চট্টগ্রাম শুক্রবার, ১২ আগস্ট, ২০২২

সর্বশেষ:

২১ মে, ২০১৯ | ২:১৩ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব সংবাদদাতা, পটিয়া

আলামপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ঝুঁকিপূর্ণ ভবনে পাঠদান

জরাজীর্ণ ভবনে ঝুঁকিপুর্ণভাবে শিক্ষার্থীদের পাঠদান চলছে আলামপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে। ৩টি কক্ষে বীমগুলোতে ফাটল দেখা দেয়ায় যেকোন সময় ভেঙ্গে যাওয়ার আশংকা শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও পরিচালনা কমিটির।
জানাযায়, ১৯২৮ সালে প্রতিষ্ঠিত বিদ্যালয়টির ১৯৯৬ সালে একটি পাকা ভবন নির্মাণ করা হয়। বর্তমানে নতুন ভবনের জন্য সয়েল টেস্টও করা হয়েছে। এখনো টেন্ডার প্রক্রিয়া হয়নি নতুন ভবনের। কখন নতুন ভবন নির্মাণ ও টেন্ডার প্রক্রিয়া করা হবে তা এখনো স্পষ্ট নয়।
এই স্কুলে বর্তমানে শিক্ষার্থী সংখ্যা ৯১জন। যা আগে ছিল প্রায় ২০০জন। ভবনে ফাটল দেখা দেওয়ায় অভিভাবকেরা তাদের সন্তানদের এই স্কুল থেকে অন্য স্কুলে নিয়ে গেছে। ৪ জন শিক্ষকের মধ্যে বর্তমানে রয়েছে ৩ জন।
বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি মৃনাল কান্তি দে জানান, দীর্ঘদিন ধরে ফাটলগুলো দেখা যাচ্ছে। এ অবস্থায় ক্লাস ও শ্রেণী কার্যক্রম চালাতে শিক্ষক-শিক্ষার্থীরাও ভয় পাচ্ছে। শিক্ষক শিক্ষার্থীরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে এখানে ক্লাস করছে। সহসায় নতুন ভবন না হলে যে কোন মুহুর্তে ভবন ধ্বসে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হওয়ার আশংকা দেখা দিয়েছে।
ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক সুভাষ দাশ জানান, এ বিদ্যালয়ে পাঠদান অনেক ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে ওঠেছে। শ্রেণী কক্ষের ছাদ পলেস্তারা ও ছাদের বীমগুলোতে বড় বড় ফাটল দেখা দিয়েছে।
এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী প্রকৌশলী বিশ্বজিৎ দত্ত জানান, আলামপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাদের বীমের ফাটল ও ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে। নতুন ভবন বরাদ্দে কাজ করা হচ্ছে।
উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোতাহের বিল্লাহ্ জানান, বিদ্যালয়ে নতুন ভবনের জন্য সয়েল টেস্ট করা হয়েছে। আশাকরি শীঘ্রই নতুন ভবনের জন্য টেন্ডার আহবান করা হবে।

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট