চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ২৮ মে, ২০২০

সর্বশেষ:

অধিনায়ক মাশরাফিকে মিস করবে বাংলাদেশ

৭ মার্চ, ২০২০ | ১:২০ পূর্বাহ্ণ

স্পোর্টস ডেস্ক

অধিনায়ক মাশরাফিকে মিস করবে বাংলাদেশ

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে অধিনায়ক হিসেবে যাত্রা শুরু করেছিলেন মাশরাফি বিন মর্তুজা। এরপর আর পেছনে ফিরে থাকাতে হয়নি তাকে। ৮৭টি ওয়ানডে ম্যাচে নেতৃত্ব দিয়ে ৪৯টিতে জয় এনে দিয়েছেন বাংলাদেশ দলকে। গতকাল সেই জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে অধিনায়ক হিসেবে শেষবারের মতো মাঠে নেমেছিলেন তিনি। আর সে ম্যাচেই তুলে নিলেন ওয়ানডে অধিনায়ক হিসেবে জয়ের অর্ধশতক। বাংলাদেশ দলের দুই ওপেনানের বিধ্বংসী রেকর্ডময় এক জুটিতে প্রথম ইনিংসেই জয়ের কাজটা সেরে রাখেন সেঞ্চুরি হাঁকানো দুই ব্যাটসম্যান লিটন দাস ও তামিম ইকবাল। বৃষ্টিবিঘিœত ম্যাচে ৪৩ ওভারে ৩২২ রান করে বাংলাদেশ। তবে ডিএল মেথডে জিম্বাবুয়ের লক্ষ্য দাঁড়ায় ৪৩ ওভারে ৩৪২ রান। আর তাতেই বোলিংয়ে নেমে জয়টা মুঠোবন্দী করে মাশরাফির দল। জয় দিয়ে শেষ ম্যাচটা উদযাপন করলেন বাংলাদেশের সফল অধিনায়ক মাশরাফি। গতকাল এরকম এক ম্যাচ দেখতে যেন ভীড় করেছিলেন দর্শকরা। বাংলাদেশের সবচেয়ে সফল অধিনায়কের শেষ ম্যাচ মাঠে বসে দেখতে ঢল নেমেছে সিলেট আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে। যদিও আগেই জিম্বাবুয়ের সঙ্গে ওয়ানডে সিরিজ জয় নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশ।

গতকালের ম্যাচটি ছিল শুধু নিয়ম রক্ষার। তবে অধিনায়ক হিসেবে মাশরাফির শেষ ম্যাচ বলেই কিনা ম্যাচটির গুরুত্ব বেড়েছে বহুগুণ। গতকাল ম্যাচ শুরুর আগে থেকেই সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম প্রাঙ্গণে ছিল হাজারো দর্শকেরা ভিড়। টিকেট পেতে দাঁড়িয়ে ছিল হাজারো দর্শক। সবার মুখে মুখে ছিল মাশরাফির নাম। অধিনায়ক মাশরাফিকে মিস করবে বাংলাদেশ এমন মন্তব্য ছিল সবার।

সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলা থেকে চার বন্ধুর সঙ্গে খেলা দেখতে এসেছেন ওমর ফারুক তপু। তিনি বলেন, ‘সকালে সিলেট পৌঁছে নামাজ পড়েই মাঠে এসেছি। আমি মাশরাফির ভক্ত। অধিনায়ক মাশরাফির খেলা দেখতে এসেছি।’

একই কথা বলেন সুবেল নামে আরেক দর্শক। তার বক্তব্য, ‘মাশরাফির মতো এমন অধিনায়কের জায়গা পূরণ করতে বেগ পেতে হবে বাংলাদেশ দলের’। সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামের সবচেয়ে আকর্ষণ ছিলে গ্রিন গ্যালারি। তবে তা এখন আর গ্রিন নেই। পুরোটাই ঘাসহীন। ঘাস না থাকা গ্রিন গ্যালারির নাম পরিবর্তন করে দেওয়া হয়েছে ‘গ্রিন হিল এরিয়া’। সেখানে কথা হয় সজিব নামে এক দর্শকের সঙ্গে। সজিব বলেন, আমি কানাইঘাট থেকে এসেছি মাশরাফির খেলা দেখতে। সিলেটে এমনিতেই আন্তর্জাতিক খেলা কম হয়। হয়তো এটাই আমার মাঠে বসে মাশরাফির শেষ খেলা দেখা।’ সজিবের বন্ধু তারেক রায়হান মাশরাফির অধিনায়কের দায়িত্ব ছেড়ে দেওয়াকে সঠিক সিদ্ধান্ত হিসেবে দেখছেন। তার মন্তব্য, ‘অধিনায়ক হিসেবে অনেক চাপ সামলাতে হয়, এখন মাশরাফি তার পারফরম্যান্সে আরও মনোযোগ দিতে পারবে। তবে আর কতদিন মাশরাফি খেলোয়াড় হিসেবে থাকবেন সেটাও তাকে ভাবতে হবে।’ মাশরাফির এ বিদায়ী ম্যাচ দেখতে মাঠে আসা দর্শকরা বেশ উপভোগই করেছেন। তামিম-লিটনের রেকর্ড ভরা ইনিংসের পর বল হাতে নেমেই প্রথম ওভারে উইকেট তুলে নিয়ে ম্যাচটা আরো রঙিন করলেন মাশরাফি নিজেই।

The Post Viewed By: 33 People

সম্পর্কিত পোস্ট