চট্টগ্রাম বুধবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২০

সর্বশেষ:

অলরাউন্ডার রুমানার বিশ্বকাপ ভাবনা

১০ জানুয়ারি, ২০২০ | ৩:২৮ পূর্বাহ্ণ

স্পোর্টস ডেস্ক

অলরাউন্ডার রুমানার বিশ্বকাপ ভাবনা

হাঁটুর চোটে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ বাছাই পর্বে খেলা হয়নি বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দলের কান্ডারি রুমানা আহমেদের। একজন পেশাদার ক্রিকেটার হিসেবে সেটা নিয়ে তার আক্ষেপ আছে। তবে তার সেই আক্ষেপকে স্থায়ী আসন গেঁড়ে বসতে দেননি সতীর্থ সালমা-জাহানারারা। বাছাই পর্বে চ্যাম্পিয়ন হয়ে দেশকে ২২ গজের বিশ্বযুদ্ধের টিকিটি নিশ্চিত করে দিয়েছেন। চোটের সঙ্গে অবিরত লড়াই করে যাওয়া রুমানার ভাবনায় এখন শুধুই বিশ্বকাপ। শুধু খেলার জন্য খেলা নয়, অস্ট্রেলিয়া বিশ্বকাপে উড়ন্ত পারফরম্যান্সে প্রতিভার স্বাক্ষর রাখতে প্রত্যয়ী ডানহাতি এই অলরাউন্ডার। একান্তে আলাপকালে সেকথাই জানালেন লাল সবুজের এই ওয়ানডে দলপতি। জানিয়েছেন বিশ্বকাপকে সামনে রেখে নিজ দলের প্রস্তুতি, নারী দলের দুর্দশাসহ আরো অনেক কিছুই।
প্রশ্ন: অস্ট্রেলিয়ার কন্ডিশনে বিশ্বকাপে ভালো করা কতটা চ্যালেঞ্জিং হবে বলে মনে করছেন?
রুমানা আহমেদ: আমি দুইবার অস্ট্রেলিয়া গিয়েছি। আমার সৌভাগ্যই বলতে হবে। আমি শেষবার যখন মেলবোর্নে গেলাম তখন ওখানকার উইকেট সম্পর্কে ধারণা নিয়ে এসেছি। উইকেট কন্ডিশন যেটা দেখলাম, সম্পুর্ণ ব্যাটিং সহায়ক উইকেট। ব্যাটসম্যানরা যদি দাঁড়াতে পারে তাহলে অনেক রান আসবে। বিগত দিনগুলোতে অস্ট্রেলিয়া ওখানে ম্যাচও খেলেছে। তো ওটা রানের উইকেট। হ্যাঁ, এটা ঠিক যে আমাদের ভালো মানের পেস বোলারের সংখ্যা খুবই সীমিত। তো জাহানারার ওপরে চাপ পড়তে পারে। কিন্তু আমাদের স্পিনাররাও খারাপ না। তারা অবশ্যই যে কোনো উইকেটেই মানিয়ে নিতে পারে।
প্রশ্ন: বাংলাদেশের বিশ্বকাপ প্রস্তুতিটা কেমন হচ্ছে?
রুমানা আহমেদ: বিশ্বকাপের এখন তো আর বেশি বাকি নেই। আমি বলব যে মোটামুটি ভালোই চলছে। প্রস্তুতি ক্যাম্প চলছে। তাছাড়া বিশ্বকাপের জন্য আমরা ম্যাচ পাচ্ছি। আমাদের জন্য এটা ভালো দিক। বিশ্বকাপের আগে ভারতের সঙ্গে আমরা শেষ প্রস্তুতি ম্যাচ খেলব, থাইল্যান্ডও থাকবে সেখানে। তো আমরা যদি ওখানে ভালো করতে পারি তাহলে আমাদের আত্মবিশ্বাস আরও বেড়ে যাবে এবং আমরা বিশ্বকাপেও ভালো খেলতে পারব।
প্রশ্ন: বিশ্বকাপে শুধু অংশগ্রহণ করতে চান নাকি ছাপও রাখতে চান?
রুমানা আহমেদ: অবশ্যই আমরা ছাপ রাখতে চাই। যাদের সাথে খেলিনি তো খেলিনি। আর যাদের সাথে খেলছি তারা আমাদের ভালোভাবেই চেনে। এবং শক্তিশালী দল হিসেবেই জানে। আপনি একটু আগে বললেন গত বিশ্বকাপে আমাদের দল ভালো করেনি। এটা ভুল। আমরা একটা বিভাগে এত ভালো করেছি যে সবার মুখে মুখে ছিল। সবাই আমাদের বোলিং আক্রমনটাকে অন্যভাবে দেখে। এখন পর্যন্ত দেখে। তো একটি বিভাগে আমরা অনেক বেশি এগিয়ে আছি। এবং একটা বিভাগে একটু পিছিয়ে আছি। আমার মনে হয় ব্যাটসম্যানরা যদি আরেকটু দায়িত্বশীল হয় এবং আরেকটু দায়িত্ব নিয়ে কাজ করে তো আমাদের দলটা আরো শক্তিশালী হবে। এবং সবাই আমাদের ভয় করে খেলবে।
২১ ফেব্রুয়ারি থেকে অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠেয় আইসিসি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ‘এ’ গ্রুপে থাকা বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ, অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড, শ্রীলঙ্কা ও ভারত।

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 80 People