চট্টগ্রাম সোমবার, ০৩ আগস্ট, ২০২০

সর্বশেষ:

বিবর্ণ দিনে আঁখির অনন্য কীর্তি

৭ ডিসেম্বর, ২০১৯ | ৪:৩৭ পূর্বাহ্ণ

স্পোর্টস ডেস্ক

বিবর্ণ দিনে আঁখির অনন্য কীর্তি

এসএ গেমসে আরেকটি বিবর্ণ দিন কাটালো বাংলাদেশ। সাঁতারে রোমানা আক্তার পারেননি গতবারের সোনাজয়ী মাহফুজা খাতুন শীলার মতো আলো ছড়াতে। এথলেটিক্সে ব্যর্থতার সেই পুরানো গল্প। গলফ, ভারোত্তোলন, শুটিংয়ে সর্বোচ্চ প্রাপ্তি রূপার হাসি। মলিন দিনে উজ্জ্বল কেবল ১০ মিটার এয়ার পিস্তলে রূপা জেতা আরদিনা ফেরদৌস আঁখি। দক্ষিণ এশিয়ান গেমসের ইতিহাসে বাংলাদেশকে মেয়েদের পিস্তল একক থেকে প্রথম রূপা এনে দিয়েছেন এই শুটার। সাতদোবাতোর ইন্টারন্যাশনাল স্পোর্টস কমপ্লেক্সে গতকাল শুক্রবার ১০ মিটার এয়ার পিস্তলে ২৩৪ দশমিক ৬ স্কোর গড়ে রুপা জিতেন আঁখি। ২৩৮ দশমিক ৪ স্কোর নিয়ে সেরা হন ভারতের পারমানানথাম। প্রতিযোগিতার ষষ্ঠ দিনে সব মিলিয়ে ৭টি করে রূপা ও ব্রোঞ্জ পেয়েছে বাংলাদেশ।

গলফ থেকে চারটি রূপা : গলফের ব্যক্তিগত ও দলীয় ইভেন্ট থেকে চারটি রূপা পেয়েছে বাংলাদেশ। গোকর্না গলফ কোর্সে ছেলেদের ব্যক্তিগত ইভেন্টে মোহাম্মদ ফরহাদ চার রাউন্ড মিলিয়ে পারের চেয়ে ছয় শট কম খেলে রুপা পান। পারের চেয়ে ১৪ শট কম খেলে নেপালের প্রতিযোগী জিতেন সোনা। পুরুষ দলীয় ইভেন্টে বাংলাদেশের ফরহাদ, মো. সম্রাট, মো. শাহাবুদ্দিন ও মো. শফিক ৮৫৬ স্কোর করে রূপা জিতেন। মেয়েদের ব্যক্তিগত ইভেন্টে জাকিয়া সুলতানা রূপা জিতেন ৩১৭ স্কোর করে। দলগত ইভেন্ট থেকে বাংলাদেশের নাসিমা আক্তার, সোনিয়া আক্তার ও জাকিয়া সুলতানা রুপা জিতেন।

ভারোত্তোলনে দুটি রূপা, কাবাডিতে ব্রোঞ্জ : পোখারায় হওয়া মেয়েদের ৭১ কেজি ওজন শ্রেণিতে রোকেয়া সুলতানা সাথী রূপা জিতেছেন। এই ভারোত্তোলক স্ন্যাচ (৭০) ও ক্লিন এন্ড জার্ক (৮৫) মিলিয়ে তুলেছেন ১৫৫ কেজি। ভারতের মানপ্রিত কউর সোনা জিতেছেন।
ছেলেদের ৮৯ কেজি ওজন শ্রেণিতে স্ন্যাচ (১২৩) এবং ক্লিন এন্ড জার্ক (১৪৫) মিলিয়ে ২৬৮ কেজি তুলে রূপা পেয়েছেন শাখায়েত হোসেন। এ ইভেন্টে স্বাগতিক নেপালের বিকাশ থাপা সব মিলিয়ে ২৬৯ কেজি তুলে সোনা জিতেছেন। মেয়েদের কাবাডি এবার হতাশই করেছে। শ্রীলঙ্কাকে ১৭-১৬ ব্যবধানে হারিয়ে ব্রোঞ্জ পেয়েছে বাংলাদেশ। গতবার এ বিভাগে রূপা জিতেছিল মেয়েরা।

ব্যর্থতার বৃত্তে এথলেটিক্স : দশরথ স্টেডিয়ামের ট্র্যাকে ছেলেদের ৪*১০০ মিটার রিলেতে আব্দুর রউফ-শরিফুল-মোহাম্মদ ইসমাইল-হাসান মিয়া ৪২ দশমিক ৩৪ সেকেন্ড সময় নিয়ে চতুর্থ হন। শ্রীলঙ্কা ৩৯ দশমিক ১৪ সেকেন্ড সময় নিয়ে সোনা এবং ভারত ৩৯ দশমিক ৯৭ সেকেন্ড সময় নিয়ে রুপা জিতেছে। মেয়েদের ৪*১০০ মিটার রিলেতে শরিফা খাতুন-সোহাগী আক্তার-তামান্না আক্তার-শিরিন আক্তারে গড়া দল ৪৭ দশমিক ২০ সেকেন্ড সময় নিয়ে ছয় দলের মধ্যে চতুর্থ হয়। এ ইভেন্টে শ্রীলঙ্কা (৪৪ দশমিক ৮৯ সেকেন্ড) সোনা ও ভারত (৪৫ দশমিক ৩৬ সেকেন্ড) রুপা জিতেছে।

সাঁতারে হতাশ করলেন জুনাইনা-রোমানা : মেয়েদের ৪০০ মিটার ইনডিভিজ্যুয়াল মিডলেতে জুনাইনা ৫ মিনিট ২৫.২৩ সেকেন্ড সময় নিয়ে ব্রোঞ্জ জিতেছেন।
এ ইভেন্টে সোনাজয়ী ভারতীয় প্রতিযোগীর টাইমিং ৫ মিনিট ০৩.৩৬ সেকেন্ড। ছেলেদের ১৫০০ মিটার ফ্রিস্টাইলে ফয়সাল আহমেদ ১৭ মিনিট ০০.৩৩ সেকেন্ড সময় নিয়ে ব্রোঞ্জ জিতেছেন ফয়সাল আহমেদ। এ ইভেন্টে সোনাজয়ী ভারতের প্রতিযোগী সময় নেন ১৫ দশমিক ০৮.৮৩ মিনিট।
ফেন্সিংয়ে তিনটি ব্রোঞ্জ : ভারতের এথলেটদের সঙ্গে কোনো লড়াইয়ে পেরে ওঠেনি বাংলাদেশ। ছেলেদের ইপে ইভেন্টে মোহাম্মদ ইমতিয়াজ, সাবরে ইভেন্টে ইফতেখার আলম বিপুল ও মেয়েদের ফয়েল একক ইভেন্টে মাহিমা আক্তার মৌ ব্রোঞ্জ পান। তিনটি বিভাগেই সোনা ও রুপা জিতেছে ভারতের প্রতিযোগীরা।

The Post Viewed By: 160 People

সম্পর্কিত পোস্ট