চট্টগ্রাম শনিবার, ১৩ আগস্ট, ২০২২

সর্বশেষ:

২১ মে, ২০১৯ | ২:২৭ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব সংবাদদাতা , সীতাকু-

সংবাদ সম্মেলনে প্রতিকার দাবি গ্রাহকের

সীতাকু-ে ১২৪ ইউনিটের বিদ্যুৎ বিল ৬২ হাজার টাকা!

সীতাকু-ে এক গ্রাহককে ১২৪ ইউনিটের বিদ্যুৎ বিল দেওয়া হয়েছে ৬২,৬৭১ টাকা। আবার এই টাকা না দিলে তার বিরুদ্ধে মামলা দেবার হুমকি দিয়েছেন বিদ্যুৎ কর্মকর্তারা। এতে চরম বিপাকে পড়ে ঐ গ্রাহক সংশ্লিষ্ট দপ্তরগুলোতে অসংখ্য বার ধর্ণা দিলেও কোন প্রতিকার মিলছে না। গতকাল সোমবার দুপুর ১২টায় সীতাকু- প্রেসক্লাবে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এই অভিযোগ করেছেন সীতাকু- পৌরসদরের সনি জুয়েলার্সের মালিক শিবু চন্দ্র ধর। লিখিত বক্তব্যে তিনি জানান, তার ব্যবহৃত মিটার নং ৫০০৭০৪ । ২০১২ সাল থেকে এই মিটার ব্যবহার করলেও ২০১৪ সাল থেকে ব্যবসা অন্যত্র সরিয়ে নেওয়ায় দোকানটি বন্ধ থাকছে। এ অবস্থাতে গত বছরের ১২ জুন তার কাছে একটি বিল আসে। এতে দেখা যায় মাত্র ১২৪ ইউনিটের বিল ধরা হয়েছে ৬২,৬৭১ টাকা। কিন্তু গ্রাহক শিবুর দাবি হিসাব করে দেখা গেছে বিদ্যুৎ বিভাগ ১২৪ ইউনিট দাবি করলেও যোগ বিয়োগ শেষে দেখা যায় আসলে তারা পাবেন মাত্র ১৭ ইউনিট। যার বিল দিয়েছে ৬২,৬৭১ টাকা! যা দিতে রাজি না হয়ে তিনি বাড়বকু- পিডিবি অফিস ও আগ্রাবাদ অফিসে যোগাযোগ করে উল্টো হয়রানির স্বীকার হয়েছেন। এই টাকা পরিশোধ না করায় কর্তৃপক্ষ তার কাছ থেকে আর পরবর্তী বিলগ্রহণ করছে না। তার বিরুদ্ধে মামলার হুমকি দিচ্ছে। তাই তিনি সাংবাদিকদের মাধ্যমে এই ভৌতিক বিল থেকে রক্ষায় যথাযথ কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেন। সংবাদ সম্মেলনে ব্যবসায়ীদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সুনাল দাশ সুনীল, বিমল কুমার ধর, জিবলু ধর প্রমুখ।
এদিকে বিদ্যুতের এই অনিয়ম বিষয়ে জানতে চাইলে সীতাকু-ের বাড়বকু- পিডিবির উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী পলাশ ভৌমিক বলেন, এই বিষয়টি নিয়ে আগ্রাবাদ ও বাড়বকু- অফিস যৌথ কমিটি করে তদন্ত করেছে। সেই কমিটি এই বিলটি বহাল রেখেছে। তাই এই বিলটিই উনাকে দিতে হবে। এ বিষয়ে আমাদের কিছু করার নেই।

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট