চট্টগ্রাম রবিবার, ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০

চান্দগাঁওয়ে নতুন ক্রিকেট স্টেডিয়াম হচ্ছে

৩০ জানুয়ারি, ২০২০ | ১:৫১ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব ক্রীড়া প্রতিবেদক

ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করবেন সাকিব আল হাসান

চান্দগাঁওয়ে নতুন ক্রিকেট স্টেডিয়াম হচ্ছে

এক সময়ে চট্টগ্রাম থেকে ৬ জনের বেশি জাতীয় ক্রিকেট দলে অংশ নিয়েছিল। এখন সেই জৌলুস আর নাই। পাইপ লাইনেও সেরকম কেউ কড়া নাড়ছে না। নিজে এক সময়ে ক্রিকেট খেলেছি, ক্রিকেটের প্রতি সেই অনুরাগ থেকেই গঠন করি কোয়ালিটি স্কুল অব ক্রিকেট নামে একটা একাডেমি। এবারে আরো বড় এক কাজে হাত দিয়েছি। একটা ক্রিকেট স্টেডিয়াম গড়ার উদ্যোগ আমরা নিয়েছি। যার ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করবেন বিশ্ব বরেণ্য ক্রিকেটার সাকিব আল হাসান। একই সাথে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী সামনে রেখে বর্তমানে অনুর্ধ্ব-১৫ বছর বয়সের ক্রিকেটারদের একটি বয়সভিত্তিক টুর্নামেন্ট চলছে। কাল শুক্রবার টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা শেষে বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করবেন সাকিব আল হাসান। গতকাল বুধবার নগরীর একটি রেস্তোরাঁয় আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে স্টেডিয়াম নির্মাণ নিয়ে বিভিন্ন তথ্য জানান সানোয়ারা গ্রুপ অব কোম্পানীজের এমডি মুজিবুর রহমান। আরো উপস্থিত ছিলেন কোম্পানীজের অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক সাইফুল ইসলাম, ডেপুটি ম্যানেজিং ডিরেক্টর জাহেদুল ইসলাম, কোয়ালিটি স্পোর্টস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক এসএম হেলাল উদ্দিন এবং হাজেরা তজু কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ দবির উদ্দিন খান। সংবাদ সম্মেলনে জানা যায়, সম্পূর্ণ ব্যক্তিগত উদ্যোগে চট্টগ্রাম নগরীর চান্দগাঁও এলাকায় দুই একর জায়গা জুড়ে এই ক্রিকেট স্টেডিয়ামটি নির্মাণ করার পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে। চট্টগ্রাম আবাহনীর সভাপতি এবং সাবেক প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসি’র সন্তানেরা মিলে এ উদ্যোগটি গ্রহণ করেন। স্টেডিয়ামটি নির্মাণের জন্য যত অর্থের প্রয়োজন, তাঁর সবটুকু সানোয়ারা গ্রুপ অব কোম্পানীজের পক্ষ থেকে ব্যয় করা হবে। ইতোমধ্যে জমি ভরাটের যাবতীয় কাজ সম্পন্ন করা হয়েছে। স্টেডিয়ামের গ্যালারী নির্মাণের কাজও শুরু হবে শীঘ্রই। নির্মাণাধীন স্টেডিয়ামটির নামকরণ করা হয়েছে সানোয়ারা-ইসলাম ক্রিকেট স্টেডিয়াম। ২০২১ সালের ফেব্রুয়ারি মাসের মধ্যে স্টেডিয়ামের যাবতীয় প্রস্ততি কাজ সম্পন্ন করা হবে। ভুমির আকাশচুম্বী দামের এই যুগে বিশাল এই স্টেডিয়াম তৈরি করা হচ্ছে কেবল ক্রিকেটার সৃষ্টির লক্ষে।

বিদেশ থেকে উচ্চ মূল্যে ঘাস দিয়ে নির্মিতব্য এই মাঠে ক্রিকেট শেখার জন্য যত ধরণের সুযোগ সুবিধে দেয়া দরকার, তার সবই রাখা হবে এই স্টেডিয়ামে। এছাড়া সত্যিকার অর্থে একজন ক্রিকেটার হতে হলে শুরু থেকেই লম্বা দৈর্ঘ্যরে ক্রিকেট শিখতে হবে। এ কারণে এ ধরণের লম্বা দৈর্ঘ্যের টুর্নামেন্টের আয়োজন করা হবে যাতে টেস্ট খেলার একটা মেজাজ উঠতি বয়স থেকেই উঠতি বয়সে হয়ে যায়।

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 167 People

সম্পর্কিত পোস্ট