চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০

সর্বশেষ:

ধারাবাহিকতাই বড় চ্যালেঞ্জ : মুশফিক

১৪ মার্চ, ২০২০ | ২:১০ পূর্বাহ্ণ

স্পোর্টস ডেস্ক

‘আবাহনী ২-৩ নম্বর হওয়ার জন্য দল গড়ে না’

ধারাবাহিকতাই বড় চ্যালেঞ্জ : মুশফিক

ব্যাট-বলের দারুণ দাপট দেখিয়ে তিন ফরম্যাটেই জিম্বাবুয়েকে হোয়াইটওয়াশ করেছে বাংলাদেশ। এমন দুর্দান্ত পারফরম্যান্স পরবর্তী সিরিজগুলোতে কাজে লাগবে বলে মনে করেন মুশফিকুর রহিম। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে জয়ের এই ধারা ধরে রাখার তাগিদ অনুভব করছেন বাংলাদেশের এই অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান। ক’দিন পড়েই তৃতীয় দফা পাকিস্তান সফরে যাওয়ার কথা রয়েছে বাংলাদেশের। যদিও সফরটি নিয়ে শঙ্কা রয়েছে। এরপর আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজ খেলবে টাইগাররা। সেখানেও ধারাবাহিকতা ধরে রাখার লক্ষ্য মুশফিকের। এ প্রসঙ্গে মুশফিক বলেন, ‘আমাদের পরবর্তী চ্যালেঞ্জ পাকিস্তান সফর, তারপর আয়ারল্যান্ড। তাছাড়াও এ মাসের ১৫ তারিখ থেকে আমাদের ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ শুরু হবে। আমাদের মানসিকতার অনেক পরিবর্তন হয়েছে। তার প্রতিফলন আমরা মাঠে পেয়েছি। তো এটা যেন আমরা ধরে রাখতে পারি সেটা একটা বড় চ্যালেঞ্জের বিষয়। ইনশাআল্লাহ সেটার চেষ্টা থাকবে।’ ২০২৩ বিশ্বকাপ পর্যন্ত বাংলাদেশ দলে নিজের জায়গা ধরে রাখতে চান মুশফিক। আপাতত এই বিশ্ব আসর নিয়ে ভাবছেন না এই উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান। এ বিষয়ে চিন্তার ভার টিম ম্যানেজমেন্ট এবং কোচিং স্টাফদের উপর ছেড়ে দিয়েছেন তিনি। মুশফিকের ভাষ্য, ‘২০২৩ সালের বিশ্বকাপের এখনো অনেক দেরি। সেই বিষয়ে কোচিং স্টাফ আছে, টিম ম্যানেজমেন্ট আছে তাঁরা পরিকল্পনা করছে। আমি চেষ্টা করছি সেই অনুযায়ী কাজ করে বিশ্বকাপ দলের একজন সদস্য হতে।’ ওয়ানডেতে শক্তিশালী দল হিসেবে নিজেদের প্রতিষ্ঠিত করেছে বাংলাদেশ। সেই তুলনায় টি-টোয়েন্টিতে নিজেদের প্রমাণ করতে পারেনি টাইগাররা। মুশফিক মনে করেন জিম্বাবুয়ে সিরিজের ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে পারলে এই ফরম্যাটেও শক্তিশালী দল হিসেবে নিজেদের প্রতিষ্ঠিত করতে পারবে বাংলাদেশ।
এদিকে ডিপিএল বর্তমান চ্যাম্পিয়ন আবাহনীর অধিনায়কত্ব করবেন মুশফিকুর রহিম। কথা বলেন নিজের ক্লাব প্রসঙ্গেও। সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে আলাপকালে বাংলাদেশের এই অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান জানিয়েছেন, আবাহনী সব সময়ই শিরোপা জয়ের লক্ষ্যে দল গড়ে। তারা কখনোও ২-৩ নম্বর হওয়ার জন্য দল করে না। এ প্রসঙ্গে মুশফিক বলেন, আমি অনেক জায়গা থেকেই শুনেছি এবারের ডিপিএলের ৬-৭টা টিম খুব ব্যালেন্সড টিম। বলতে পারবেন না কোন একটা বা দুইটা টিম যাবে। শীর্ষ ছয়ে কোন দলগুলো যাবে এটা বলা কঠিন। আবাহনী কখনও দল করে না দুই নম্বর বা তিন নম্বর হওয়ার জন্য।’ বাংলাদেশ জাতীয় দলের বেশিরভাগ তারকা ক্রিকেটারই এবার খেলবেন আবাহনীতে। মুশফিক ছাড়াও লিটন কুমার দাস, তাইজুল ইসলাম, আফিফ হোসেন ধ্রুব, নাঈম শেখকে দলে ভিড়িয়েছে আবাহনী। দলটিতে আগের আসরে খেলেছেন নাজমুল হোসেন শান্ত, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত ও মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন। এ ছাড়া যুব বিশ্বকাপজয়ী পেসার তানজিম হাসান সাকিবও খেলবেন দলটিতে। আসন্ন আসরে নিজেদের লক্ষ্যের কথা জানিয়ে মুশফিক বলেছেন, সবসময় চ্যাম্পিয়নশিপের জন্য টিম করে। এবারও ব্যক্তিক্রম হয়নি। চেষ্টা থাকবে প্রথম টপ সিক্সে ঢোকার। এরপর যেন চ্যাম্পিয়নশিপের জন্য ট্রাই করি।’

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 79 People

সম্পর্কিত পোস্ট