চট্টগ্রাম সোমবার, ২৩ নভেম্বর, ২০২০

৭ মে, ২০১৯ | ১২:৩৫ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব ক্রীড়া প্রতিবেদক

রানার্স আপ নওজোয়ান

কনফিডেন্স সিমেন্ট ক্রিকেটের শিরোপা মোহামেডানের ঘরে

‘যারা জিতবে তারাই চ্যাম্পিয়ন’- কনফিডেন্স সিমেন্ট প্রথম বিভাগ ক্রিকেট লিগের সুপার ফোরের শেষের এমনই সমীকরণের ম্যাচে একেবারে অনায়াসে জয়ে শিরোপা ঘরে তুললো মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব। গতকাল এমনই এক ম্যাচে এসে হটাৎ করেই অন্যরকম হয়ে যাওয়া আগ্রাবাদ নওজোয়ান ক্লাবের নওজোয়ান’রা মাত্র ৯২ রানে অল-আইট হয়ে একেবারেই চুপসে যায়। এম এ আজিজ স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত এ ম্যাচটিতে ৪ উইকেট হারিয়ে জয় তুলে নেয় মোহামেডান। এ জয়ের সুবাদে আগামী মওসুম থেকে প্রিমিয়ার ক্রিকেট লিগে খেলার যোগ্যতা অর্জন করলো এবং রানার্স আপ হলো নওজোয়ান ক্লাব। সংক্ষিপ্ত স্কোর: নওজোয়ান: ৯২/১০/৪১.৩ ওভার ও মোহামেডান: ৯৩/৪/২২.৩ ওভার।
গতকালের ম্যাচে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার জন্য যেভাবে খেলতে হয় তার ছিটেফোটাও ছিলনা নওজোয়ানের খেলোয়াড়দের মধ্যে। টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করে মাত্র ৯২ রানে অল-আউট হয়। এ স্কোর আরো ছোট হতে পারতো, যখন দলটি চরম ব্যার্টিং ব্যর্থতায় ৬, ২৩, ২৬, ২৬, ৩০ ৩০ ও ৪৮ রানে ৭টি এবং ৫৪ রানে ৮ম উইকেট হারিয়ে থরথর করে কাঁপছিলো। এই বুঝি শেষ হলো নওজোয়ানের ইনিংস। কিন্তু হটাৎ করেই ৯বম উইকেটে ৩৭ রানের একটা অবিশ^াস্য ইনিংস খেলে ফেলেন ইমরান বিন সিরাজ (২৬/১চার) ও নাইমুল ইসলাম (১৬/২চার)। এর ফলে শেষ পর্যন্ত ৯২ রানে গিয়ে থামে নওজোয়ানের রানের চাকা। অন্যান্যের মধ্যে ইশতিয়াক আহমেদ ১৫ (৩চার) ও শরীফ আহমেদ ১০ (২চার) করেন। অতিরিক্ত ছিল ১০ রান। মোহামেডানের ৩ সফল বোলার তৌহিদুল ইসলাম ১১, টকি উদ্দিন ১৫ ও হাফিজুর রহমান ১৫ রানে প্রত্যেকে ৩টি করে উইকেট নেন। এছাড়া মি. তাহবিজ ৯ রানে ১ উইকেট নেন। জবাবী ইনিংসে মোহামেডান ৪ উইকেট হারালেও ফরহানের অপরাজিত ৬২ রানের উপর ভর করে শিরোপা ঘরে তোলে। তার ইনিংসে মাত্র বলে ১০টি চার ও ১টি ছক্কার মার ছিল। নওজোয়ানের নাভিদ অনীক ২৯ ও রাসিফ উদ্দিন ৩০ রানে ২টি করে উইকেট নেন। উল্লেখ্য এক সময় প্রিমিয়ারেই খেলতো এই মোহামেডান। কিন্তু রেলিগেটেড হয়ে বেশ কয়েকবছর প্রথম বিভাগে হাবুডুবু খেয়ে এবারে আবারো প্রিমিয়ারে খেলার টিকিট পায়। এ দল চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পেছনে কোচ হিসেবে নিরলস পরিশ্রম করেছেন দলের কোচ মো. ফিরোজ খান। সবসময় দলের খবরাখবর নিয়েছেন, অতিরিক্ত সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ ইউসুফ, ক্লাবের ক্রিকেট চেয়ারম্যান মো. মহসিন ও সম্পাদক মো. বোরহান উদ্দিন। এছাড়া পেছন থেকে দলগঠন থেকে শুরু করে বিভিন্ন কাজে প্রেরণা জুগিয়েছেন দলের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ শাহাবুদ্দিন শামীম ও সাংগঠনিক সম্পাদক বিশিষ্ট ক্রিকেট বোদ্ধা আলহাজ আলী আব্বাস। এতে সমন্বয়কারি হিসেবে সহযোগিতা করেছেন তৌহিদুল ইসলাম। খেলা শেষে সিটি মেয়র আ.জ.ম নাছির উদ্দীন প্রধান অতিথি হিসেবে চ্যাম্পিয়ন ট্রফি তুলে দেন। অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের সভাপতি ও চট্টগ্রাম বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থার সহ-সভাপতি আলহাজ্ব আলী আব্বাস। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সিজেকেএস এর অতিরিক্ত সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব সৈয়দ শাহাবুদ্দীন শামীম, নির্বাহী সদস্য আ.ন.ম. ওয়াহিদ দুলাল, নির্বাহী সদস্য ও ক্রিকেট সম্পাদক আবদুল হান্নান আকবর, নির্বাহী সদস্য মোহাম্মদ ইউসুফ, সিজেকেএস কাউন্সিলর এস.এম. শহীদুল ইসলাম, মকসুদুর রহমান বুলবুল, সৈয়দ গিয়াস উদ্দিন মাহমুদ হেলাল, দিদারুল আলম মাসুম ও মো. দিদারুল আলম প্রমূখ।

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 281 People

সম্পর্কিত পোস্ট