চট্টগ্রাম শুক্রবার, ০৫ জুন, ২০২০

সর্বশেষ:

ফাইনালে অস্ট্রেলিয়া-ভারত

৬ মার্চ, ২০২০ | ৬:১১ পূর্বাহ্ণ

স্পোর্টস ডেস্ক

ফাইনালে অস্ট্রেলিয়া-ভারত

সকালে কপাল পুড়েছে ইংল্যান্ডের, বিকালে পুড়তে পারতো অস্ট্রেলিয়ারও। ভাগ্য ভালো অজি মেয়েদের, বৃষ্টিতে ম্যাচটা ভেসে যায়নি। ডিএল মেথডে দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারিয়ে তারা পৌছে গেছে ফাইনালে। সেখানে তাদের প্রতিপক্ষ ভারত। কষ্টসাধ্য হলেও প্রোটিয়া মেয়েরা সুযোগ পেয়েছিল লড়াই করার। কিন্তু ইংলিশ মেয়েরা যে মাঠেই নামতে পারেনি। না খেলেই তাই ভারতের মেয়েরা ফাইনালে। সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে বিশ্বকাপের দ্বিতীয় সেমিফাইনালে গতকাল বিকালে হয় অস্ট্রেলিয়া ও দক্ষিণ আফ্রিকা। ম্যাচটিতেও চোখ রাঙাচ্ছিল বৃষ্টি। আর এই ম্যাচটিও যদি পরিত্যক্ত হতো তবে ইংল্যান্ডের দশা হতো অস্ট্রেলিয়ার।

কারণ গ্রুপ পর্বের পয়েন্ট হিসেবে প্রোটিয়া মেয়েদের থেকে এক পয়েন্ট কম ছিল তাদের। দক্ষিণ আফ্রিকা শেষ চারে ওঠেছিল ৭ পয়েন্ট নিয়ে। সেমিফাইনালের ম্যাচটি পরিত্যক্ত হলে ভারতের মতো তারাও প্রথমবার ফাইনালে ওঠতো। সেক্ষেত্রে এবারের নারী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের শিরোপা উঠতো কোনো এক নতুন দলের হাতে। কিন্তু তা আর হয়নি। দ্বিতীয় সেমিফাইনালে ঠিকই বৃষ্টি হয়েছে। তবে তাতে ক্ষতি হয়েছে প্রোটিয়াদেরই। টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৫ উইকেটে ১৩৪ রান সংগ্রহ করে অজি মেয়েরা। দলের হয়ে ৪৯ বলে ৪ চার ও ১ ছক্কায় সর্বোচ্চ ৪৯ রানের ইনিংস খেলে অপরাজিত থাকেন অধিনায়ক ম্যাগ ল্যানিং। এছাড়া ২৮ রান করেছেন ওপেনার বেথ মোনি। অবশ্য বৃষ্টির কারণে দক্ষিণ আফ্রিকার সামনে টার্গেটটা ১৩ ওভারে নেমে আসে ৯৮ রানে। কিন্তু প্রোটিয়া মেয়েরা ফাইনালে ওঠার আশায় ব্যাটিংয়ে নেমে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়তে পারেনি। ৫ উইকেটে ৯২ রানে থেমে যায় তাদের ইনিংস। ২৭ বলে ৩ চার ও ২ ছক্কায় ঝড়ো ৪১ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলেও প্রোটিয়াদের জেতাতে পারেননি লরা উলভারডট। জয় পেলে ছেলে বা নারী ক্রিকেটে প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপের ফাইনালে ওঠতো দক্ষিণ আফ্রিকা। প্রথম সেমিফাইনালে সকালে মুখোমুখি হওয়ার কথা ছিল ইংল্যান্ড ও ভারতের। কিন্তু সিডনিতে বৃষ্টির কারণে একটি বলও মাঠে গড়ায়নি। ম্যাচের জন্য কোনো রিজার্ভ ডে’ও রাখা হয়নি। ফলে ইংল্যান্ডের চেয়ে পয়েন্ট বেশি হওয়ায় ফাইনালে চলে যায় ভারতের নারী দল। ফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে নারী দিবসে মানে ৮ ফেব্রুয়ারি।

The Post Viewed By: 22 People

সম্পর্কিত পোস্ট