, সে নেতৃত্ব যদি জনগণ গ্রহণ করে তাহলে আমরা কাজ করবো। না হলে আমার নেতৃত্ব গ্রহণ করুণ, আমার কথা মতো কাজ করুন। আমি বিএনপিকে নেতৃত্ব দিতে প্রস্তুত আছি।
গতকাল সোমবার নগরীর কাজীর দেউড়ি টাইম স্কয়ার কনভেনশন সেন্টারে এলডিপি চট্টগ্রাম উত্তর-দক্ষিণ ও নগর আয়োজিত ইফতার মাহফিল ও আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
কর্নেল অলি আহমেদ বলেন, তারেক রহমানের পক্ষে লন্ডনে বসে সক্রিয়ভাবে মাঠে থাকা সম্ভব নয়। অন্যদিকে বেগম খালেদা জিয়ার পক্ষে জেলে থেকে দলকে নির্দেশ দেওয়া সম্ভব না। সুতরাং দেশের দায়িত্ব নিতে হবে আমাদেরকেই। আপনাদের নেতৃত্ব দেওয়ার জন্য আমি প্রস্তুত আছি, আমার নেতৃত্বে আসতে হবে তাও না, আপনাদের মধ্যে যদি কেউ নেতৃত্ব দিতে পারেন, তারা নেতৃত্ব দেন।
বিএনপি সংসদে যোগ দিয়ে অবৈধ সরকারকে বৈধতা দিয়েছে মন্তব্য করে অলি আরও বলেন, দলের ভেতর কিছু কিছু নেতা আছেন যারা দালালি করে সরকারের কাছ থেকে টাকা নিয়েছেন। অনেকেই একটি নির্দিষ্ট বাসায় বসে সরকারের কাছ থেকে দুই কোটি টাকা করে নিয়ে আমাদেরকে নির্বাচনে রাখার জন্য ঐক্যবদ্ধ ছিল। এ দালালদের কারণে আজ দলের এমন অবস্থা। এই অবস্থায় বিএনপির লোকেরা শুট-টাই পরে সংসদে গিয়ে আত্মসমর্পণ করে এই সরকারকে বৈধতা দিয়েছে। এর থেকে লজ্জার বিষয় আর কিছু হতে পারেনা।
মধ্যবর্তী নির্বাচনের জন্য সরকারকে বাধ্য করা হবে উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছি আগামী তিন মাসের মধ্যে দেশের প্রতিটি জেলায় সফর করবো এবং জনগণকে সচেতন করবো। এভাবে একটা দেশ চলতে পারে না। রক্ত দিয়ে দেশ স্বাধীন করেছি। দেশবাসীকে অনিশ্চয়তার মধ্যে রেখে যেতে চাইনা। বাপের সম্পত্তি মনে করে কেউ দেশকে লুটপাট করে থাকে তা হতে পারে না।
অর্থনীতিতে যে কোন সময় ধস নামবে: দেশের অর্থনীতিতে যে কোন সময় ধস নামতে পারে মন্তব্য করে কর্নেল অলি আহমদ বলেন, বর্তমানে দেশের কৃষকরা তাদের মাঠের ধান ঘরে উঠাতে পারছে না। কৃষকরা যে কি কষ্টে আছে, তা এতে বোঝা যায়। দিন দিন ডলারের দাম বেড়ে যাচ্ছে। যেকোন সময় ব্যাংকিং ব্যবস্থাতেও ধস নামতে পারে উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, দেশে যতগুলো ব্যাংক রয়েছে তা ১৮ কোটি লোকের প্রয়োজন ছিল না। বাংলাদেশ ব্যাংকে ৭ লক্ষ হাজার কোটি টাকা থাকার কথা থাকলেও ৩ লক্ষ হাজার কোটি টাকাও নাই। বাকি টাকা সব উদাও হয়ে গেছে। জনগণের গচ্ছিত টাকা নিয়ে কেউ মালয়েশিয়া, কেউ কানাডা-সিঙ্গাপুর চলে যাচ্ছে।
সরকারের সাথে জনগণের কোন সম্পৃক্ততা নেই: গত নির্বাচনে কিভাবে ভোট হয়েছে তা দেশের প্রত্যেক মানুষ দেখেছে। নির্বাচনে প্রার্থী ছিল আওয়ামী লীগ আর ভোটার ছিল পুলিশ-বিজিবি-র‌্যাব। এ নির্বাচনে ভোটের সাথে সাধারণ জনগণের কোন সম্পৃক্ততা ছিল না। এখন যারা এমপি আছে তারা পুলিশ প্রশাসনের এমপি, জনগণের এমপি নয়। বর্তমান সরকারের সাথে সাধারণ জনগণের কোন সম্পৃক্ততা নেই। কীভাবে চাঁদাবাজি দুর্নীতি হয়েছে অন্ধকারে ভোট হয়েছে তা দেশের জনগণ দেখেছে। এটা নজিরবিহীন ঘটনা।
চট্টগ্রাম উত্তর জেলা এলডিপি’র সভাপতি ও সাবেক সংসদ সদস্য নুরুল আলম তালুকদারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন দক্ষিণ জেলা এলডিপি’র সভাপতি এডভোকেট কফিল উদ্দিন চৌধুরী, নগর বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি আবু সুফিয়ান, নগর বিএনপির সাবেক সা. সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম, দক্ষিণ জেলা বিএনপির যগ্ম সা. সম্পাদক কামরুল ইসলাম, উত্তর জেলার সা. সম্পাদক এস. এম. নিজাম উদ্দিন হারুন, উত্তর জেলা কল্যাণ পার্টির সভাপতি দিদারুল আলম প্রমুখ।

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 216 People

সম্পর্কিত পোস্ট